আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ডেরাগাজিখান এলাকার শক্তিধর লেগারি বংশকে পরাজয় করানো ততটা সহজ ছিল না। পঞ্চাশ বছর যাবত এ এলাকার আসনটি ধরে রেখেছে লেগারি বংশ। এবার ২৫ জুলাই নির্বাচনে সেই অসম্ভবকে সম্ভব করিয়ে দেখিয়েছেন পিটিআই থেকে মনোনয়ন পাওয়া নারী জারতাজ গুল। ন্যাশনাল এসেম্বলির ৯১তম আসনে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে লেগারি বংশের ৫০ বছরের শাসনকে ভেঙ্গে দিয়েছেন জারতাজ। উঠে এসেছেন আলোচনাও। এবার তাকে এসেম্বলির ডেপুটি স্পিকার পদে মনোনয়ন দিয়েছে পিটিআই।

উত্তর ওয়াজিরাস্তানের অধিবাসী জারতাজ গুল (৩৪)। লাহোরেই নিজের পড়াশোন সমাপ্ত করেন। তারপর পিটিআই এর সমর্থক হিসেবেই ছিলেন। তবে বিয়ের পর নিজের স্বামীসহ জারতাজ গুল তেহরিকে ইনসাফে যোগ দেন। তিনি প্রথমবার ২০১৩ সালে ডিজিখান থেকে নির্বাচনে লড়েছিলেন। তবে সেসময় সফল না হলেও ২০১৮ সালের নির্বাচনে বিজয়ের মুকুটটি ঠিকই ছিনিয়ে আনেন।

গত ২৫ জুলাইর নির্বাচনে জারতাজ গুল মুসলি লীগ (এন) এর প্রার্থী সফদার ওয়েস খান লেগারিকে ২৫ হাজার ভোটে হারিয়েছেন। সাবেক মন্ত্রী সফদার ওয়েস খান লেগারি এ আসন থেকে তিনবার নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার বাবা ফারুক লেগারি পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। এমন শক্তিধর ফ্যামিলি থেকে শাসন ছিনিয়ে আনা ছিল জারতাজ গুলের জন্য রীতিমত অগ্নি পরীক্ষা।

জারতাজ গুলের উত্থানকে অনেকটা সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিনা রব্বানী খারের সঙ্গেই তুলনা করছেন অনেকে। হিনার মতোই আকর্ষণীয় এ নারী পাকিস্তানের রাজনীতির মাঠ কাঁপাবেন বলে মনে করা হচ্ছে। খবর: জিও টিভি উর্দু