আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করে জাপানকে ডুবিয়ে দেয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাইভস্মে পরিণত করার হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশন ও নতুন নিষেধাজ্ঞা সমর্থন করায় দেশ দুটির বিরুদ্ধে এ হুমকি দেয়া হয়।

আজ বৃহস্পতিবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংস্থা কোরিয়া এশিয়া-প্যাসিফিক কমিটি এ হুমকি দেয়।

এ সংস্থাটির মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া আন্তর্জাতিক চুক্তি সম্পাদন ও বিদেশে প্রচারণা চালিয়ে থাকে।

সংস্থাটির অভিযোগ, বিভিন্ন দেশ ঘুষ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নির্দেশ পালন করতে নিরাপত্তা পরিষদকে শয়তানের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে।

এ অভিযোগে নিরাপত্তা পরিষদ ভেঙে দেয়ারও দাবি জানিয়েছে উত্তর কোরিয়া।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ কোরিয়া এশিয়া-প্যাসিফিক কমিটির বিবৃতি প্রকাশ করেছে।

এতে বলা হয়েছে, চারটি দ্বীপমালা ‘জুশে’ পারমাণবিক বোমা মেরে সাগরে ডুবিয়ে দেওয়া হবে। আমাদের কাছাকাছি জাপানের অস্তিত্ব থাকার দরকার নেই।

বিবৃতিতে উত্তর কোরিয়ার নেতার প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, আসুন আমরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডকে ছাই ও অন্ধকারে পরিণত করি। আমরা এখন পর্যন্ত যতখানি প্রতিশোধমূলক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি তা দিয়েই আমরা ক্ষোভ ঝেড়ে দিই।

দক্ষিণ কোরিয়াকে বিশ্বাসঘাতক ও যুক্তরাষ্ট্রের কুকুর হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে বিবৃতিতে।

উল্লেখ্য, উত্তর কোরিয়ার বর্তমান নেতা কিম জং উনের দাদা ও দেশটির প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল-সুং মার্কসবাদ ও উগ্র জাতীয়তাবাদ নিয়ে ‘একলা চলো’ নীতির সমন্বয়ে গড়ে ওঠা দর্শনকে বলা হয় ‘জুশে’ দর্শন।

গত ৩ সেপ্টেম্বর ষষ্ঠ পারমাণবিক পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। এরপর সোমবার ১৫ সদস্যবিশিষ্ট নিরাপত্তা পরিষদ সর্বসম্মতভাবে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

এরপরই কিম ইল-সুংয়ের জুশে দর্শনের কথা উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানকে হুমকি দিল উত্তর কোরিয়া।