বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক:: মানুষের তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা পেয়ে সেই মানবজাতিকেই কেন ধ্বংস করতে চেয়েছিলেন রোবট সোফিয়া অথবা কেন তার পরিবার-সন্তানের আকাঙ্ক্ষা? এমন প্রশ্ন যদি আসে মনে তাহলে তৈরি হতে থাকুন- বিশ্বজুড়ে আলোচিত এই যন্ত্রমানবী বাংলাদেশে আসছেন। ৫ ডিসেম্বর রাতে এর নির্মাতা ডেভিড হানসন সোফিয়াকে নিয়ে এক দিনের সফরে বাংলাদেশে আসবেন।

ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় প্রযুক্তি উৎসব ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে অংশ নেবেন সোফিয়া। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৬ ডিসেম্বর এই উৎসবের উদ্বোধনী দিনে থাকবেন তিনি। এ সময় সরাসরি দেখা তো মিলবে, ভাগ্য ভালো হলে প্রশ্ন করার সুযোগও পেতে পারেন। তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মানুষের ভাব-ভঙ্গি বুঝতে পারা ও হাসি-কান্না, রাগ-অভিমানসহ নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে পারেন সোফিয়া। কেউ তার সঙ্গে কথা বললে তাদের বোঝার চেষ্টা করে। সামনে মানুষ না থাকলে নিজে নিজে মুভি চালিয়ে দেখে। ভাবতে থাকে জগৎ, সংসার, সংস্কৃতি, দর্শন নিয়ে।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, ভিজুয়াল ডেটা, ফেশিয়াল রিকগনিশন ফিচার মেশিন লার্নিং পদ্ধতি যুক্ত থাকায় ওয়াই-ফাই কানেকশনে এসে নিজ সিদ্ধান্তেই মানুষের প্রশ্নের উত্তর দেন সোফিয়া। সম্প্রতি সৌদি আরবের নাগরিকত্বও পেয়েছেন তিনি।

রোবটটি নির্মাণ করেছে হংকংভিত্তিক ফার্ম হানসন রোবটিক্স। এর অবয়ব অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্নের মতো। সোফিয়াকে অ্যাক্টিভেট করা হয় ২০১৫ সালের ১৯ এপ্রিল। চলতি বছরের ১১ অক্টোবর তাকে প্রকাশ্যে আনা হয়।