স্পোর্টস ডেস্ক:: ইডেন গার্ডেনে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ৫ উইকেটের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স। ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই উজ্জ্বল দেখা মিলেছে। তবে বোলিংয়ে একটু বেশিই উজ্জ্বল ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ব্যাট হাতেও দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন তিনি।

কলকাতাকে এবারই প্রথম ঘরের মাঠে পরাজিত করেছে হায়দরাবাদ। আর সানরাইজার্স সে জয় পেল কলকাতারই সাবেক খেলোয়াড় সাকিবের হাত ধরে। ম্যাচে বল হাতে ২১ রান খরচায় ২ উইকেটের সঙ্গে দুটি ক্যাচও নিয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি ব্যাট হাতেও দুই চার আর এক ছক্কায় সাকিবের সংগ্রহ ২১ বলে ২৭ রান।

ছোট লক্ষ্য হলেও মাত্র ৫৫ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিলেন অতিথিরা। অধিনায়ক উইলিয়ামসনের সঙ্গে এরপর চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৫৯ রান তুলে সাকিব ম্যাচে ফেরান হায়দরাবাদকে। মাঝে অ্যান্ড্রু রাসেলের করা ম্যাচের ১২তম ওভারে এক চার আর দুই ছয়ে ১৫ রান নিয়েছিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার।

দারুণ ছন্দে থাকা বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ফিরেছেন পীযুষ চাওলার বলে বোল্ড হয়ে। সাকিব আউট হওয়ার একটু পরেই উইলিয়ামসন তুলে নেন অর্ধশতক। তবে ৪৪ বল খেলে ঠিক ৫০ রানেই ফিরতে হয়েছে কিউই অধিনায়ককে।

তাতে অবশ্য জয় পেতে খুব একটা সমস্যা হয়নি সাকিবের দলের। ইউসুফ পাঠান আর দীপক হুদার ব্যাটে এক ওভার হাতে রেখেই হায়দরাবাদ ম্যাচ জিতে নিয়েছে ৫ উইকেটে। ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন বিলি স্ট্যানলেক। এ নিয়ে মাঠে নামা তিন ম্যাচের তিনটিই জিতে নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে নিজেদের শীর্ষস্থান ধরে রাখল হায়দরাবাদ।