লাইফস্টাইল ডেস্ক:: পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। বৈশাখের প্রথম প্রহরে পান্তা, ইলিশ আর নানা পদের ভর্তা না খেলে কি বৈশাখ জমে। বৈশাখের খাবারে মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ভর্তা সবারই প্রিয়। তাই পান্তা ভাতের সঙ্গে কয়েক পদের ভর্তা দিয়ে করতে পারেন অতিথি আপ্যায়ন।

আসুন দেখে নেই পহেলা বৈশাখে মুখরোচকর ভর্তার ৭ পদ।

কালিজিরা ভর্তা

কালিজিরার আধা কাপ, রসুনের কোয়া ২ টেবিল-চামচ, কাঁচামরিচ ৮টি, পেঁয়াজ কুঁচি ৪ টেবিল-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, সরিষার তেল ২ টেবিল-চামচ।

রসুন, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ কাঠখোলায় টেলে নিতে হবে। তেল বাদে সব উপকরণ পাটায় বেটে তেল দিয়ে মেখে ভর্তা করুন।

বেগুন ভর্তা উপকরণ

বড় গোলবেগুন ১টি, সরিষা বাটা ১ চা চামচ, নারকেল মিহি বাটা ২ চা চামচ, টমেটো কুঁচি১ কাপ, পেঁয়াজ কুঁচি আধা কাপ, মেথি আধা কাপ, রাধুনী সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ কুঁচি ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালী

বেগুনের গায়ে তেল মাখিয়ে পুড়িয়ে নিন। এবার পানিতে রেখে খোসা ছাড়িয়ে মেখে নিন। কড়াইয়ে তেল দিয়ে মেথি ফোড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুঁচি দিন। পেঁয়াজ একটু নরম হলে টমেটো সরিষা, নারকেল, কাঁচামরিচ ও লবণ দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে বেগুন দিন। কড়াইয়ের তলা ছেড়ে এলে এবং একটু আঠালো হলে নামিয়ে নিতে হবে।

আলু ভর্তা

আলু আধা কেজি সিদ্ধ করে চটকে নিন। এবার পাত্রে ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে শুকনা মরিচ ভেজে পেঁয়াজ কুঁচি দিন। পেঁয়াজ বাদামী রং হলে পেঁয়াজ মরিচ লবণ দিয়ে চটকে আলু দিন এবার ধনেপাতা কুঁচি দিয়ে মেখে ভর্তা বানিয়ে নিন।

ছুরি শুঁটকি ভর্তা উপকরণ

ছুরি শুঁটকি ছোট করে কাটা আধা কাপ, পেঁয়াজ কুঁচি ২ কাপ, শুকনা মরিচের গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো, চিনি আধা চা চামচ, লেবুর রস ১ চা চামচ, তেল আধা কাপ, আদা বাটা আধা চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, তেজপাতা ১টি, কাঁচামরিচ চার টুকরা করে কাটা ৬টি।

প্রণালী

শুঁটকি ভালো করে ধুয়ে সেদ্ধ করে বেটে নিতে হবে। তেল গরম করে আদা-রসুন দিয়ে ভালো করে ভুনে শুঁটকি দিয়ে ভুনতে হবে। হলুদ, ধনে, মরিচের গুঁড়া, তেজপাতা, লবণ দিয়ে মাঝারি আঁচে ৮-১০ মিনিট ভুনে পেঁয়াজ দিয়ে ভুনতে হবে। পেঁয়াজ নরম হয়ে এলে চিনি, লেবুর রস, কাঁচামরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নামাতে হবে।

ধনেপাতার চাটনি উপকরণ

টাটকা ধনেপাতা বড় ২ আঁটি, রসুন ২ কোয়া, তেঁতুল ১ টেবিল চামচ। কাঁচামরিচ ১টি, চিনি, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালী

ধনেপাতার কচি ডগা ও পাতা বেছে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। ধনেপাতা, রসুন, কাঁচামরিচ, তেঁতুল, লবণ ও চিনি সব একসঙ্গে মিশিয়ে মিহি করে বেটে নিন। সামান্য ঝাল, মিষ্টি ও টকটক স্বাদ হবে।

সরিষা ভর্তা উপরকণ

লাল সরিষা ৪ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ ১টি, লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালী

সরিষা ভালো করে বেছে ধুয়ে কাঁচামরিচ এবং লবণ দিয়ে শিলপাটায় বেটে নিন।

টমেটোর চাটনি উপকরণ

দুটি বড় সাইজের টমেটো (কিউব করে কাটা), আখের গুঁড় চার টেবিল চামচ, সাদা সিরকা দুই টেবিল চামচ, আস্ত জিরা ১/৪ চা চামচ, তেজপাতা দুটি, শুকনা মরিচের খাকি এক চা চামচ, চিনি তিন টেবিল চামচ, সরিষার তেল দুই টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণ মত।

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে নিন। এরপর গরম তেলে আস্ত জিরা, তেজপাতা ও শুকনা মরিচের খাকি দিয়ে দিন। মাঝারি আঁচে এগুলো বাদামি করে ভেজে নিন। এরপর এর মধ্যে টমেটোগুলো দিয়ে দিন। টমেটোগুলো ভালো করে মসলার সঙ্গে মিশিয়ে নিন এবং পাঁচ মিনিট রান্না করুন। এরপর এর মধ্যে গুড়, চিনি ও হালকা একটু লবণ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ঢাকনা দিয়ে ঢেকে সাত মিনিট রান্না করুন। এরপর ঢাকনা তুলে আর একটু নেড়ে এর মধ্যে দিয়ে দিন সিরকা। সিরকার সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর ঢেকে চুলায় উচ্চ তাপে আরো তিন মিনিট রান্না করুন। এরপর চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন টক ঝাল মিষ্টি টমেটোর চাটনি।