কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি::

ভুরুঙ্গামারীতে দীর্ঘ ২৩ বছর পর জমির দখল বুঝিয়ে দিল আদালত। জানা গেছে, উপজেলার জয়মনিরহাট ইউপির শিংঝাড় গ্রামের মৃত সোনাউল্লাহ তার পোষ্য পুত্র আব্দুল করিম (কিনা)এর নামে ১৪একর ২২ শতক জমি রেজিষ্ট্রি প্রদান করে।

অপরদিকে, সোনাউল্লাহর মৃত্যুর পর বাবর আলীর পুত্র ইমান আলীগং ঐ জমি বেদখল করে নেয়।

এদিকে আব্দুল করিম (কিনা)র পুত্র আকবর আলীগং জমি উদ্ধারে আদালতে মামলা দায়ের করে। দীর্ঘ ২৩ বছর মামলা চলার উক্ত ইমান আলীগংকে বেদখলকৃত জমির দখল ছেড়ে দেয়ার নির্দেশ দেয়া সত্বেও জমির দখল ছেড়ে না দেয়ায় গত শনিবার কুড়িগ্রাম জেলা জজ কোর্টের সিভিল কোর্ট কমিশনার মোঃ এনামুল হক এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, পুলিশ প্রশাসনের উপস্থিতিতে আকবর আলীর পিতার বেদখলকৃত ১৪ একর ২২ শতক জমির দখল বুঝিয়ে দেয়।

এ বিষয়ে জজ কোর্টের কমিনার এনামুল হক জানান, বাদী আকবর আলীর পৈত্রিক জমি দীর্ঘদিন থেকে বেদখল থাকায় আদালতের রায় কার্যকর করতে তাদের জমির দখল বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। এদিকে মামলার বাদী আকবর আলী জানান, জমি বেদখলকারী ইমান আলী গং আকবর আলীসহ তার পরিবারের লোকজনকে মিথ্যা মামলায় হয়রানীসহ বিভিন্ন হুমকি প্রদর্শন করে আসছে।