নিজস্ব প্রতিবেদক::

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ বুধবার (৪ ডিসেম্বর) নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার জামিনের দাবি জানাচ্ছেন দেশের জনগণ। অথচ স্বাভাবিক এই জামিন নিয়ে কত রকমের টালবাহানা করা হচ্ছে। ‘সরকারদলীয় লোকেরা প্রকাশ্যে হুমকি ও ঘোষণা দিয়ে জামিনে বাধা দেয়া হচ্ছে। দেশনেত্রীকে জেলে রেখে হত্যার হুমকিও দেয়া হচ্ছে।’

রিজভী বলেন, আইন-আদালত, ন্যায়বিচার, সংবিধান, মানবাধিকার, মৌলিক অধিকার, বয়স, অসুস্থতাসহ সব বিবেচনায় তার জামিন পাওয়া আইনগত অধিকার। দেশ-বিদেশের আইনজ্ঞরা বলছেন, এই মামলায় জামিন না পাওয়া বিস্ময়কর। তিনি নিশ্চিতভাবেই জামিনের হকদার।

বিএনপির এ নেতা আরও বলেন, আগামীকাল বৃহস্পতিবার সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি করবেন। কালকের মধ্যে তার শারীরিক অবস্থার সবশেষ প্রতিবেদন দিতে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রিজভী আরও বলেন, আমরা বিশ্বাস করি উচ্চ আদালত থেকে দেশনেত্রী ন্যায়বিচার পাবেন। তার জামিন পাওয়া ন্যায়সঙ্গত অধিকার। ইতিপূর্বে এ ধরনের মামলায় উচ্চ আদালত থেকে অনেকেই জামিন পেয়েছেন, সেটির অসংখ্য নজিরও রয়েছে। জাতি আগামীকাল দেশনেত্রীর জামিনের বিষয়ে উচ্চ আদালতের দিকে তাকিয়ে আছে বলে জানান তিনি।

রিজভী অভিযোগ করেন, গেল ২৫ দিন ধরে খালেদা জিয়ার সাথে স্বজনদের দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না, যা জেল কোডের লঙ্ঘন।