রবিবার, ২৩ Jul ২০১৭ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

সারাদেশ - বরিশাল বিভাগ

পটুয়াখালীতে গাছ চাপায় দুই নারীর মৃত্যু

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: পটুয়াখালী সদর ও গলাচিপায় ঝড়ে ঘরের উপর ভেঙে পড়া গাছের চাপায় দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বজ্রপাতে এক নারী গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঝড়-বৃষ্টি শুরু হলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মৃতেরা হলেন- সদর উপজেলার ছোট‌বিঘাই ইউনিয়নের অফিসের হাট এলাকায় কুদ্দুস হাওলাদারের মেয়ে তান‌জিলা ও গলা‌চিপা উপজেলার আমখোলা গ্রামের বাসিন্দা সে‌লিমা বেগম। স্থানীয় সূত্র জানায়, সকালে ঝড়-বৃষ্টি শুরু হলে গাছ ভেঙে ঘরের উপর চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই ওই দুই নারীর মৃত্যু হয়। এদিকে, সদর উপ‌জেলার শা‌রিকখালী গ্রামে বজ্রপাতে সালমা বেগম নামে এক নারী গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ভ‌র্তি করা হয়েছে।

চরফ্যাশনে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, চরফ্যাশন॥ ভোলার চরফ্যাশনের দক্ষিণ আইচা থানার চরফারুকী গ্রামে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় কোহিনুর (২৫) নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। নিহত কোহিনুর উপজেলার চরফারুকী গ্রামের আ. কারিমের স্ত্রী। দক্ষিণ আইচা থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য আজ শুক্রবার সকালে ভোলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। দক্ষিণ আইচা থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক দবিরউদ্দিন জানান, নিহতের শশুরবাড়ির স্বজনরা ডায়রিয়া জনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে দাবী করলেও তার মা সালমা বেগম’র অভিযোগ-তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ জন্য লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে জানা যাবে মৃত্যুর কারণ। এ ঘটনায় নিহতের ভগ্নিপতি সবুজ বাদী হয়ে থানায় একটি ইউডি মামলা করেছেন।

পটুয়াখালীতে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গ্রেফতার

পটুয়াখালী প্রতিনিধি॥ দেশব্যাপী বিএনপির ডাকা কর্মসূচী পালনকালে পটুয়াখালী জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ৩ বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ রোববার সকাল ১০টায় শহরের সার্কিট হাউস সংলগ্ন সুরাইয়া ভবনের সামনে জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এম এ রব মিয়ার নেতৃত্বে মিছিল সমাবেশের প্রস্তুতিকালে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এড.মজিবুর রহমান টোটন, যুব বিষয়ক সম্পাদক এড.এ টি এম মোজাম্মেল হোসেন তপন এবং ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প বিষয়ক সম্পাদক (সাবেক পৌর কমিশনার) আবদুল লতিফ। পুলিশের বাঁধা ও ধাওয়া খেয়ে অন্যান্য নেতা-কর্মীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ জানায়, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দুমকিতে গাছ থেকে পড়ে ২ ব্যক্তির মর্মান্তিক মৃত্যু

