ম.ম হারুন অর রশিদ, মাদারীপুর::
স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে একধাপ এগিয়েছে দক্ষিণাঞ্চলবাসীর। এরই মধ্যে বহুল আলোচিত পদ্মা সেতুর ৬০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

আগামী রবিবার সেসব কাজের উদ্বোধন করতে পদ্মা পাড়ে যাচ্ছেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঘুরে দেখবেন কাজের মান আর অগ্রগতি। এছাড়া সুধী সমাবেশ আর জনসভায় বক্তব্য রাখবেন তিনি। এতে দক্ষিণের জেলা মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর আর মাদারীপুরে নেতাকর্মী আর সাধারণ জনগণের মধ্যে বইছে প্রাণচাঞ্চল্যতা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নানা ঘটনার অবসান ঘটিয়ে নিজের দেশের টাকায় নির্মিত হচ্ছে বহুমুখি পদ্মা সেতু। সংযোগ সড়ক, রেল লাইন প্রকল্প আর ছয় লেনের সড়ক নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে পদ্মা সেতু ঘিরে। এরই মধ্যে মূল পদ্মা সেতুর ৬০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

সেসব কাজের পরিদর্শন ও উদ্বোধনের জন্যে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর ও মাদারীপুরে নানা কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসছেন। এসময় তিনি সেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি, নদী শাষন সংলগ্ন তীর প্রতিরক্ষামূলক কাজের উদ্বোধনসহ ৮ কাজের পরিদর্শন করবেন।
মাদারীপুর জেলা প্রশাসন সূত্রে মতে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার সকাল ১১টায় মাওয়া প্রান্তের পদ্মা সেতুর নামফলক উন্মোচন, মহাসড়কের ঢাকা-মাওয়া অংশের উদ্বোধন, পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন। পরে তিনি মাওয়ার টোলপ্লাজার সামনে সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

পরে তিনি সোয়া ১২টার দিকে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে গিয়ে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি পরিদর্শন, মূল নদী শাসন কাজের উদ্বোধন, পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তের নামফলক উন্মোচন এবং পাঁচর-ভাঙ্গা ১ হাজার ৩৯০ মিটার ছয় লেন সড়কের কাজের উদ্বোধন করবেন।

এরপর বিকেল ৩টায় মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকায় আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় যোগদান করবেন। সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে দিক-নির্দেশনা দিবেন বলে নেতা-কর্মীরা দাবী করেন।