কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি::

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে গাঁজাসহ আটক এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া অটোচালকের নাম মোজাফ্ফর হোসেন। তার বাড়ি উপজেলার শিলখুড়ি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের উত্তর ছাট গোপালপুর গ্রামে।

রবিবার (২ ফেব্রুয়ারি ) দিবাগত রাতে উপজেলার ধলডাঙা ঝালবাজার এলাকায় দুই যাত্রীসহ মোজাফ্ফরের অটোরিকশার গতিরোধ করে পুলিশ। এ সময় পুলিশ দেখে অটোরিকশার দুই যাত্রী পালিয়ে যায়। পরে ব্যাগ তল্লাশি করে গাঁজাসহ অটোচালক মোজাফ্ফরকে আটক করে পুলিশ। থানায় নেওয়ার কিছুক্ষণ পর মোজাফ্ফর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ভূরুঙ্গামারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসায় অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু রাত ১২টার পর আবারও অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্বিতীয় দফা ভূরুঙ্গামারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। কিন্তু সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন। কিন্তু পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়।

ভূরুঙ্গামারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. সিরাজুল ইসলাম জানান, অটোচালক মোজাফ্ফর শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ভূগছিলেন তাকে দুই দফায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। দ্বিতীয়বার তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করি। কিন্তু পরে জানতে পারলাম পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়েছে।

ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ কবির বলেন, ‘যাত্রী পালিয়ে গেলেও অটোচালককে গাঁজাসহ আটক করা হয়েছে। সে অসুস্থ হলে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।’ এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা হয়েছে বলে জানান ওসি।