মো. নাজমুল হোসেন, দোহার-নবাবগঞ্জ প্রতিনিধি॥ রাত নেই, দিন নেই দোহার-নবাবগঞ্জের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আপনারা যদি আগামীতেও আমাকে আপনাদের মূল্যবান ভোট দেন কথা দিচ্ছি উন্নয়নের জোয়ারে দোহার-নবাবগঞ্জের চেহারা পাল্টিয়ে দিবো।

রবিবার (১৩ মে) বিকালে ঢাকার নবাবগঞ্জের বারুয়াখালি ইউনিয়নের ছত্রপুর গ্রামে কর্মী সম্মেলন ও যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা-১ আসনের সাংসদ ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এ্যাড. সালমা ইসলাম এমপি এসব কথা বলেন।

সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসার ফলে টেন্ডারবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, চাঁদাবাজি সহ নানা অপরাধ মূলক কর্মকান্ড কমে গেছে। এর ফলে এই দুই উপজেলায় এখন শান্তির বাতাস বইছে।

সালমা ইসলাম তাঁর চার বছরে কিছু উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে বলেন, আমি এই উপজেলায় ১০২টি উপসানালয়ে অনুদান, ৭২টি কার্পেটিং রাস্তা, ৩০ হাজার পরিবারে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ, পদ্মা ভাঙ্গন রোধে ২১৭ কোটি ৬২ লক্ষ টাকার বরাদ্দ (চলমান) সহ জিনজিরা থেকে দোহার-নবাবগঞ্জ পর্যন্ত রাস্তা প্রসস্ত করণে ৪৬৯ কোটি টাকার বরাদ্দ এনে দিয়েছি। এছাড়া আরো অনেক কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অনুষ্ঠানে মো. আতাহার মিয়ার সভাপতিত্বে বারুয়াখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রজ্জ্বব আলী মোল্লা ৫শত নেতাকর্মী নিয়ে জাতীয় পার্টির সাংসদ এ্যাড. সালমা ইসলামকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেণ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য খন্দকার নুরুল আনোয়ার বেলাল, ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ, উপজেলার যুগ্ন-আহব্বায়ক জাহাঙ্গীর চোকদার, মো. খলিলুর রহমান, উপদেষ্টা এ.কে.ম আব্দুল হালিম, নয়নশ্রী ইউপি চেয়ারম্যান মো. রিপন মোল্লা, রাকিব আহমেদ ওয়াসিম, মো. সালাম, সামসুল ইসলাম, মো. রুবেল, খলিল দেওয়ান, সাগর মন্ডল প্রমুখ।