আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সৌদি আরবের বর্তমান বাদশাহ ও যুবরাজ সালমানের কঠোর সমালোচক সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার উত্তেজনার মধ্যে হঠাৎ যুক্তরাষ্ট্রকে ১০০ মিলিয়ন (প্রায় সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা) ডলার পরিশোধ করেছে সৌদি আরব।

বুধবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও যখন সৌদি আরব সফর করছিলেন, তখনই ওই অর্থ সৌদি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করা হয়। খবর : ডেইলি সাবাহর।

নিউইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে ডেইলি সাবাহর খবরে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে সহায়তার জন্য গত আগস্ট মাসে সৌদি আরব এ অর্থ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। সেই প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এ অর্থ দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

তবে জামাল খাশোগির বিষয়ে সৌদি বাদশাহ ও যুবরাজের সঙ্গে মিটিং করতে মাইক পম্পেও সৌদি যাওয়ার পরপরই এই বিশাল অর্থের লেনদেন অনেকে সন্দেহের চোখে দেখছেন।

তাছাড়া অর্থ স্থানান্তরের দিনই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভোল পাল্টে ফেলায় সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছে।

উল্লেখ্য, খাশোগিকে হত্যা করা হলে সৌদি আরবকে কঠোর শাস্তি দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু এরপরই ভোল পাল্টে তিনি বলেন, এ বিষয়ে সৌদি আরবকে এখনি দায়ী করা যাবে না। এটি দুষ্কৃতিকারীদের দ্বারা সংঘটিত হয়েছে।

নিউইয়র্ক টাইমস বলছে, জামাল খাশোগির বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র যে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছিল এই অর্থ প্রদানের মাধ্যমে তা অনেকটা স্বাভাবিক হবে।