ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে অভিযোগ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটের প্রকাশিত ফলাফল বাতিল এবং পুনরায় পরীক্ষার দাবিতে উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট। এসময় ভেতরে ঢুকতে না দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ে উপাচার্য কার্যালয়ের গেট ভেঙে ঢোকার চেষ্টা করেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সেখানে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই পরিস্থিতিতে রোববার দুপুরে ঘ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশের প্রস্তুতি চলছে।

ব্যাপক হারে প্রশ্নপত্র ফাঁসের খবর প্রমাণসহ গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর বিভিন্ন মহল থেকে দাবি ওঠে এই পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় গ্রহনের জন্য। কিন্তু পরীক্ষা বাতিলের সম্ভাবনা নাকচ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান।

প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ নিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে উপাচার্য বলেছিলেন, ‘ঘ’ ইউনিটের প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে সেটা আমিও জানি। তবে সেটা সকাল দশটার পর আগের রাতে নয় কোনভাবেই।

তিনি আরও বলেছিলেন, শুক্রবার বেলা দুইটার আগে এক সাংবাদিকের মাধ্যমে আমি প্রথম শুনি যে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ শোনা যাচ্ছে। এর আগে আমার কাছে কেউ বলেনি, অভিযোগও করেনি। তাই আমরা মনে করছি এটা একটা অশুভ মহলের ষড়যন্ত্র। তাই পরীক্ষা বাতিল করে নতুন করে গ্রহণের কোন প্রশ্নই আসে না।

গত শুক্রবার সকাল ১০টা-১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ঘ ইউনিটের এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর এই ইউনিটের মোট ১ হাজার ৬১০টি আসনের বিপরীতে ৯৮ হাজার ৫৪ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন।

পরীক্ষা চলাকালীন অসদুপায় অবলম্বনের জন্য বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ১৩ জন এবং আগের রাতে দু’জনসহ মোট ১৫ জনকে আটক করা হয়। এর মধ্যে ১২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।