ডা. তানজিয়া নাহার তিনা: নাগরিক এই কর্মব্যস্ত জীবনে একটুখানি সময় বাঁচাতে কিংবা অবহেলা বশত অনেকেই সকালের নাস্তা না করে কিংবা অল্প করে বেরিয়ে পড়েন ঘর থেকে। বলা হয়ে থাকে, সকালের নাস্তা দিনের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাবার। যারা বিভিন্ন কারণে সকালের নাস্তা এড়িয়ে যান, তাদের নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। আর তাই এটি মোটেও এড়িয়ে যাওয়া উচিত নয়।

অনেকে ওজন ঝরাতে কিংবা ফিট থাকতে ডায়েট করে থাকেন। আর তাই খাওয়ার তালিকা থেকে সকালের নাস্তাকে কমিয়ে ফেলেন। এই প্রবণতা থেকে তৈরি হয়ে থাকে বিভিন্ন মারাত্মক শারীরিক ক্ষতি। যেমন: ওজন বৃদ্ধি: ওজন কমাতে সকালের নাস্তা বাদ দিলে উল্টো ওজন বেড়ে যাবে। কারণ সকালে নাস্তা না করলে খিদে বেড়ে যায়। আর তাতে দুপুরের খাবারে অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার প্রবণতা থাকে। তাই এতে ওজন উল্টো বেড়ে যায়।

হৃদরোগ: সকালের স্বাস্থ্যসম্মত নাস্তা বাদ দিলে উচ্চরক্তচাপ, স্থূলতা, রক্তে অতিরিক্ত সুগার, অতিরিক্ত কোলেস্টেরল ইত্যাদির প্রবণতা বেড়ে যায়। আর এগুলোর সম্মিলিত প্রতিক্রিয়ায় বেড়ে যায় হৃদরোগের ঝুঁকি।

ডায়াবেটিস: সকালের নাস্তা এড়িয়ে চললে টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায় অনেকাংশে। কারণ এতে শরীরে ইনসুলিনের ভারসাম্য নষ্ট হয় এবং হাই-ব্লাড সুগার বা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন অনেকেই।

অবসাদ: নাস্তা বাদ দেওয়ার ফলে মানুষ অবসাদগ্রস্ত বা ক্লান্ত হয়ে পড়ে। মেজাজ হয়ে যায় খিটখিটে। কমে আসে স্মৃতিশক্তি। তাই প্রতিদিন সকালে একটি স্বাস্থ্যসম্মত নাস্তা সকলের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজন।

লেখক: ত্বক, লেজার এন্ড এসথেটিক বিশেষজ্ঞ