বশির আহমেদ, বান্দরবান প্রতিনিধি::

লামা পৌরসভা সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এছাড়া মধুঝিরি এলাকায় পাহাড় ধসে ১ বৃদ্ধা নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে আরো ৫ জন। সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় সারাদেশের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। বৈরি আবহাওয়ার কারণে গাছপালা ভেঙ্গে বিদ্যুতের লাইনে পড়ায় কয়েক স্থানে খুঁটি পড়ে গিয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।

পানি বন্ধী হয়ে পড়েছে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ। নিহত ও আহত পরিবারের মাঝে ত্রাণ ও পূর্নবাসন মন্ত্রণালয়ের জিআর খাত থেকে ৩৫ হাজার টাকা নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে। উপজেলা সদরে ৪টি আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রিত ১৫০ পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাউল শনিবার (১৩ জুলাই) বিকেলে বিতরণ করা হয়।
ইতিমধ্যে পৌর এলাকার বন্যা প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন লামা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি, লামা পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাহেদ উদ্দিন, মিল্কি দাশ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. মজনুর রহমান, প্যানেল মেয়র, মোহাম্মদ হোসেন বাদশা, মো.রফিক কাউন্সিলর, সাইফুদ্দীন প্রমুখ।