লাইফস্টাইল ডেস্ক:: ঘরের তৈরি খাবার শিশুদের জন্য সবচেয়ে ভালো। বাইরের কিনে আনা খাবার শিশুদের স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্নক ক্ষতির কারণ হতে পারে।জানেন কী, বাইরের খাবার খেয়ে আপনার শিশুর বৃদ্ধি যেমন ব্যাহত হয় তেমনি সার্বিকভাবে আপনার শিশুর স্বাস্থ্যকেও প্রভাবিত করে। তাই শিশুতে বাইরের খাবার খাওয়াবেন না।

আসুন জেনে নেই যেসব খাবার শিশুদের খাওয়াবেন না।

প্রিজারভেটিভযুক্ত খাবার

সব ধরণের বেকড খাবার, ভাজাপোড়া, চিপস ও প্যাস্ট্রির মধ্যে রাসায়নিক থাকে এবং শিশুরা এইসব খাবার খেতে ভালোবাসে। এই ধরনের খাবারে নানা রকম প্রিজারভেটিভ থাকে, যেমন: সালফাইট, সোডিয়াম বেনজয়েট, নাইট্রেট ও পটাশিয়াম সরবেট ইত্যাদি। এইসব প্রিজারভেটিভ শিশুর কিডনি ও লিভারের ক্ষতি করা ছাড়াও এলার্জি এবং বমির জন্য দায়ী।

কৃত্রিম সুইটেনার

কৃত্রিম সুইটেনারযুক্ত খাবারও শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য খুব ক্ষতিকর। সাধারণভাবে মনে করা হয়ে থাকে যে এইসব প্রাকৃতিক সুইটেনার খেলে ওজন কমবে ও এগুলো শর্করার স্বাস্থ্যসম্মত বিকল্প। কিন্তু আদতে এইসব খাবার খেলে মাথাঘোরা, মাথাব্যথা, অন্ধত্ব, স্মৃতি লোপ পাওয়া ও ক্লান্তিতে ভোগার মতো লক্ষণগুলো দেখা যায়।

সোডিয়াম নাইট্রেট

এই রাসায়নিক উপাদানটি হ্যাম, বেকন ও হট ডগের সাথে যোগ করা হয়, যা খাবারে লালচে আভা দেয়। এইসব খাবার নিয়মিত খেলে মাথা যন্ত্রণা হবার পাশাপাশ মাথা ঝিমঝিম করে, বমি হয় এবং গা গোলায়।

রঙচঙে খাবার

রঙচঙে খাবার সবসময়ে শিশুদের প্রলুব্ধ করে, কিন্তু এটা তাদের ক্ষেত্রে মারাত্মক ক্ষতিকারক। বেকড জিনিস, সফট পানীয় ও ক্যান্ডির মধ্যে নীল রঙ ও সাইট্রাস লাল পাওয়া যায়, যা থেকে ক্যানসার হতে পারে।

শিশুর স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য যতটা সম্ভব তরতাজা খাবার খাওয়ানোর চেষ্টা করুন।