ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, দেশে আজ গভীর সঙ্কট। আর মাত্র সাড়ে তিন মাস পরে নির্বাচন। অথচ গতকালও সারাদেশে সাড়ে তিন শত বিরোধী নেতাকর্মী গ্রেপ্তার হয়েছে। ঈদের পর থেকে আজ সেপ্টেম্বরের ২২ তারিখ পর্যন্ত অন্তত ২২ হাজার বিরোধী নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলা হয়েছে কতোজনের নামে তার হিসাব নেই।

তিনি বলেন, আমি খালেদা জিয়াসহ সকল নেতার মুক্তির দাবি করছি। এই মুক্তি দিতে হবে। যদি কেউ পুলিশ দিয়ে, গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকতে চায় তাদের উদ্দেশ্যে বলব- আমরা এতো জোরে আওয়াজ তুলব আপনারা কথাই বলতে পারবেন না। মান্না বলেন, আজকে আমরা যে দাবি করছি আওয়ামী লীগ ও ১৪ দল ছাড়া সকল দল সেই দাবি করছে। সুতরাং ঐক্য তো হয়েই গেছে।
আমরা এখন সারাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ঐক্যের বার্তা ছড়িয়ে দেব। তিনি আরো বলেন, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি নির্বাচন দিতে হবে। যারা এই সরকারে আসবেন তারা কোন নির্বাচন করতে পারবেন না।

ভোটের আগের দিন, ভোটের দিন ও ভোটের পরের দিন সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। তিনি বলেন, ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারি নির্বাচনে রাস্তার মানুষ ঘরে ছিল। আমরা যতোই চেষ্টা করেছি মানুষ রাস্তায় নামেননি। এবার এমন ব্যবস্থা করতে হবে যাতে ঘরের মানুষ রাস্তায় নামবে। আর রাস্তার সকল দুর্বৃত্তরা ঘরে যাবে। সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ওরা একটা গোষ্ঠী। ওরা চোর, ডাকাত। ওরা ভোট চুরি করে, শেয়ার বাজার লুট করে। আগামী নির্বাচন যেন ৫ই জানুয়ারির মতো ফোর টুয়েন্টি মার্কা নির্বাচন না হয় তার দাবিতে বাম ফ্রন্ট মিছিল দিয়েছে। তাদের লাঠিপেটা করা হয়েছে।