শনিবার, ২২ Jul ২০১৭ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

সারাদেশ - রাজশাহী বিভাগ - নাটোর

নাটোরে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: নাটোরে আবদুর রাজ্জাক (৩৬) নামের এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ভোরে সদর উপজেলার ইয়াসিনপুর রেললাইন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আবদুর রাজ্জাক সদর উপজেলার টেবাড়িয়া গ্রামের আবদুল মোমিনের ছেলে। টেবাড়িয়া বাজারে তার একটি মুদি দোকান ছিল। জানা গেছে, আবদুর রাজ্জাক সোমবার রাতে বাগাতিপাড়া উপজেলায় একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। রাতে তিনি বাসায় ফেরেননি। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সদর উপজেলার ইয়াসিনপুর রেললাইন থেকে তার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। সদর সার্কেলের এএসপি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, যুবলীগ নেতা আবদুর রাজ্জাককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তাদের পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

নাটোরে আ’লীগের বিরুদ্ধে বিএনপি’র ভোট প্রচারণায় হামলা-বাধাদানের অভিযোগ

নাটোর প্রতিনিধি॥ আসন্ন তৃতীয় পর্যায়ে ইউপি নির্বাচন(২৩ এপ্রিল)কে কেন্দ্র করে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীদের প্রচারণায় বাঁধাদান, হামলা, মাইক ভাংচুর, মিথ্যা মামলাসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে সদর উপজেলা বিএনপি। তাদের দাবী, সদর উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন এলাকায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নির্বাচনের যে পরিবেশ সৃষ্টি করেছে তাতে ভোটের আগের রাতেই ভোট হয়ে যাবে। শুধুমাত্র ২৩ তারিখে হবে মঞ্চায়ন। তাদের দাবী, আওয়ামী লীগের সশস্ত্র ক্যাডাররা প্রকাশ্যে নির্বাচনী এলাকায় মহড়া দিচ্ছে। বিএনপি ভোটার, প্রার্থী ও এজেন্টদের ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে। এ অবস্থায় আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে সকল সশস্ত্র ক্যাডারদের অস্ত্র উদ্ধার, অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার এবং নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করা না হলে তারা বাধ্য হয়ে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেবেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের আলাইপুর এলাকায় জেলা বিএনপি’র অস্থায়ী কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক, সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি রহিম নেওয়াজসহ বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্যে সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি রহিম নেওয়াজ দাবী করেন, সদর উপজেলার ৭টি ইউনিয়নেই আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর অনুসারী ক্যাডারবাহিনী বিএনপি মনোনীত প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণায় বাঁধা দিয়ে আসছে। বিএনপি মনোনীত প্রার্থীরা মাইকিং বের করলেই তারা মাইক ভাংচুর করছে। সশস্ত্র ক্যাডারদের হুমকি-ধামকি আর হামলার কারণে প্রার্থীরা ভোট প্রচারণায় বের হতে পারছেন না। আবার বিভিন্ন স্থানে পোষ্টার মারার পর সশস্ত্র ক্যাডাররা প্রকাশ্যে পোষ্টার ছিঁড়ে ফেললেও তার কোন প্রতিকার হচ্ছে না। তিনি দাবী করেন, গত ১৫ এপ্রিল মদনহাট, তেলকুপি এলাকায় এবং ১৭ এপ্রিল চন্দ্রকোলা এলাকায় বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মাইকিং বের করলে আওয়ামী লীগের ক্যাডার বাহিনী তাতে হামলা চালায় এবং ভাংচুর করে। এসময় তারা মাইকিং করার ব্যাটারীসহ, গাড়ি চালকের মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা লুট করে যা এখনও ফেরৎ পাওয়া যায়নি। বর্তমানে বিএনপি ভোটার ও এজেন্টদেরকেও তারা হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। এ অবস্থায় বিএনপি ভোটাররা জীবনের নিরাপত্তাহীনতার কারণে হয়ত ভোট কেন্দ্রেই যাবে না উল্লেখ করে তিনি দাবী করেন, এব্যাপারে বিভিন্ন চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সদর থানার ওসি ও নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে পর পর ৭টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও তার কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি। সরকারী দলের ক্যাডার বাহিনীর পাশাপাশি কিছু পুলিশ সদস্যও তাদের অনুসারীদের ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি জানান, নখদমস্তকহীন সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী নির্বাচন কমিশনের কাছে বিএনপি সুষ্ঠু,নিরপেক্ষ এবং সন্ত্রাসমুক্ত নির্বাচন প্রত্যাশা করেনা। কারণ, নির্বাচনের যে পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে তাতে ভোটের আগের রাতেই ভোট হয়ে যাবে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ কারচুপি করার সকল নাটক সম্পন্ন করেছে যার শুধুমাত্র মঞ্চায়ন হবে ২৩ এপ্রিল। এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান সকল অভিযোগের তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নেয়ার দাবী করেছেন।