এম আমির হোসাইন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি ॥ উপজেলার আংগারিয়ার দুমকি সাতানী গ্রামে গাছ থেকে পা ফস্কে পড়ে পৃথক ঘটনায় ২ ব্যক্তির মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে। স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্র জানায়, মৃত আমির হোসেনের পুত্র সুমন (২৮) নামে এক যুবক আজ শনিবার সকালে পার্শ্ববর্তী আংগারিয়া গ্রামের মোল্লা বাড়িতে তাল (পানি তাল) কাটতে গিয়ে ভীমঁরুলের কামড় খেয়ে পা ফস্কে গাছ থেকে মাটিতে পড়ে হাত-পা ও পাজঁর ভেঙ্গে রক্তাক্ত জখম হয়। তাৎক্ষনিকভাবে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত্যু ঘোষনা করেন। দু’সন্তানের জনক সুমন মানুষের গাছ থেকে তাল কেটে বিক্রি করত। অপরদিকে, পাশের বাড়ির আশ্রাব আলী হাওলাদার (৫৮) নামে এক ব্যক্তি শুক্রবার সকাল ১১টায় নিজ বাড়ির ডালপালা কাটতে মেহগনি গাছে উঠলে রশি ছিড়ে ছিটকে পুকুরে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই তার হাতে ও মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। অজ্ঞান অবস্থায় তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত্যু ঘোষনা করেন। তিনি স্থানীয় কালভার্ড বাজারে চা বিক্রি করতেন। তার অকাল মৃত্যুতে বাজারের সকল ব্যবসায়ীরা শোক পালনে কালো পতাকা উত্তোলন করে আজ শনিবার সারাদিন দোকানপাট বন্ধ রাখে।

গহীন বনের হরিণ খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে!

ভোলা প্রতিনিধি:: ভোলার মনপুরা, তজুমদ্দিন ও চরফ্যাশন উপজেলার চর কুকরী-মুকরি, ঢালচর এলাকায় বন বিভাগের তৈরি ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল থেকে হরিণ লোকালয়ে আসতে শুরু করেছে। তজুমদ্দিন উপজেলার বাসনভাঙা চর থেকে গতকাল শনিবার সকালে একটি হরিণ নদী সাঁতরে লোকালয়ে চলে আসে। খবর পেয়ে বন বিভাগের লোকজন হরিণটিকে উদ্ধার করে চর উড়িলের গহীন অরণ্যে অবমুক্ত করে দেয়। তজুমদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফারুক আহাম্মেদ জানান, শনিবার সকালে তজুমদ্দিনের মেঘনা নদীর বাসনভাঙা চর থেকে একটি হরিণ উপজেলার ৬নং ওয়ার্ডে গুলিন্দা বাজার এলাকায় চলে আসে। এ সময় স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ এসে হরিণটিকে উদ্ধার করে বন বিভাগ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করে। পরে বন বিভাগ ও পুলিশের সহায়তায় বিকেলে চর উড়িলের গহীনে হরিণটিকে অবমুক্ত করা হয়। বন বিভাগ সূত্র জানায়, সমুদ্র ও মেঘনা নদীর মোহনার পানিতে লবণাক্ততা বেড়ে গেলে হরিণের জন্য মিঠা পানির সংকট প্রকট হয়ে ওঠে। বনে খাবার ও পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা না থাকায় ভোলা ও তার পার্শ্ববর্তী নোয়াখালী ও পটুয়াখালীর আটটি বনের হরিণ লোকালয়ে চলে আসে। মাঝে-মধ্যে জেলেরাও নদী থেকে হরিণ ভাসতে দেখে উদ্ধার করেছে। তবে এ বছর অসময়ে কয়েক দফা বৃষ্টি হওয়ার কারণে বনে মিঠা পানির সংকট দেখা দেবেনা বলেও বন বিভাগ সূত্র জানায়। তরুণ বন্যপ্রাণী গবেষক সামিউল মোহসেনিন জানান, প্রতিবছর মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত শুস্ক মৌসুমে মিঠা পানি ও খাবারের সন্ধানে হরিণ তাদের অবস্থান পরিবর্তন করে। তাই হরিণের মিঠা পানি নিশ্চিত করতে বনে ১৫ থেকে ২০ ফুট গভীরতার পুকুর খনন করতে হবে। এছাড়া অনেক সময় শিকারির ধাওয়া খেয়েও হরিণ লোকালয়ে আসে। এসব বন্ধ করতে মানুষকে সচেতন করতে হবে। প্রাণীদের জীবন ধারণের পরিবেশ না থাকলে জীব বৈচিত্র বিলুপ্ত হবে বলেও জানান তিনি। ভোলার বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) রুহুল আমিন জানান, তজুমদ্দিন, চরফ্যাশন, কুকরী মুকরী, ঢালচর, পাতিলা, মনপুরার ঢালচর, বদনার চর ও কলাতলির চরের অংশে প্রায় ১০ হাজার হরিণ রয়েছে। হরিণের মিঠা পানি নিশ্চিত করতে প্রতি বছর ১০ ফুটের বেশি গভীরতা সম্পন্ন পুকুর খনন করা হয়। এ বছরও চরফ্যাশনের চর কুকুরী মুকরিতে একটি পুকুর খনন চলছে। এছাড়া এ বছর অসময়ে বেশ কয়েক দফা বৃষ্টি হয়েছে। তাই আমরা আশা করি ভোলার বনগুলোতে এবার মিঠা পানির সংকট হবে না।

ভোলায় বেড়েই চলছে যক্ষ্মা রোগীর সংখ্যা, দু'বছরে মৃত্যু ২৫

ভোলা প্রতিনিধি:: ভোলার চরফ্যাশনে গত দু’বছরে এক হাজার ৪শত ৩২ জন যক্ষ্মা রোগী হিসেবে সনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে বিভিন্ন ভাবে ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। চরফ্যাশন হাসপাতাল পরিসংখ্যান সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় বর্তমানে মোট জনসংখ্যা (জানুয়ারি-ডিসেম্বর পর্যন্ত) ৫ লাখ ৭৪ হাজার ৮২৮ জন। এর মধ্যে ২০১৪ সালে সরকারী জরিপে ৬৮৭ জন যক্ষ্মা রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৮ জন রোগীর মৃত্যু হয়। ২০১৫ সালে জানুয়ারী থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৭৪৫ জন যক্ষ্মা রোগী সনাক্ত করা হয়। এর মধ্যে ৭১৩ জন চিকিৎসায় ভালো হলেও বাকি ১৭ জন যক্ষ্মা রোগী বিভিন্ন ভাবে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় এবং ১৫ জন বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। এ উপজেলায় সরকারি ভাবে এ হিসেব থাকলেও বে-সরকারি ভাবে তার চেয়ে বেশি পরিমাণ যক্ষ্মা রোগী রয়েছে বলে ধারণা করছেন সচেতন মহল। আবার অনেক রোগী বিচ্ছিন্ন চরাঞ্চলে বসবাস করার কারণে যক্ষ্মা রোগ সম্পর্কে তারা সচেতন নয়, তাই বিনা চিকিৎসায় যক্ষ্মা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন অনেক রোগী। এ ব্যাপারে চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা. মো. সিরাজ উদ্দিন বলেন, এ উপজেলায় অতীতের তুলনায় যক্ষ্মা রোগ অনেকটাই কমে এসেছে। রোগীদের যক্ষ্মা রোগ সনাক্ত হলে আমার সাদ্য অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়ার চেষ্টা করি। সরকার এই রোগের জন্য যুগোপযুগী পদক্ষেপ গ্রহণ করায় পূর্বের ন্যায় এখন আর-যক্ষ্মা রোগের রক্ষা নেই, এই কথাটির ভিত্তি নেই।

চরফ্যাশনে সাত ইউপিতে আ.লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী জয়ী

চরফ্যাশন প্রতিনিধি ॥ ভোলার চরফ্যাশনে বিছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ ভাবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এ নির্বাচনে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের বিজয় হয়েছে বলে নির্বাচন অফিস সূত্র নিশ্চিত করেছেন। নির্বাচিতরা হলেন- হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নে মো. সেলিম হাওলাদার, ঢালচর ইউনিয়নে মো. ছালাম হাওলাদার, নজরুল নগর ইউনিয়নে রুহুল আমিন হাওলাদার, জাহানপুরে মো. ইউনুছ (নসু হাজী), চর মাদ্রাজ ইউনিয়নে মোজ্জাম্মেল হক জমাদ্দার, এওয়াজপুরে মাহাবুবুর রহমান খোকন। প্রথম দফায় ঘোষিত ও অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে এওয়াজপুর ইউনিয়নে ফুটবল ও মোরগ মার্কার সমর্থদের মধ্যে প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার দুপুরে সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয় এছাড়া রাত সাড়ে ৯টার দিকে নজরুর নগরের ৬নং ওয়ার্ডে নির্বাচন পরবর্তী সসিংসতায় পরাজিত ফুটবল ও মোরগের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ২০ আহত হয়েছে।

বরিশালে নিজ বন্দুকের গুলিতে আনসার সদস্যের মৃত্যু

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: বরিশালের বানারীপাড়ায় নিজ বন্দুকের গুলিতে আল আমিন হোসেন(৪০) নামে এক আনসার সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বিশেরকান্দি ইউনিয়নের মুরারবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। বানারীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, আনসার সদস্য আল-আমিন হোসেন অস্ত্রের ওপর ভর করে ঘুমাচ্ছিলেন। এ সময় অস্ত্র থেকে অসাবধানবশত গুলি বের হয়ে তার পেটে লাগলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

চরফ্যাশন ও মনপুরার ৮ ইউনিয়নের সবগুলো কেন্দ্র দখল: প্রকাশ্যে সীল মারছে আ’লীগ কর্মীরা

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ঘোষিত প্রথম ধাপের মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ভোলার চরফ্যাশন ও মনপুরার ৮টি ইউনিয়নের সবগুলো কেন্দ্র দখল করে প্রকাশ্যে নৌকা প্রতীকে সীল মারছে বলে আ’লীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহন শুরু হলে এক ঘন্টা পর্যন্ত স্বাভাবিক নিয়মেই ভোট গ্রহন চলে। সকাল ৯টার পর থেকেই চরমাদ্রাজ, এওয়াজপুর, জাহানপুর, হাজারীগঞ্জ, ঢালচরও নজরুল নগর ইউনিয়নের সবগুলো কেন্দ্র থেকে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের এজেন্টদের বের করে দিয়ে প্রিজাইডিং ও পুলিশের সহায়তায় আ’লীগ কর্মীরা নৌকা প্রতীকে প্রকাশ্যে সীল মারে। এছাড়া চরফ্যাশনের চরকলমী ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহন সকাল ৮টায় শুরু হওয়ার সাথে সাথে কেন্দ্রগুলো দখলে নিয়ে আ’লীগ কর্মীরা প্রকাশ্য সীল মারছে বলে চরকলমী ইউনিয়নের বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান রেজাউল করিম হাওলাদার অভিযোগ করেছেন। এদিকে, মনপুরা উপজেলার হাজীরহাট ইউনিয়নে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মফিজুল ইসলাম মিলন মাতব্বরের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে কেন্দ্র দখল করে আ’লীগ কর্মীরা নৌকা প্রতীকে সীল মারছে বলে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি সামছুদ্দিন বাচ্চু চৌধুরী অভিযোগ করেছেন। অপরদিকে, বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা জানান, আ’লীগ প্রার্থীদের পক্ষ থেকে প্রকাশ্য সীল মারার বিষয়ে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসারদের নিকট অভিযোগ করলেও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি। সংশ্লিস্ট অফিসাররা ফোন রিসিভ করছেন না বলে ও অভিযোগ রয়েছে।

প্রধান সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

ভোলার ছয় ইউনিয়নে নির্বাচন স্থগিত

চলন্ত বাসে ২ বোনকে ধর্ষণের ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেফতার

ভোলায় ইউপি নির্বাচনে ব্যতিক্রমধর্মী প্রচারনা

পটুয়াখালীতে শ্রমিক লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

মনপুরায় তীব্র শীতে দুইজনের মৃত্যু

বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র পিস্তলসহ আটক

পটুয়াখালীর নিখোঁজ শ্রমিকদল নেতার লাশ বরগুনায়

বরগুনায় আ’লীগের মেয়র প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন

নিরাপত্তার দিক আমেরিকার চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


আজকের সব সংবাদ

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com