রূপগঞ্জ প্রতিনিধি॥ দেবী দূর্গার আগমনে অশুভ শক্তির বিনাশ, আর জগতে শান্তি প্রতিষ্ঠা হবে, এমন বিশ্বাস নিয়ে প্রতিবারের মত এবারও রূপগঞ্জে ৪৫টি পূজা মন্ডপে চলছে দূর্গা পূজা উৎযাজনের ব্যাপক প্রস্তুতি। এরই মধ্যে উপজেলার পূজা মন্ডপগুলোতে প্রতিমা গড়ার কাজ শেষ হয়ে এখন চলছে প্রতিমায় রং-তুলির কাজ। ব্যস্ত সময় পার করছেন মৃৎ শিল্পিরা। আবার কোথাও কোথাও চলছে প্যান্ডেল তৈরীসহ সাজ সজ্জার কাজ। আগামী সোমবার শুরু হচ্ছে শারদীয় দূর্গা পূজা। পূজার সময় দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে রূপগঞ্জের এসব মন্ডপে দর্শনার্থীরা ছুটে আসেন।

এলাকার কয়েকটি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করে দেখা যায়, থানার প্রতিটি মন্ডপের প্রস্তুতি শেষ দিকে। মৃৎ শিল্পীরা খড়-মাটির কাজ শেষ করে রংয়ের কাজে এখন বস্ত সময় কাটাচ্ছেন। দিন-রাত পরিশ্রমে রং-তুলির আঁচড়ে প্রতিমার রূপ ফুঁটিয়ে তুলছেন। আগামী ১৫ অক্টোবর ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে দূর্গা পূজা। তারপর পর্যায়ত্রুমে ১৬ অক্টোবর সপ্তমী, ১৭ অক্টোবর অষ্টমী, ১৮ অক্টোবর নবমী ও ১৯ অক্টোবর দশমীর মধ্য দিে পূজা শেষ হবে। উপজেলার পূজা কমিটির সভাপতি গণেশ চন্দ্র পাল বলেন সরকারীভাবে আমাদের সহযোগিতা করেছে। দিয়েছে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা। এখানে সর্বস্তরের মানুষ আমরা মিলে মিশে একসাথে পূজা উযজাপন করে থাকি। ধর্ম যার যার আনন্দ সবার। কালী সার্বজনীন দূর্গা পূজা মন্ডপের সদস্য পলাশ কুমার দাস বলেন আমরা অতি উৎসব মুখর পরিবেশে দূগা পূজার প্রস্ততি নিয়েছি। এখানে সকল ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে আনন্দ উৎসব চলছে।

ভুলতা ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সেপেক্টর মোঃ রফিকুল হক বলেন, প্রতিটি পুজা মন্ডপে পুলিশ আনসার সার্বক্ষিনভাবে থাকবে। এসকল ধর্মীয় অনুষ্ঠানে কেউ কোন ধরনের উচ্ছশৃঙ্খা ঘটানোর চেষ্ঠা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এবার পূজা মন্ডপের নিরাপত্তার বেলায় শতভাগ নিশ্চয়াতা দিব।