ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন পাওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ড. কামাল হোসেন ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দীকি। স্বাধীন বিচার বিভাগের গুরুত্ব সবাইকে উপলব্ধি করার আহ্বান জানিয়েছেন ড. কামাল হোসেন। ১২ মার্চ সোমবার দুপুরে খালেদা জিয়া জামিন পাওয়ার পর এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন তিনি।

ড. কামাল বলেন, আজ হাইকোর্ট থেকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার জামিন মঞ্জুর হয়েছে। এই ধরনের মামলায় এটা নিয়মিত হওয়ার দরকার। যদিও এই মামলায় অর্ডার পেতে কয়েকদিন বিলম্বিত হয়েছে। আইনের নিরপেক্ষ প্রয়োগ করে স্বাধীন বিচার বিভাগ। স্বাধীন বিচার বিভাগের গুরুত্ব সকলকে উপলব্ধি করতে হবে। ফলে দেশ ও জনগন উপকৃত হবে।

খালেদা জিয়া কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপীল দায়ের পর গত ২৭ ফেব্রুয়ারি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খালেদা জিয়ার আইনজীবী আবদুর রেজাক খান মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বার যান। তারা এ ব্যাপারে তাঁর কাছে পরামর্শ ও সহযোগিতা চাইলে রায় পড়ে পরামর্শ দেওয়ার কথাও বলেন।

অপরদিকে, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী এক বিবৃতিতে বলেন, ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় মহামান্য হাইকোর্ট বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন প্রদান করায় স্বস্তি প্রকাশ করেছি। একই সঙ্গে বেগম খালেদা জিয়া ও উচ্চ আদালতে আমি অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

‘বেগম জিয়াকে এই জামিন প্রদানের মাধ্যমে উচ্চ আদালতের প্রতি জনমনে আস্থা বৃদ্ধি পাবে বলে আমি মনে করি।’

গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান। এরপর পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কারাগারকে বিশেষ কারাগার ঘোষণা দিয়ে তাকে সেখানে বন্দি রাখা হয়েছে।