আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি বিলে স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের শাটডাউন। প্রায় তিনদিন অচলাবস্থা চলার পর সোমবার রাতে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সরকার পরিচালনার জন্য একটি তহবিল পাসের বিলে স্বাক্ষর করেন তিনি। তার আগে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটরা সমঝোতা করে কংগ্রেসে বিলটি পাস করে। ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ খবর জানিয়েছে।

এর আগে, ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাজেট বাড়ানো সংক্রান্ত একটি বিলে সিনেটররা একমত হতে না পারায় শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কার্যক্রম স্থগিত হয়ে শাটডাউন বা অচলাবস্থা তৈরি হয়। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের বিশ্লেষণ থেকে দেখা গেছে, বাজেট নিয়ে সিনেটরদের বিভক্ত হয়ে যাওয়ার মূলে রয়েছে অভিবাসন নীতিতে প্রস্তাবিত পরিবর্তন।

প্রায় তিন দিন শাটডাউন চলার পর সোমবার অভিবাসন বিষয়ে সিনেটে ডেমোক্র্যাট দলের নেতা চাক স্কুমার ও রিপাবলিকান দলের নেতা মিচ ম্যাককনেলের মধ্যে একটি সমঝোতা হয়। এরপর সরকারের জন্য তিন সপ্তাহের তহবিল বরাদ্দের ব্যাপারে সিনেটে ভোটাভুটি হয়।

পরে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভে প্রস্তাবটি ২৬৬-১৫৯ ভোটে পাস হয়। প্রস্তাবটির পক্ষে আগের চেয়ে ৩৬টি ভোট বেশি পড়ে। আর সিনেটে বিলটি ৮১-১৮ ভোটে পাস হয়। বিল পাসের পর সোমবার রাতেই তাতে স্বাক্ষর করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

ডেমোক্র্যাট দলের চারটি সূত্র জানিয়েছে, দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে ম্যাককনেল ও অন্যান্য রিপাবলিকান নেতাদের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এবারের অচলাবস্থা নিরসনের উদ্যোগ নেওয়া হয়। শাটডাউন শুরুর পর প্রথম কর্মদিবসের কয়েক ঘণ্টা পর ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়।

মার্কিন অর্থবছর শুরু হয় ১ অক্টোবর। তার আগেই বাজেট অনুমোদন করিয়ে নেওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকলেও প্রায়ই কংগ্রেস তা পাস করতে ব্যর্থ হয়। সে কারণে গত বছরের অর্থ বরাদ্দ চালু রাখতে ফেডারেল এজেন্সিগুলোকে অস্থায়ীভাবে তহবিল জোগান দিতে হচ্ছে। এবার সে বিষয়ে সম্মত হতে না পারায় শনিবার থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল মার্কিন সরকারের বিভিন্ন দফতর।