শাহজাহান হেলোল, মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি::
ফরিদপুরের মধুখালীতে সারা দেশের ন্যায় ঘোন কুয়াশা ও প্রচন্ড শৈত্যপ্রবাহ উপেক্ষা করে উন্নয়নের গণতন্ত্র, শেখ হাসিার মূলমন্ত্র। শ্লোগানকে সামনে রেখে মধুখালী উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে তিনদিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার এক বিশাল শোভাযাত্রা বের করা হয়েছ।
১১ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দর সমন্বয়ে ঢাক-ঢোল, কাশি-বাঁশি বিভিন্ন সাজ্জে সজ্জিত হয়ে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক হয়ে শোভাযাত্রাটি মধুখালী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মেলা প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়।
পরে বেলা ১১টার পরে কেন্দ্রীয় ভাবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে উন্নয়ন মেলার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা।
ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি দেখার জন্য উপজেলার হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন।
মেলা উদ্বোধন শেষে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মেলার মঞ্চে ‘বঙ্গবন্ধুর উন্নয়ন দর্শন ও আজকের বাংলাদেশ’ বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহাদত হোসেন কবিরের সভাপতিত্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সরকারি আইনউদ্দিন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. নাজমুল হক। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. মনজুর হোসেন, পৌর মেয়র খন্দকার মোরশেদ রহমান লিমন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক বকু, সাংগঠনিক সম্পাদক পিকু আহসান হাসিব, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইকবাল হাসান, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ইসমাইল হোসেন, নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আজিজুল ইসলাম, উপজেলা প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, পৌর আওয়ামীলীগৈর সভাপতি হাজী মোহাম্মাদ আলী মিয়া, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. সোহরাব হোসেন, উপজেলা সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা অধির কুমার বিশ্বাস প্রমুখ।
সভায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী এবং উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
তিনদিন ব্যাপী মেলায় বিভিন্ন দপ্তরের ৪৫টি স্টল রয়েছে। এছাড়া তিনদিন ব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যে কুইজ প্রতিযোগিতা, লাঠি খেলা প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, কবিতা পাঠের আসর, ‘ঢাকা অ্যাটাক’ বা ‘আয়না বাজি’ চলচ্চিত্র প্রদর্শনী রুপকল্প-২০২১ ও ২০৪১’ বিষয়ক ও ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ এবং উন্নয়নের অগ্রযাত্রা’ বিষয়ক আলোচনা সভা এবং মেলার শেষ দিনে পুরস্কার বিতরণ।