স্পোর্টস ডেস্ক:: মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডেতে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৯৯ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় চান্দিমালরা।

তবে কুসাল পেরেরা ও থিসারা পেরেরা আজও লঙ্কানদের কাণ্ডারি হয়ে না দাঁড়ালে অঘটন ঘটতে পারতে লঙ্কান শিবিরে। কারণ ১৯৯ রান তুলতে গিয়ে বার বার পথ হারিয়েছে হাথুরুর শিষ্যরা। ৪৪.৫ ওভার লেগেছে এই রান তুলতেই।

এদিন লঙ্কানদের হয়ে ১ রানের জন্য অর্ধশতক বঞ্চিত হয়েছেন কুসাল (৪৯)। থিসারা (৩৯), কুসাল মেন্ডিস (৩৬) ও দিনেশ চান্দিমাল (৩৮) রান সংগ্রহ করেন। জিম্বাবুয়ের হয়ে ব্লেসিং মুজরাবানি ৩টি, টেন্ডাই চাতারা ও কাইল জার্ভিস ১টি করে উইকেট নেন।

এর আগে দিনের শুরুতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক। তবে লঙ্কানদের বোলিং দাপটে পুরোপুরি এলোমেলো হয়ে যায় গ্রায়েম ক্রেমারের দল। ৪৪ ওভার শেষে ১৯৮ রানেই অলআউট হয়ে যায় টিম জিম্বাবুয়ে।

ব্যাট হাতে দিনের শুরুটা ভালোই ছিল জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনার হ্যামিল্টন মাসাকাদজা এবং সলোমন মিরের। দুজনে ৪৪ রানের উদ্বোধনী জুটি উপহার দেন। ৩০ বলে ২০ রান করা অভিজ্ঞ মাসাকাদজা থিসারা পেরেরার শিকার হলে শুরু হয় ধস। দুই ওভারের ব্যবধানে সলোমন মিরও (২১) শিকার হন পেরেরার।

ক্রেইগ এরভিনকেও উপুল থারাঙ্গার তালুবন্দি করে তৃতীয় শিকার ধরেন পেরেরা। ৫৬ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরার চেষ্টা করেছিলেন ব্রেন্ডন টেইলর এবং সিকান্দার রাজা। কিন্তু ইনফর্ম বিধ্বংসী রাজাকে (৯) প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠিয়ে দেন সান্দাকান।

এরপর ম্যালকম ওয়ালার ও ব্রেন্ডন টেইলর বেশ দেখেশুনেই খেলতে থাকেন। তবে দলীয় ১৩৯ রানে ওয়ালার আউট হলে বিপাকে পড়ে জিম্বাবুয়ে। তিনি ব্যক্তিগত ২৪ রানে বিদায় নেন। পরে মুর শূন্য ও টেইলর ৮০ বলে ৫৮ রান করে আউট হলে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ক্রেমারের দল। পরে দলীয় ১৯১ রানে কাইল জার্ভিস (০৫), ১৯৮ রানে ক্রেমার (৩৪) ও মুজারাবানি (০) রানে আউট হলে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৯৮।