ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: সুন্দরবনের আলোরকোল পর্যটন এলাকার আকাশে ওড়ানো একটি ড্রোন জব্দ করেছে বন বিভাগ। বিদেশি কয়েকজন পর্যটক ড্রোন উড়িয়ে বনের জীববৈচিত্র্যের দৃশ্যধারণের সময় বন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দেখতে পেয়ে সেটিকে জব্দ করেন। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ট্যুর অপারেটরের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছে বন বিভাগ।

পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. মাহমুদুল হাসান জানান, পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের আলোরকোল নামক এলাকায় মালটা থেকে আসা ১২ বিদেশি পর্যটক মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে ড্রোন উড়িয়ে বনের দৃশ্যধারণ করছিল। এ সময় দুবলা ফরেস্ট ক্যাম্পের সদস্যরা ড্রোনটি আকাশে উড়তে দেখে ঘটনাস্থল থেকে সেটিকে জব্দ করেন।

দুদিনের পাস নিয়ে সোমবার রাত ১২টার দিকে বনে প্রবেশ করে মালটার ১২ পর্যটক। ভ্রমণ শেষে বুধবার ফিরে এসে তাঁদের বন বিভাগের কাছে পাস জমা দেওয়ার কথা।

এদিকে, ড্রোন নিয়ে বিদেশি পর্যটকদের বনের ভেতর প্রবেশ ও ড্রোন জব্দের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ট্যুর অপারেটর এবং ‘বাংলার বন সুন্দরবন’ নামক লঞ্চের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় এই বন কর্মকর্তা।

মো. মাহমুদুল হাসান আরো বলেন, জব্দকৃত ড্রোনটি আলোরকোল থেকে বিভাগীয় বন কার্যালয়ে আনা হচ্ছে। বুধবার সন্ধ্যায় ড্রোনটি বাগেরহাট বন কার্যালয়ে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

এ ছাড়া পর্যটকদের বনের অভ্যন্তরে প্রবেশের ক্ষেত্রে ড্রোনসহ যেসব জিনিসপত্র-যন্ত্রপাতি ব্যবহার নিষিদ্ধ রয়েছে, সেগুলো বন বিভাগের পক্ষ থেকে ট্যুর অপারেটরগুলোকে আগে থেকে অবহিত করা রয়েছে।

বিদেশিদের বহনকারী লঞ্চটি আজ ফিরে আসার পর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য চাঁদপাই ও ঢাংমারী ফরেস্ট কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. মাহমুদুল হাসান।

তবে বিদেশিরা যাতে অহেতুক হয়রানির শিকার না হন, সেদিকেও গুরুত্ব দিচ্ছে বন বিভাগ।