মো. নাজমুল হোসেন, দোহার-নবাবগঞ্জ প্রতিনিধি॥ সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনে পাশ করতে হলে ভোটের প্রয়োজন, আর ভোটের জন্য অবশ্যই সবার ঘরে ঘরে যেতে হবে। সেজন্য সবার আগে ভোট চাইতে হলে অবশ্যই ভোটারদের মন জয় করে ভোট চাইতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) বিকালে নবাবগঞ্জ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সাথে মত বিনিময়কালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাত উন্নয়ন বিষয়ক উপদেষ্টা ও বেক্সিমকোর সহ-সভাপতি সালমান এফ রহমান এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, শুধুমাত্র আওয়ামীলীগের ভোটে পাশ করা যাবে না, পাশ করতে হলে সব দলের ভোটের প্রয়োজন। তাই বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন জনসাধারণের মাঝে তুলে ধরতে হবে।

বেক্সিমকোর সহ-সভাপতি জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমরা সবার কাছে যেতে পারি না, কিন্তু আপনাদের সাথে তৃণমূলের জনগণের বেশ সম্পর্ক রয়েছে। আপনারা সব সময় সবার বাড়িতে যান, আপনাদের সাথে সকলের ভালবাসা আমাদের থেকে অনেক বেশি। তাই আপনারা যদি দল মত নির্বিশেষে আমাকে সহায়তা করেণ তাহলে ইনশাআল্লাহ আমি বিজয়ী হবো। বিশ্ব বরেণ্য শিল্পপতি জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, সবার আগে মা বোনদের বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। কারণ তারা আমাদের ঘুমন্ত ভোট। যদি একবার শেখ হাসিনা সরকার ও আওয়ামী লীগের উন্নয়নের কথা তাদের কাছে তুলে ধরা হয় তাহলে তারা অবশ্যই বুঝবে এবং উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে নৌকায় ভোট দিবে।

উপদেষ্টা আরো বলেন, আগে আমি খোলা মেলা কারো কাছে ভোট চাইনি, তবে আমি সভানেত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে আসস্থ হয়েছি। যদি ঢাকা-১ আসনে আওয়ামী লীগের কোনো প্রার্থী হয় সেটা আমাকে দেওয়া হবে। তাই আপনারা আর ঘরে বসে না থেকে নৌকার জন্য কাজ করুণ। যেমন করেই হোক নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে। এসময় উপস্থিত নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা সালমান এফ রহমানকে আসস্থ করে বলেন, আপনি যদি জাতীয় নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হন তাহলে দল মত নির্বিশেষে আমরা সকলে নৌকার জন্য কাজ করবো।

নবাবগঞ্জ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম মুস্তফা শিমুর সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য আব্দুল বাতেন মিয়া, দোহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ স¤পাদক পরিরুজ্জামান তরুণ, নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, সাধারণ স¤পাদক জালাল উদ্দিন, দোহার উপজেলা সাধারণ স¤পাদক আলী আহসান খোকন শিকদার, সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনার কলি পুতুল, ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিল, দেওয়ান তুহিনুর রফমান তুহিন, ওয়াদুদ মিয়া, ড. অ্যাড. শাফিল উদ্দিন প্রমুখ।