বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক::

বিনামূল্যে সকলের জন্য ডিজিটাল ম্যাপ ব্যবহারের সুবিধা প্রদানকারী প্ল্যাটফর্ম ‘ওপেন স্ট্রিট ম্যাপ’ এর একটি বার্ষিক আঞ্চলিক সম্মেলন হলো ‘স্টেট অব দ্য ম্যাপ এশিয়া’। প্রতিবছরের মতো এশিয়ার বিভিন্ন দেশ এই সম্মেলন আয়োজনের আগ্রহ প্রকাশ করলেও এবার আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে বাংলাদেশ।

রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (কেআইবি) সম্মেলন কেন্দ্রে আগামী ১ ও ২ নভেম্বর তারিখে ‘স্টেট অব দ্য ম্যাপ এশিয়া ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে দেশের ছাত্র, যুব সমাজ, প্রযুক্তিপ্রেমী, দেশের বিভিন্ন গুণী ব্যক্তিসহ সংশ্লিষ্ট উল্লেখযোগ্য বিদেশি অতিথিবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। এখন পর্যন্ত ভারত, নেপাল, শ্রীলংকা, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, যুক্তরাষ্ট্র সহ প্রায় ১৫টি দেশের সংশ্লিষ্ট অংশগ্রহণকারীগণ তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন। ফেসবুক, অ্যাপল, ম্যাপবক্স, গ্লোবাল লজিক, ম্যাপিলারি সহ এই খাতের সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি দেশীয় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা তাদের প্রতিনিধিত্ব ও সমর্থন নিশ্চিত করেছেন। ‘ওপেন স্ট্রিট ম্যাপ বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’ এই আয়োজনের দায়িত্বপ্রাপ্ত হিসেবে ভূমিকা পালন করছে।

দেশের মধ্যে আয়োজিত এই আন্তর্জাতিক সম্মেলন দেশের বড় অংশ যুব সমাজকে জিআইএস, ওপেনসোর্স প্রযুক্তির আধুনিকতম ধারার সাথে পরিচিত করার পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত হতে আগ্রহী করে তুলবে, যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য নেতৃত্বে এগিয়ে চলা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার আন্দোলন ও অগ্রযাত্রাকে বেগবান করায় অগ্রণী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে বলে আয়োজকরা আশাবাদী। একই সাথে একটি পরিকল্পিত, প্রযুক্তি নির্ভর, আধুনিক শহর হিসেবে ঢাকা শহরকে বিশ্বের অন্যতম ‘স্মার্ট সিটির’ তালিকায় অন্তর্ভুক্তিতেও এ সম্মেলন ভূমিকা পালন করবে।

দুই দিনব্যাপী এ আয়োজনে জিআইএস এবং মুক্ত সোর্স প্রযুক্তিখাতের নানা নতুন বিষয়বস্তু নিয়ে একক উপস্থাপনা, প্যানেল আলোচনা, ওয়ার্কশপ সহ প্রায় চল্লিশটিরও বেশি সেশন অনুষ্ঠিত হবে। আগ্রহীগণ https://stateofthemap.asia অথবা ফেসবুকে ‘স্টেট অব দ্য ম্যাপ এশিয়া’ পেজ থেকে নিবন্ধনের মাধ্যমে টিকিট সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। বর্তমানে কোনো মুক্ত সোর্স প্রকল্পে নিয়মিত অবদান রাখছেন এমন অংশগ্রহণকারীদের জন্য বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে।