ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: আওয়ামী লীগের সময় শেষ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে কৃষক দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে এ সভায় খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি আয়োজিত সমাবেশ থেকে জনগণ সরকার ও আওয়ামী লীগকে বার্তা দিয়েছে যে, সরকার আর বেশিদিন ক্ষমতায় থাকতে পারবে না, তাদের দিন শেষ। সুতরাং আওয়ামী লীগের সময় শেষ হয়ে গেছে। ২০১৪ সাল থেকে তারা (আওয়ামী লীগ) গায়ের জোরে ক্ষমতায় রয়েছে, জনগণ সেটা এবার আর হতে দেবে না।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন জনগণ আর শেখ হাসিনার অধিনে হতে দেব না- সমাবেশ থেকে জনগণ এই বার্তাও সরকারকে দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে। আর এজন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সহায়ক সরকারের রূপরেখা যথাসময় ঘোষণা করবেন। আর সেই রূপরেখা নিয়ে আমরা জনগণের কাছে যাবো।

প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ প্রসঙ্গে খন্দকার মোশাররফ বলেন, সরকার যখন বুঝতে পেয়েছে, ১৫৪ জন সংসদ সদস্যকে অবৈধ ঘোষণা করা হতে পারে। ওই সময় প্রধান বিচারপতিকে জোর করে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। রাষ্ট্রের তিনটি স্তম্ভ ধ্বংস করে অলিখিত বাকশাল প্রতিষ্ঠিত করে আওয়ামী লীগ দেশে জঙ্গল আইন প্রতিষ্ঠিত করতে চাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদু’র সভাপতিত্বে সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন। সূত্র : আমাদের সময়