লাইফস্টাইল ডেস্ক:: আমাদের রক্ত থেকে ক্ষতিকর পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে লিভার। যখন শরীরের সুগারের মাত্রা কমে যায় তখন সংরক্ষিত চিনিকে (সুগার) ব্যবহার উপযোগী করে তোলে। পিত্ত রস উৎপন্ন করে যা চর্বি হজমের জন্য প্রয়োজনীয়। হিমোগ্লোবিন এর পাশাপাশি ইনসুলিন এবং অন্যান্য হরমোন ভাঙতে সাহায্য করে। পুরাতন লাল রক্ত কণিকাকে ধ্বংস করে। শরীরের এতসব গুরুত্বপূর্ণ কাজের সাথে জড়িত বলেই লিভারের রোগ হওয়ার প্রবণতাও বেশি থাকে। কিছু খাবার লিভারের কাজের উন্নতিতে সাহায্য করে।

টমেটোতেও প্রচুর পরিমাণে গ্লুটাথায়ন থাকে যা একটি চমৎকার ডিটক্সিফায়ার। এছাড়াও টমেটোতে লাইকোপিন থাকে বলে ব্রেস্ট ক্যান্সার, স্কিন ক্যান্সার ও ফুসফুসের ক্যান্সার থেকে সুরক্ষা দেয়।

গাজর গ্লুটাথায়ন নামক প্রোটিনে সমৃদ্ধ যা লিভারকে ডিটক্সিফাই হতে সাহায্য করে। বীট ও গাজর উভয়টিতেই উচ্চ মাত্রার উদ্ভিজ ফ্লাভোনয়েড এবং বিটা ক্যারোটিন থাকে। বীট ও গাজর খাওয়া যকৃতের কাজের উন্নতিতে সাহায্য করে।