আইটি ডেস্ক::

চীনের প্রযুক্তি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ২০১৯ সালের আসন্ন বার্সেলোনা মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে (এমডব্লিউসি) ভাঁজ করা ৫-জি প্রযুক্তির স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিতে পারে।

আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি হুয়াওয়ের এ ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানিয়েছে শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোনভিত্তিক রিভিউ সাইট ফোনঅ্যারেনা।

এ স্মার্টফোনে চিপ হিসেবে ব্যবহার করা হবে বেলং ৫০০০। প্রতিষ্ঠানটির প্রথম ৫-জি সমর্থিত বাণিজ্যিক ডিভাইসটি হুয়াওয়ে ৫-জি সিপিই প্রো নামে পরিচিত হবে।

পি-৩০ কি হুয়াওয়ের ভাঁজ করা ৫-জি স্মার্টফোনের সিরিজ হতে যাচ্ছে?

হুয়াওয়ে সূত্রে জানা যায়, একটি সিঙ্গেল চিপের মাধ্যমেই বেলং ৫০০০ এ টুজি, থ্রিজি, ফোরজি ও ফাইভজি সমর্থন করে। বিভিন্ন মোডে থাকা অবস্থায় ডেটা বিনিময়ের সময় এটি খুবই ভালোভাবে বিদ্যুৎ খরচ কমাতে পারে। এমনকি কোনো কারণ ছাড়াও অনেক সময় বিদ্যুৎ খরচ হয়, সেগুলোও কমিয়ে আনতে সক্ষম এটি।

বেলং ৫০০০ হলো এ ইন্ড্রাস্টির প্রথম চিপসেট যেটি দ্বারা ৫-জি ডাউনলোড স্পিড আনা যায়। ৬ গিগাহার্টজের লো-ফ্রিকোয়েন্সি ব্যান্ডসের ক্ষেত্রেও এ চিপসেটের মাধ্যমে প্রতি সেকেন্ডে ৪.৬ গিগাবাইট পর্যন্ত ডাউনলোড স্পিড পাওয়া যায়।

এছাড়াও উচ্চ ফ্রিকোয়েন্সির মিলিমিটার (এমএম) ওয়েভ স্পেকট্রামের ক্ষেত্রে বেলং ৫০০০ চিপসেটে সেকেন্ড প্রতি ৬.৫ গিগাবাইট পর্যন্ত ডাউনলোড স্পিড পাওয়া যায়। যা বাজারে থাকা ফোরজি এলটিই এর সর্বোচ্চ ডাউনলোড স্পিডের থেকে ১০ গুণ বেশি।

গত ২৪ জানুয়ারি ৫-জি চিপসেট ও ডিভাইসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের (সিবিজি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রিচার্ড ইয়ালসু বলেন, ২০১৮ সালে হুয়াওয়ের কনজ্যুমার গ্রুপের মোট বিক্রির পরিমাণ দাঁড়িয়েছিল ৫২০০ কোটি মার্কিন ডলার। যা এ ব্যবসার ক্ষেত্রে বছরান্তের অনেক ভালো বৃদ্ধি। সিবিজির বিক্রির মধ্যে স্মার্টফোন, পিসি, ট্যাবলেট ও ওয়েরেবলস রয়েছে।

বলা হচ্ছে, শক্তিশালী নতুন চিপসেট এবং ডিভাইস, স্মার্টফোন ব্যবসায় খুব ভালো পারফরমেন্সের খবর, এসবের জন্য ৫-জি ব্যবসার প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকবে হুয়াওয়ে। ব্র্যান্ডটির ভাঁজ করা ৫-জি সমর্থিত স্মার্টফোন এ ব্যবসায় সবার থেকে এগিয়ে থাকবে।

৫-জি সমর্থিত ভাঁজকৃত স্মার্টফোনের জন্য হুয়াওয়ের কোন সিরিজটি প্রাধান্য পাচ্ছে? এমন প্রশ্নে কিছু অনুমান চলে আসে। স্মার্টফোন প্রযুক্তিতে উৎপাদন খরচ বিবেচনায় জোরালোভাবে বলা যায়, পি-৩০ সিরিজটি ৫-জি সমর্থিত ভাঁজকৃত স্মার্টফোনের সিরিজ হতে পারে।

পি-৩০ নিয়ে ইতোমধ্যেই কৌতূহল উদ্দীপক খবর ছড়িয়ে পড়েছে। বলা হচ্ছে, যেকোনো মূহূর্তে বাজারে এ সিরিজটি ছাড়া হতে পারে। এমনকি ইন্টারনেটে পি-৩০ এর ছবিও ফাঁস হয়েছে! কিন্তু ফাঁস হওয়া মডেলটি দেখতে মোটেও ভাঁজ ফোনের মতো নয়। তবে সম্ভবত হুয়াওয়ে এ সিরিজ নিয়ে খুবই গোপনীয়তা রক্ষা করছে। আর এদিকে আগ্রহীরা হয়ে উঠছেন আরো উৎসুক।

অধিকাংশ স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মোবাইল বা প্রযুক্তি সম্পর্কিত বড় ইভেন্ট যেমন এমডব্লিউসি, সিইএস, আইএফএ-এর বাইরে তাদের পণ্যের ফ্ল্যাগশিপের আনুষ্ঠানিক সূচনার বিষয়টি চিন্তা করে। তবে এক্ষেত্রে হুয়াওয়ে এক ধরনের বিস্ময় তৈরি করেছে। কেননা তারা প্রতিযোগিতার ব্যাপারটি মাথায় রেখে আসন্ন মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে তাদের ৫-জি ফ্ল্যাগশিপের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে।