কুমিল্লা প্রতিনিধি::

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তিন ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ওসিসহ চার পুলিশ সদস্য।

রোববার রাতে উপজেলার কোমল্লায় গোমতী নদীর বেড়িবাঁধে এ বন্দুকযুদ্ধ হয়। নিহতরা হলেন- কুমিল্লার দেবিদ্বারের জয়নাল আবেদীনের ছেলে বাবুল, ব্রাহ্মণপাড়ার গোপালনগর দিঘিরপাড় গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে এরশাদুল ও বুড়িচংয়ের জগতপুর গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে অলি মিয়া।

আহতরা হলেন- বুড়িচং থানার ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস, এসআই মোজাম্মেল, এএসআই গোলাম মহিউদ্দিন ও কনস্টেবল রফিক।

কুমিল্লা ডিবি পুলিশের ওসি মো. মাঈনুদ্দিন জানান, কোমল্লায় গোমতী নদীর বেড়িবাঁধে একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে, এমন গোপন খবরে বুড়িচং থানা পুলিশ ও ডিবি সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় অভিযানের টের পেয়ে ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। থানা পুলিশ ও ডিবি আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এতে তিন ডাকাত আহত হয়। অন্যরা পালিয়ে যায়। এ সময় ওসিসহ চার পুলিশ আহত হন। পরে ঘটনাস্থল পিস্তল, পাইপগান, গুলি, রামদা ও আহত তিন ডাকাতকে উদ্ধার করা হয়। এরপর তাদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তিনজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি মো. মাঈনুদ্দিন আরো জানান, প্রত্যেক ডাকাতের বিরুদ্ধে ডাকাতি, খুন, অস্ত্র ও মাদকসহ ৫টিরও বেশি মামলা রয়েছে।