আন্তর্জাতিক ডেস্ক::

ইরানের সঙ্গে চলমান উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে মধ্যপ্রাচ্যে আরও কয়েক হাজার সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বুধবার মার্কিন সরকারের কয়েক কর্মকর্তা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোকে বিষয়টি অবহিত করেছেন। খবর আনাদোলু ও আল আরাবিয়্যাহর।

নির্ভরযোগ্য তিনটি সূত্রের বরাতে সিএনএন জানায়, মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় (পেন্টাগন) বৃহস্পতিবারের মধ্যেই মধ্যপ্রাচ্যে কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন করবে। ওয়াশিংটন ও তেহরানের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির কারণে ইরানকে একঘরে করতেই নতুন এ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়।

পেন্টাগনের দুই শীর্ষ কর্মকর্তার বরাতে মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী গণমাধ্যম আল আরাবিয়্যাহ জানায়, নতুন করে সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনাটি পেন্টাগনের সিনিয়র কর্মকর্তারা মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের কাছে উপস্থাপন করেছেন। বৃহস্পতিবারের মধ্যে এ বিষয়ে হোয়াইট হাউস বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে যে, পুরো ১০ হাজার সেনা পাঠানো হবে নাকি একটা অংশ পাঠানো হবে। সে ক্ষেত্রে পাঁচ হাজার সেনাও পাঠানো হতে পারে।

সিএনএন জানায়, প্রাথমিকভাবে ওয়াশিংটন কয়েক হাজার সৈন্য পাঠাতে পারে যার সংখ্যা নির্দিষ্ট নয়, তার পরে পরিস্থিতি বিবেচনা করে সামরিক বাহিনীর উপস্থিতি জোরদার করতে পারে।

এর আগে মার্কিন কর্মকর্তাদের প্রকাশিত একটি সুপারিশে বলা হয়েছে, ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি ঠেকাতে মধ্যপ্রাচ্যে এক লাখ মার্কিন সেনা মোতায়েন প্রয়োজন এবং ইরানের বিমানবাহিনীর গণবিধ্বসী ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ধ্বংস করা উচিত।

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত সপ্তাহে ওয়াশিংটন মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধবিমান মোতায়েন এবং কৌশলগত বোমা হামলার ঘোষণা দিয়েছে।