অনলাইন নিউজ ডেস্কঃ করোনা ভাইরাস শনাক্তে চীন থেকে কিট, পারসোনাল প্রটেকশন ইক্যুইপমেন্ট (পিপিই) ও ইনফ্রারেড থার্মোমিটার বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সন্ধ্যায় ঢাকায় এসে পৌঁছাবে।

চীন সরকার তাদের প্রতিশ্রুত ১০ হাজার টেস্টিং কিট, ১০ হাজার প্রোটেকটিভ গাউন ও ১ হাজার থার্মোমিটার সন্ধ্যায় হস্তান্তর করবে। ঢাকার চীন দূতাবাস এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। ।

দূতাবাস জানায়, চীনের কুনমিং শহর থেকে বিশেষ ফ্লাইটে কিট, পিপিই ও থার্মোমিটার বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবে।

বিমানবন্দরে চীন দূতাবাসের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব সরঞ্জামাদি আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ সরকারকে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে চীন দূতাবাস থেকে এক ফেসবুক পোস্টে জানানো হয়, ‘চীন থেকে ২য় ধাপে আসা করোনা মোকাবিলায় ব্যবহৃত চিকিৎসা সামগ্রীর সরবরাহ কিট গ্রহণ করার জন্য রাষ্ট্রদূত লি জিমিং এর সঙ্গে তিনি আজ সন্ধ্যায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকবেন।’

ঢাকার চীন দূতাবাসের মিনিস্টার কাউন্সেলর ও উপপ্রধান হুয়ালং ইয়ান জানান, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় শনাক্তকরণ কিটসহ স্বাস্থ্য সরঞ্জাম নিয়ে বিশেষ বিমানটি বৃস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় বিমানবন্দরে পৌঁছাবে। রাষ্ট্রদূত নিজে উপস্থিত হয়ে এই উপকরণ গ্রহণ করবেন।

উল্লেখ্য, চীন সরকার করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে চিকিৎসা সামগ্রী সহায়তা দিচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে বাংলাদেশে এসব সামগ্রী আসছে। এর আগে প্রথম দফায় চীন বাংলাদেশকে ২ হাজার কিট ও চিকিৎসা সামগ্রী দিয়েছিল।