নিজস্ব প্রতিবেদকঃঃ
নাটকের এজেন্সি হিসেবে পরিচিত নাম ‘ফ্যাক্টর থ্রি সলিউশন’। কপিরাইট আইন ভঙ্গ করায় এই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে কপিরাইট কর্তৃপক্ষ। এজন্য তাদের গুনতে হবে ২ লাখ টাকা জরিমানা।

ফ্যাক্টর থ্রি সলিউশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ-২০১৮ সালের ২৫ ডিসেম্বর নাগরিক টিভিতে প্রচারিত হওয়া ‘পূর্ণতা’ নামক টেলিফিল্মটির অবৈধ স্বত্বাধিকার দাবি করেন ফ্যাক্টর থ্রি সলিউশনের সিইও মোঃ শাহেদ হোসেন। কিন্তু টেলিফিল্মটির প্রকৃত প্রযোজক এফ. জামান তাপস। তার অনুমতি ছাড়াই অবৈধ ভাবে এটিকে নাগরিক টিভিতে প্রচার করেন এবং ইউটিউব চ্যানেল সিডি চয়েসের কাছে বিক্রি করেন।

এই ঘটনায় টেলিফিল্মটির প্রকৃত স্বত্বাধিকারী এফ. জামান তাপস চলতি বছরের মে মাসে কপিরাইট অফিসে অভিযোগ দাখিল করেন। সেখানে তিনি উল্লেখ করেন, ‘পূর্ণতা’ টেলিফিল্মটির স্বত্বের অধিকারী হওয়ার পূর্বেই মোঃ শাহেদ হোসেন নিজেকে টেলিফিল্মটির প্রযোজক দাবি করেন, যা বাংলাদেশ কপিরাইট আইনের ৭১ ও ৭৩ ধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন এবং ৭৬ ও ৮২ ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গন্য।

সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ৬ আগষ্ট ২০১৯ কপিরাইট অফিসের রেজিষ্টার জাফর রাজা চৌধুরী অভিযোগের প্রমাণ পান এবং রায় দেন। রায়ে বলা আছে, আদেশ স্বাক্ষর হওয়ার তারিখের ৭২ ঘন্টার মধ্যে সিডি চয়েসকে নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল থেকে ‘পূর্ণতা’ টেলিফিল্মটি সরিয়ে নেয়া ও টেলিফিল্মটির কন্টেন্ট আদেশ স্বাক্ষরের ৩০ কার্য দিবসের মধ্যে কপি রাইট অফিসে জমা প্রদান এবং ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে অর্জিত সমুদয় অর্থ বাদীকে প্রদান করতে হবে। মোঃ শাহেদ হোসেনকে আদেশ স্বাক্ষরের ৩০ কার্য দিবসের মধ্যে বাদী এফ. জামান তাপসকে ২ লক্ষ টাকা প্রদানের আদেশ দেয়া হয়েছে। আদেশ অনুযায়ী নাগরিক টিভিতে ‘পূর্ণতা’ টেলিফিল্মটির সম্প্রচার বাবদ ফ্যাক্টর থ্রি সলিউশনকে প্রদেয় অপরিশোধিত অর্থ টেলিফিল্মটির মূল স্বত্বাধিকারি এফ. জামান তাপসকে নাগরিক টিভি কর্তৃপক্ষ প্রদান করবে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২৫ শে ডিসম্বের নাগরিক টিভিতে প্রচারিত হওয়া ‘পূর্ণতা’ টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন ফারহান আহমেদ জোভান ও মেহেজাবিন চৌধুরী। রচনা করেছেন ফাইয়াদুজ্জামান তামিম এবং পরিচালক ও প্রযোজক এফ. জামান তাপস।