আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: গত মাসে গাজায় একশ’রও বেশি ফিলিস্তিনি নিহতের ঘটনায় বুধবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের নেওয়ার এক রেজ্যলুশনে ১২০টি দেশ ইসরাইলের বিরুদ্ধে নিন্দা জানিয়েছে। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এতে সম্মত হতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে এবং গাজার ঘটনার জন্য হামাসকেই দায়ি করে তারা।

তুরস্ক ও আলজেরিয়ার প্রস্তাবে রেজ্যলুশনটিতে ১৯৩টি অ্যাসেম্বলি সদস্যের মধ্যে ১২০টি দেশ সমর্থন দেয়। ৮টি দেশ এর বিরোধিতা করে এবং ৪৫টি দেশ ভোটদানে বিরত থাকে। গাজার সঙ্গে সীমান্তে হামাসই সহিংসতা উস্কে দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিন্দা জানিয়ে একটি সংশোধনী গ্রহণের প্রস্তাব আনলেও দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠ সমর্থন না পাওয়ায় সেটি ব্যর্থ হয়।

মার্চের শেষ থেকে এখন পর্যন্ত গাজায় ইসরাইলি হামলায় ১২৯ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়। বিপরীতে কোন ইসরাইলির হতাহতের ঘটনা ঘটেনি এসময়ে। রেজ্যলুশেনটিতে ফিলিস্তিনি নাগরিকদের বিরুদ্ধে ইসরাইলের ‘অত্যধিক, অবাধ ও অগ্রহণযোগ্য বাহিনী’ ব্যবহারের নিন্দা এবং গাজায় ও দখলকৃত পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনি নাগরিকদের সুরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানানো হয়।

এই রেজ্যলুশনের মাধ্যমে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতারেস গাজায় ও পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনিদের জন্য ‘আন্তর্জাতিক সুরক্ষা ব্যবস্থা’ প্রস্তাবের খসড়া প্রস্তুত করার লক্ষ্যে কাজ করবেন।

পরবর্তীতে এর ফলে একটি পর্যবেক্ষক মিশনের মাধ্যমে সেখানে শান্তিরক্ষা বাহিনী পাঠানোর সুযোগ পাওয়া যাবে। তবে যে কোন ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নিরাপত্তা পরিষদের সম্মতি প্রয়োজন। সেখানে ভেটো প্রদানের শক্তির কারণে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। সূত্র: দ্য নিউ আরব।