নিজস্ব প্রতিবেদক::

করদাতা ও সেবাগ্রহীতাদের স্বতঃস্ফূর্ত সাড়ায় জমে উঠেছে আয়কর মেলা ২০১৮। ৭ দিনব্যাপী আয়কর মেলার প্রথম দিন মঙ্গলবার আদায় হয়েছে ২১৮ কোটি ৪২ লাখ ৭৭ হাজার ৪৮ টাকা।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সিনিয়র তথ্য অফিসার সৈয়দ এ মু’মেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার প্রথম দিনে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের ৮টি বিভাগ, ৪টি জেলা এবং ৭টি উপজেলাসহ মোট ১৯টি স্পটে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মেলার প্রথম দিন করদাতা ও সেবা গ্রহীতাদের পদচারণায় মুখর ছিলে আয়কর মেলা। বিশেষ করে নারী ও তরুণ করদাতাদেরও ভিড় ছিল লক্ষ্যণীয়। সারাদেশে করদাতারা ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কর প্রদান ও সেবা গ্রহণ করেছেন।

এদিন মেলা সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে চলে। যার ফলশ্রুতিতে আয়কর আদায় হয়েছে ২১৮ কোটি ৪২ লক্ষ ৭৭ হাজার ৪৮ টাকা।

মেলা থেকে সেবা গ্রহণ করেছেন ১ লাখ ১৩ হাজার ৬৯৯ জন করদাতা। আর রিটার্ন দাখিল করেছেন ৪৬ হাজার ৪০১ জন করদাতা।

এবার মেলার পরিধি গতবছরের মেলার চেয়ে কয়েকগুণ বাড়ানো হয়েছে। প্রতিদিন মেলা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। মেলায় আয়কর রিটার্ন দাখিল, ই-টিআইন গ্রহণ (নতুন ও পুরাতন), ই-পেমেন্ট, ই-ফাইলিং, ই-পেমেন্টের ব্যবস্থা রয়েছে।

মেলায় আসা মুক্তিযোদ্ধা, নারী, প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ করদাতাদের জন্য রয়েছে আলাদা বুথ। মেলায় করদাতাদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য রাজধানীর টিএসসি, রামপুরা, বেইলি রোড, মতিঝিল, মিরপুর ও উত্তরা থেকে ১৫টি শাটল বাস নিয়োজিত রয়েছে।

১৩-১৯ নভেম্বর রাজধানী ঢাকাসহ সকল বিভাগীয় শহরে ৭দিন, ৫৬টি জেলা শহরে ৪দিন, ৩২টি উপজেলায় ২দিন এবং ৭০টি উপজেলায় ১ দিনব্যাপী আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

কর আহরণের পাশাপাশি সামাজিক ন্যায় বিচার ও সমতা নিশ্চত করাই কর বিভাগের প্রধান কাজ। এ ধারাবাহিকতায় ‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’- স্লোগানকে সামনে রেখে এ বছর আয়কর মেলার প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘আয়কর প্রবৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক ন্যায় বিচার ও ধারাবাহিক উন্নয়ন নিশ্চিতকরণ’।