বিনোদন ডেস্ক::

বড় পর্দায় অভিষেক হয়ে গেল জনপ্রিয় গায়ক ও নাট্যাভিনেতা তাহসান খানের। এ ছবিতে তার নায়িকা কলকাতার সুদর্শনী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের।

তাহসান অভিনীত এটিই প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য কোনো চলচ্চিত্র। অন্যদিকে শ্রাবন্তী এর আগে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে অভিনয় করলেও ঢালিউডে এটিই তার প্রথম কাজ।

‘যদি একদিন’ নামে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে শুক্রবার। সারা দেশের সব সিনেপ্লেক্স ও ১৮টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে।

এই ছবির বিরামহীন প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন তাহসান খান। এবার ছবির প্রচার চালাতে নায়িকাও যোগ দিচ্ছেন নায়কের সঙ্গে। ‘যদি একদিন’র প্রচারে অংশ নিতে শুক্রবার সকাল ৭টার ফ্লাইটে ঢাকায় পৌঁছান শ্রাবন্তী।

গায়ক তাহসান খানের চলন-বলন, ব্যক্তিত্ব, রোমান্টিকতা, কথা ও স্টাইল- সব কিছুই মুগ্ধতার মাদকতায় টইটম্বুর। এমন একজন তরুণ কেন চলচ্চিত্র করছেন না? তাহসান-ভক্তদের দীর্ঘদিনের প্রশ্ন ছিল। তাহসান চলচ্চিত্রে আসুক, ছিল ভক্তদের চাওয়া। তাদের চাওয়া ফেলতে পারেননি তাহসান।

আজ থেকে তাহসান চলচ্চিত্র নায়ক হয়ে গেলেন। যেই সেই নায়িকার নায়ক নয়; টালিউড সেনসেশন শ্রাবন্তীকে প্রথম ছবিতে পেয়েছেন তাহসান। এ ছবির কয়েকটি গান ইতিমধ্যে ইউটিউবে ছাড়া হয়েছে। ওই সব গানের দৃশ্যায়ন ও দুজনের অভিনয় মন ছুঁয়েছে দর্শকদের।

এই ছবির সফলতা নিয়ে আশাবাদী তাহসান। প্রথম ছবির প্রচারে সাড়া ফেলেছেন এ নায়ক। নিজ হাতে পোস্টার লাগিয়েছেন। মাইকিং করেছেন। ছুটে বেড়িয়েছেন এদিক-ওদিক। নায়ক ছবির প্রচারে চেষ্টা চালিয়ে গেলেও ভিসা জটিলতায় আসতে পারেননি শ্রাবন্তী। শেষ পর্যন্ত ছবির মুক্তি উপলক্ষে আজ বাংলাদেশে আসতে পেরে আনন্দিত শ্রাবন্তী।

পাশাপাশি আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ছবিটি মুক্তি পাওয়ায় তৃপ্ত শ্রাবন্তী। তিনি বলেন, নারী দিবসে আমার ছবি মুক্তি পাওয়ায় বেশ ভালো লাগছে। হলে গিয়ে দর্শকদের সঙ্গে ছবিটি দেখব।

জয়া নিবেদিত বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন সাবেরী আলম, মাসুম বাশার, মিলি বাশার, নাজিবা, সুজাত শিমুল, আনন্দ খালেদ, রানী আহাদ, নীলাঞ্জনা নীলা, জিএম শহীদুল প্রমুখ।