কৃষি ডেস্ক:: গম এবং বার্লি জাতীয় ফসল চাষের জন্য সাধারণত সাড়ে তিন থেকে চার মাস সময় লাগে। এর ফলে বছরে সর্বোচ্চ তিন বার এ জাতীয় ফসল চাষ করা সম্ভব। যদিও গম বছরে মাত্র একবারই ফলানো সম্ভব। তবে এবার একদল বিজ্ঞানী বলছেন, তিন বার নয় বছরে ছয় বার ফসল ফলানোর পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন তারা। ন্যাচার জার্নালে প্রকাশিত ঐ নিবন্ধে বলা হয়েছে, ফসল ফলানোর জন্য সাধারণত সূর্যের আলোর দরকার হয়। সাধারণত রাতের বেলা সূর্যের আলো থাকে না। প্রাকৃতিকভাবে ফসল ফলানোর জন্য তিন থেকে চার মাস লেগে যায়। কিন্তু বিজ্ঞানীরা রাতের বেলা কৃত্রিম আলোর ব্যবস্থা করে ফসল ফলানোর সময় কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন। তাদের দাবি, ২২ ঘণ্টা নিরবচ্ছিন্ন আলোর ব্যবস্থা করতে পারলে মাত্র দুই মাসেই ফসল ঘরে তোলা সম্ভব।

গবেষণা দলের অন্যতম সদস্য কুইন্সল্যান্ড এলিয়েন্স ফর এগ্রিকালচার এন্ড ফুড ইনোভেশন ইন অস্ট্রেলিয়ার বীজ জীব বিজ্ঞানী লি হিকে বলেন, মানুষসহ অন্য স্তন্যপায়ী প্রাণিদের জন্য রাতের বেলা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায় আলো। স্বাস্থ্যগত জটিলতারও আশঙ্কা থাকে। কিন্তু গম এবং বার্লি জাতীয় ফসলের ক্ষেত্রে খুবই কার্যকরী ভূমিকা রাখতে সক্ষম কৃত্রিম আলো। আলোর পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়ার ফলে দ্রুত ফসল ফলানোর এই পদ্ধতির ফলে নতুন সম্ভাবনা দেখছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে, এই পদ্ধতি নিয়ে অধিকতর গবেষণার দরকার রয়েছে। কারণ এটি পুরোপুরি সফল হলে ধান, ভুট্টাসহ অন্যান্য শষ্য জাতীয় ফসলের চাষের ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন হবে।

গবেষণা দলের অন্যতম সদস্য ব্রান্ডে উল্ফ বলেন, নতুন এই প্রযুক্তি ফসল চাষের ক্ষেত্রে রীতিমতো বিপ্লব ঘটাতে পারে। সবকিছু ঠিকভাবে করতে পারলে কৃত্রিম আলোতে দ্রুত ফসল ফলানোর পাশাপাশি ফসলের মানও ভালো হবে।—ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক