মোঃ ইসলাম হোসেন, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি::

সিরাজগঞ্জে ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ২৯টি দেশীয় অস্ত্রসহ দুই অস্ত্র ব্যাবসায়ীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ।

বুধবার গভীর রাতে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কাদাই এলাকা থেকে ১টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ১টি দেশীয় তৈরি এলজি অস্ত্র ও ১টি কার্তুজসহ ২ অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপারের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনে এতথ্য জানান পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ, ডিবি ওসি মোঃ ওহেদুজ্জামান প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও বিস্ফোরকদ্রব্য উদ্ধারে দেশব্যাপী বিশেষ অভিযান চলছে।

এরই অংশ হিসেবে বুধবার গভীর রাতে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কাদাই সিলভার ডেলপার্কের সামনে অবৈধ অস্ত্র বিক্রি হচ্ছে এমন তথ্য পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ।

এ সময় ১টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ১টি দেশীয় তৈরি এলজি অস্ত্র ও ১টি কার্তুজসহ পাবনা সদর থানার খয়ের বাগান বাজার এলাকার আব্দুল হেলাল খাঁর ছেলে মিজানুর রহমান মিজান (১৯) ও ভাওডাঙ্গা কালুরপাড়া এলাকার মৃত ইমান আলীর ছেলে মোঃ আব্দুল ওহাব (৩৫)। কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

পরে তাদের তথ্য মতে পাবনা জেলা পুলিশের সহযোগিতায় পাবনার সদর থানাধীন ভাওডাঙ্গা কালুরপাড়া এলাকার আব্দুল ওহাবের বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে ২টি চটের বস্তা থেকে ২৭টি দেশীয় তৈরি বন্দুক উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী আরও বলেন, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে বাণিজ্যিকভাবে অস্ত্র তৈরি করে বিক্রি করে আসছিল।

গ্রেফতারকৃত আব্দুল ওহাব ও মিজানুর রহমান বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে ১টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ১টি দেশীয় তৈরি এলজি অস্ত্র ও ১টি কার্তুজ সিরাজগঞ্জে নিয়ে আসে। তাদের কাছ থেকে অস্ত্র-গোলাবারুদ পার্শ্ববর্তী জেলার লোকজন দীর্ঘদিন ধরে পাবনা থেকে অস্ত্র ক্রয় করে নিয়ে যায়।