ই-কণ্ঠ অনলাইন::

অভিন্ন নদীর পানি বন্টনের ক্ষেত্রে দুই দেশ লাভবান হয় এমন পথই খুঁজে বের করা হবে বলে জানালেন ভারতের পরারষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর। তিনি বলেন, দুই দেশের জন্য লাভজনক হয় এমনটা বিবেচনায় নিয়ে ৫৪টি নদীর অভিন্ন পানিবণ্টনের বিষয়ে একটি ফর্মুলা বের করতে বাংলাদেশ-ভারত রাজি হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল কালাম আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের কাছে এসব বলেন।

আলোচনায় তিস্তার পানিবণ্টন নিয়ে কোনো অগ্রগতি আছে কিনা জানতে চাইলে জয়শঙ্কর বলেন, ‘এ ব্যাপারে ভারতের নিজস্ব প্রতিশ্রুতি রয়েছে। এর কোনো হেরফের বা পরিবর্তন হয়নি। এসময় আসামের নাগরিক পঞ্চি হলে ঐ তালিকার ৪০ লাখ জনগনকে বাংলাদেশে পাঠানো হতে পারে বা বাংলাদেশ ঝুঁকিতে রয়েছে গণমাধ্যমে আলোচিত এই বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করা হয় জয়শংকরকে। তিনি জানান, এটি ভারতের একদম অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটি নিয়ে কথা বলার কিছু নেই।

এসময় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রসঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, স্বেচ্ছায়, নিরাপদে এবং মর্যাদার সঙ্গে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে ভারত সব সময় সমর্থন দিয়ে আসছে।এ জন্য ভারত সম্ভাব্য সব ধরনের মানবিক সহায়তা দিতে তৈরি আছে।এরই মধ্যে রাখাইনে ভারত ২৫০টি বাড়ি হস্তান্তর করেছে।রোহিঙ্গাদের বিষয়ে তিনি আরো বলেন, ‘এই মানুষদের নিরাপদ ও সম্মানজনক প্রত্যাবাসন বাংলাদেশ-ভারত ও মিয়ানমারের জাতীয় স্বার্থে দরকার।আমরা রোহিঙ্গাদের বিষয়ে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে প্রস্তুত। নিরাপত্তা ইস্যুর বিষয়ে জয়শঙ্কর বলেন, আমরা এ নিয়ে আলোচনা করেছি এবং নিরাপত্তা বিষয়ে সহযোগিতা বাড়লে সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোকে দমনে সহযোগিতা বাড়বে।পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শংকর বলেন, নিরাপত্তা, কানেক্টিভিটি, পানি বণ্টন সহযোগিতা, মানুষে মানুষে এই বিষয়গুলোও আলোচিত হয়েছে।

জ্বালানি নিরাপত্তার বিষয়ে ভারতীয় এই মন্ত্রী বলেন, অনেক সরকারি ও বেসরকারি খাত নিয়ে আলোচনা চলছে।আরও আলোচনা করা হবে।কানেক্টিভিটির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা সম্পর্ক বৃদ্ধির মাধ্যমে এই সম্ভাবনাকে বাস্তবে পরিণত করতে চাই।উল্লেখ্য, ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এবারের ঢাকা সফরের উদ্দেশ্য হচ্ছে আগামী অক্টোবরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর সম্পর্কে আলোচনা করা।প্রধানমন্ত্রীর সফর নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের সম্পর্ক কৌশলগত সম্পর্কে পরিণত হয়েছে।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ সফরে আমরা উৎফুল্ল।ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর তিন দিনের সফর শেষে বুধবার সকালে কাঠমান্ডুর উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবেন।