এস.এম.সাঈদুর রহমান, খুলনা ব্যুরো॥

খুলনা মহানগরীর খালিশপুর এলাকায় একটি নির্মানাধীন বহুতল বিশিষ্ট ভবন থেকে পড়ে তিন শ্রমিক নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে স্থানীয় নৌবাহিনীর নিয়ন্ত্রণাধীন (বানৌজা তীতুমীরে) এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছে- মো. মহিদুল ইসলামের পুত্র মো. সায়েম (২০), রহিম উদ্দিনের পুত্র মো. রমজান (৩৫) ও নূর ইসলামের পুত্র মো. নূর আলম (১৮)। নিহত নির্মান শ্রমিকদের দেশের বাড়ি নীলফামারি জেলার জলডাঙ্গা উপজেলার উত্তর দেশিবাড়ী গ্রামে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বানৌজা তীতুমীর কম্পাউন্ডের ১০ তলা বিশিষ্ট ভবনে কাজ করছিল নির্মান শ্রমিকরা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ওয়াহেদ কস্ট্রাকশন লিমিটেড’র অধীনে ছিল তারা। নবম তলায় কাজ করার সময় অসাবধানতাবশত: এ তিন শ্রমিক নিচে পড়ে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

কেএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং) সোনালী সেন বলেন, বানৌজা তীতুমীর কম্পাউন্ডের ১০ তলা বিশিষ্ট ভবনের নবম তলায় প্লাস্টারের কাজ করার সময় বাসের ভারা ভেঙ্গে নিচে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই একজন এবং খুমেক হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও দু’জন মারা যায়। এটিকে প্রাথমিকভাবে দুর্ঘটনা বলেই উল্লেখ করেন তিনি। এ বিষয়ে অপমৃত্যু মামলার পর তদন্ত করে দেখা হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ওয়াহেদ কস্ট্রাকশন লিমিটেড’র প্রকৌশলী শহীদুল ইসলাম সজিব বলেন, কাজ চলা অবস্থায় মাচা ভেঙ্গে হঠাৎ করে তারা পড়ে যায়। নিচে পড়ে একজন স্পটেই মারা যায় এবং বাকি দু’জন হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যায়।