কালিয়াকৈর প্রতিনিধি॥
গাজীপুরের কালিয়াকৈরে আড়াই বছরের শিশুকে ধর্ষনের দায়ে অভিযুক্ত নুরু মিয়ার দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবিতে রবিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের সামনে ঢাকা -টাঙ্গাইল মহসড়কে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

মামলার বিবরনে জানা গেছে, গত ০৩ এপ্রিল ২০১৯ ইং তারিখে উপজেলর শ্রীফলতলী এলাকার এক প্রবাসীর আড়াই বছরের শিশু কন্যা রাতে যৌনাঙ্গে ব্যাথা অনুভব করে। পরে শিশুটির মা যৌনাঙ্গে রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন দেখে এবং পরদিন সকালে শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। পরে মেয়েটিকে জিজ্ঞাসা করলে সে সিরাজের বাসার ভাড়াটিয়া শাহজামালের ছেলে লম্পট নূরু মিয়াকে দেখিয়ে সনাক্ত করেন।

এ ব্যাপারে শিশুটির মা শিউলী আক্তার কালিয়াকৈর থানায় গত ৪ এপ্রিল একটি মামলা দায়ের করেন।

ওই দিনই পুলিশ নূরু মিয়াকে গ্রেফতার করে গাজীপুর আদালতে প্ররেন করে। সম্প্রতি আসামী নূরু মিয়া উচ্চ আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে ধর্ষিতার পরিবারকে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে।

ধর্ষণকারী নূরু মিয়ার দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ও শিশুটির পরিবারের নিরাপত্তার দাবীতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, চাপাইর বি.বি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তোফাজ্জল হোসেন,শিশুর মা শিউলী বেগম, রাফি সিদ্দিকী,খেয়া সিদ্দিকী, রোকেয়া জাবেদ মায়া,জাহিদ হোসেনসহ এলাকাবাসি।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক আইনুল হক জানান, মামলার আসামীকে প্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছি, জামিনে আসার বিষয়টি জানা নাই এবং মামলাটি তদন্তধীন রয়েছে।