আল-ইমরান, কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ মহেশপুরের পর এবার কোটচাঁদপুরে ঝিনাইদহ-৩ আসনের আ:লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক এমপি পারভীন তালুকদার মায়ার কর্মী সভার অনুষ্ঠানের বিরিয়ানি খেয়ে ৩ শতধিক নেতা কর্মী অসুস্থ্য হয়ে পড়েছেন। অসুস্থ্য ২’শ ৫৮ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ খাবার খেয়ে খোদ প্রার্থী ও তার স্বামী শিল্পপতি মোহাম্মদ ফারুক তালুকদার অসুস্থ্য হয়ে পড়েছেন। তারা দু’জনই মহেশপুরের জিন্নানগরের নিজ বাস ভবনের ডাক্তারি চিকিৎসা নিচ্ছেন। কোটচাঁদপুর উপজেলা আ:লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ন কবির লতা সাংবাদিকদের জানান, ১৭ মে ছিল আ:লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। এ দিন সম্ভাব্য রোজা হবে এমন ধরণায় ১৬ মে বুধবার নেতা কর্মীরা দিনটি উদযাপন করতে শহরের আনন্দ র‌্যালি বের করে। মেইন বাস স্ট্যান্ডে তরকারি হাটের কাছে কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন প্রার্থীর স্বামী শিল্পপতি মোহাম্মদ ফারুক তালুকদার। মুল আলোচক হিসাবে বক্তৃতা করেন সংসদ সদস্য প্রার্থী পারভীন তালুকদার মায়া। লতা আরো জানান, কর্মসূচী শেষ করে প্রত্যেক নেতা কর্মীসহ উপস্থিত জন সাধারণের হাতে এক প্যাকেট বিরিয়ানি ও বোতল জাত পানি দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ করা হয়। রাত সাড়ে ৯ টা থেকে গ্রাম অঞ্চল ও শহরের থেকে নেতা কর্মী ও সমর্থকরা অসুস্থ্য হয়ে পড়লে দলে দলে হাসপাতালে আসতে থাকে। অসুস্থ্যদের প্রায় শত ভাগই পেট ব্যথা, বমি ও পাতলা পায়খানায় আক্রান্ত হন।
হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক নাজমুস সাকিব জানান, বিষ ক্রিয়ার কারণে এমনটি হয়েছে। এদিকে হাসপাতালে দলে দলে রোগী এসে জড় হতে থাকলে ডাক্তার নার্স সহ স্বাস্থ্য সহকারীদের পরিস্থীতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে হয়। হাসপাতালে কর্তব্যরত মাত্র তিন জন ডাক্তার এ বিপুল সংখ্যক রোগীকে চিকিৎসা দিয়েছেন।
এ ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজের সমর্থকরা কালো পতাকা হাতে মানব বন্ধন করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল সহ উপজেলা আ:লীগের নেতৃবৃন্দ অসুস্থ্যদের দেখতে হাসপাতালে যান।
দলীয় একটি সূত্র জনায় বর্তমান এমপি সমর্থকরা কালো ব্যাচ তুলে মানব বন্ধন করে কি প্রতিবাদ করলেন তা অনুমেয় নয়। মহেশপুর উপজেলা আ:লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়্যাম্যান ময়জদ্দীন হামীদ বলেন, খাবারের বিষ ক্রিয়ার বিষয়টি স্বাভাবিক নয়। এটা মানব সৃষ্ট। তার ধারনা পারভীন তালুকদারকে রাজনৈতিক ভাবে বিপাকে ফেলার জন্য প্রতিপক্ষ একটি দুষ্ট চক্র পরিকল্পিত ভাবে খাবারে বিষ মিশিয়েছে।
গত মঙ্গলবার মহেশপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে পারভীন তালুকদারের অন্য এক কর্মী সভায় বিরিয়ানি খেয়েও শতাধিক লোক অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এর মধ্যে মারাত্মক অসুস্থ্য ৬৮ জনকে মহেশপুর হাসপালে ভর্তি করা হয়।
এই বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ সাংবাদিকদের বলেন, বিষয়টি অবশ্যই ঘৃর্ণতম। এই কাজে যারাই জড়িত থাকুক না কেন সুষ্টু তদন্ত পূর্বক ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।