আন্তর্জাতিক ডেস্ক::

সৌদি আরব এবং ইরানের মধ্যকার চলমান উত্তেজনা নিরসনের ক্ষেত্রে মধ্যস্থতা করার জন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তেহরান এবং রিয়াদ সফর শুরু করতে যাচ্ছেন। এর অংশ হিসেবে তিনি শনিবার ইরানের রাজধানী তেহরানে পৌঁছবেন এবং সেখানে তিনি রাতযাপন করবেন।

তেহরান সফরের সময় তিনি প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানির সঙ্গে বৈঠক করবেন এবং এরপর রোববার তিনি সৌদি আরবের উদ্দেশে তেহরান ছাড়বেন। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের আসন্ন সফরের বিষয়টি বৃহস্পতিবার পাক পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ড. মুহাম্মদ ফয়সাল সাপ্তাহিক সংবাদ ব্রিফিংয়র সময় নিশ্চিত করেন।

এছাড়া, শুক্রবার পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডন পত্রিকা এ বিষয় একটি প্রতিবেদন করেছে। ইমরান খানের সফরের আগে পাকিস্তানের একজন শীর্ষপর্যায়র কূটনীতিক গোপনে তেহরান এবং রিয়াদ সফর করেছে বলেও পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানিয়ছে।

এদিকে, তুরস্কের গণমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ডকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তেহরান এবং রিয়াদের মধ্যে মধ্যস্থতা ব্যাপারে যে উদ্যোগ নিয়ছেন তাকে ইরান স্বাগত জানাই।

তিনি বলেন, সৌদি আরবের সাথে যে কোনো বিষয় আমরা আলোচনা করার জন্য খোলা মন নিয় বসে আছি, সৌদি আরব আমাদের প্রতিবেশী, আমরা সারা জীবন একসঙ্গে থাকতে চাই। আলোচনা ছাড়া আসলে আমাদের কারো সামনে কোনো বিকল্প নেই এবং আমরা সউদী আরবের সঙ্গে আলোচনার ব্যাপারে কখনোই মধ্যস্থতার প্রস্তাব নাকচ করিনি।