নিজস্ব প্রতিবেদক::

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ভিসির পদত্যাগের দাবিতে বাসভবনের সামনে আন্দােলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতাদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ হামলার ঘটনায় সাংবাদিকসহ অন্তত ৩৫ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এর আগে ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে রাতভর অবরোধ ও বিক্ষোভ করছে আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

ছাত্রলীগ নেতারা বলেছেন, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিবির কর্মীদের আমরা প্রতিহত করতে গেছি।

এদিকে আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, তাদের বেশ কয়েকজনকে পাওয়া যাচ্ছে না। ছাত্রলীগ তাদের তুলে নিয়ে গেছে। আহতরা কয়েকজন হলেন, নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক সাঈদ ফেরদৌস, একই বিভাগের অধ্যাপক মীর্জা তাসলিমা সুলতানা, দর্শন বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক রায়হান রাইন। ছাত্রদের মধ্যে আহতরা হলেন, আলিফ (ইংলিশ, ৪৭ ব্যাচ), মারুফ (দর্শন, ৪৪ ব্যাচ), রুদ্রনীল (দর্শন, ৪৫ ব্যাচ) সহ আরও অনেকে।

এর আগে সোমবার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ‘উপাচার্য অপসারণ মঞ্চ’থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের মূল ফটকে অবস্থান নেন আন্দোলনকারীরা।আন্দোলনকারী ও ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ এর আহ্বায়ক এবং দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রায়হান রাইন বলেন, দুর্নীতিবাজ উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করা হয়েছে। যতক্ষণ পর্যন্ত উনি অপসারণ না হবেন ততোক্ষণ পর্যন্ত অবরুদ্ধ থাকবেন।