স্পোর্টস ডেস্ক::

শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে রেকর্ড গড়ে ৪-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। যদিও এ ম্যাচটি বাংলাদেশের যুবাদের জন্য নিয়মরক্ষার ছিল। কারণ পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম চার ম্যাচ শেষেই সিরিজ নিশ্চিত করেছিল তারা।

জানা গেছে, প্রায় ৯ বছর আগে নিউজিল্যান্ডের নেপিয়ারে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৩০৭ রান করেছিল বাংলাদেশ। এতদিন বাংলাদেশের যুব ক্রিকেটে এটাই ছিলো সর্বোচ্চ সংগ্রহ। তবে আজ রবিবার সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে নেমে করেছে ৩১৬ রান। যা বাংলাদেশের যুব ক্রিকেটে এটিই এখন সর্বোচ্চ সংগ্রহ।

আজ রবিবার লিঙ্কন বার্ট-সাটক্লিফে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ অধিনায়ক আকবর আলি। অধিনায়কের সিদ্ধান্তটা সঠিক ছিল তার প্রমাণ মেলে ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং নৈপুন্যে।

ওপেনিং জুটিতেই ১২০ রান তুলে ফেলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার তানজিদ হাসান ও পারভেজ হোসেন ইমন। যদিও ১৫তম ওভারে ওপেনিং জুটি ভাঙ্গেন কিউই বোলার ডিকশন। এর পরও সকলের সম্মিলিত অবদানে বাংলাদেশের সংগ্রহ পৌঁছায় ৩১৬ রানে।

আউট হওয়ার তানজিদের ব্যাট থেকে আসে ৭১ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। তিনি তার ইনিংসটি ১১টি চার ও ২টি ছক্কায় সাজান। তানজিদ ছাড়া আর কেউ ফিফটি না পেলেও ৪৮ রানে আটকেছেন তিনজন। তানজিদের উদ্বোধনী সঙ্গী পারভেজ হোসেন ইমন ৫৫ বলে ৪৮, মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান শাহাদাত হোসেন ৬৯ বলে ৪৮ এবং অভিষেক দাস ৩৬ বলে করেন ৪৮ রান। এ চারজনের ব্যাটে ভর করে রেকর্ড গড়া সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।

জবাবে ৩১৭ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শুন্য রানেই প্রথম উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। এরপরে বাংলাদেশের শরিফুল ইসলামের বোলিং তোপে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে কিউইরা। যদিও এমন চাপে লড়াই করে যান ফের্গাস লেলমান, জক ম্যাকেঞ্জি ও অধিনায়ক জেসে টাসকফ (৩৯)। আউট হওয়ার আগে লেলমান ৫৬, ম্যাকেঞ্জি ৪৭ ও টাসকফ ৩৯ করেন। তাদের অর্জন শুধুমাত্র ব্যবধান কমাতে পেরেছে।