নাটোরে শিশুকে গলাটিপে হত্যা পর মায়ের আত্মহত্যা

এসএম মনজুর-উল-হাসান, নাটোর :> পারিবারিক কলহের জের ধরে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় পাঁচ বছরের শিশুকে গলাটিপে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক মা। সোমবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার চান্দাই ইউনিয়নের ভান্ডারদহ গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, ভান্ডারদহ গ্রামের আলীম হোসেনের ছেলে ফারদিন আহম্ম্দে (৫) এবং মা সেলিনা বেগম (২৮)। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ দুইটি উদ্ধার করে প্রথমে থানায় ও পরে নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। পুলিশ ও চান্দাই ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমানসহ এলাকাবাসীরা জানায়, প্রায় সাত বছর আগে ভান্ডারদহ গ্রামের আব্দুল হালিমের মেয়ে সেলিনা বেগমের সাথে একই গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে আব্দুল আলীমের বিয়ে হয়। বিয়ের আগে থেকেই আব্দুল আলীম ঢাকা বিমানবন্দরে চাকুরীরত ছিলেন। সেখানেই চার বছর আগে তাদের ঘরে জমজ সন্তান ফারদিন ও তাহসিনের জন্ম হয়। সম্প্রতি তাদের পরিবারে আর্থিক সংকটের কারনে এক সপ্তাহ আগে সেলিনা ও তার দুই ছেলেকে ভান্ডারদহ গ্রামে রেখে যান আব্দুল আলীম। কিন্তু আব্দুল আলীমের এই সিদ্ধান্তকে মেনে নিতে পারেননি সেলিনা বেগম। ফলে, তাদের মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে সোমবার দুপুরে প্রথমে ফারদিনকে গলাটিপে হত্যা করে। পরে অপর ছেলে তাহসিনকে ধরতে গেলে সে পালিয়ে যায়। এরপরে সেলিনা বেগম গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। এব্যাপারে স্বামী আব্দুল আলীম বলেন, বর্তমানে চাকুরীতে ওভারটাইম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় রাজধানী শহরে সংসার চালাতে সমস্যা হচ্ছিল। তাই বউ, ছেলেদের কিছু দিনের জন্য বাড়িতে রেখে গিয়েছিলাম। এরমধ্যে সেলিনা যে এমন ঘটনা ঘটাবে তা বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে। বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) এমরান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ দু’টি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। সেলিনার বাবা আব্দুল হালিম বাদী হয়ে অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছেন। রিপোর্ট পেলে তদন্তের মাধ্যমে আত্মহত্যার সঠিক কারণ জানা যাবে। তবে প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে হত্যা এবং আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

নাটোরে সিরিজ বোমা হামলায় পাঁচজনের যাবজ্জীবন

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: সিরিজ বোমা হামলা মামলায় নাটোরে জেএমবির পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ ও ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছর করে কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় অপর দুই আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার বেলা পৌনে ১২টায় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক প্রদীপ কুমার এ রায় দেন। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামিরা হলেন-আব্দুর রশিদ, দেলোয়ার হোসেন মিঠু, হাফিজুর রহমান হাফিজ, শিহাব উদ্দিন শিহাব ও আব্দুল মতিন ওরফে ইসমাইল। খালাস প্রাপ্তরা হলেন-শহীদুল্লাহ্ ওরফে ফারুক, শফিউল্লাহ্ ওরফে তারিক। এদের মধ্যে শহীদুল্লাহ্ অন্য একটি মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত ও শফিউল্লাহ্ মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামি। এছাড়া এ মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামি হাফিজুর রহমান ও আব্দুল মতিন অপর একটি মামলায়ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ পেয়েছেন। নাটোর জজ কোর্টের এপিপি খন্দকার আবদুল হাই জানান, আলোচিত এই মামলায় ১১ বছর ধরে ৬২ জন সাক্ষীর মধ্যে ৪২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ ও যুক্তিতর্ক শেষে নাটোরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রদীপ কুমার রায় প্রথমে ৭ মার্চ, দ্বিতীয় ধাপে ২৩ মার্চ রায়ের দিন ধার্য্য করেন। ২৩ মার্চ আসামিদের মধ্যে ছয়জনকে রাজশাহী ও নাটোর কারাগার থেকে বিশেষ পুলিশি নিরাপত্তায় আদালতের এজলাসে আনা হয়। কিন্তু অপর আসামি শফিউল্লাহ্ ওরফে তারিক অনুপস্থিত থাকায় বিচারক ২৮ মার্চ পুনরায় রায় ঘোষণার দিন ধার্য্য করেন। তিনি জানান, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে নাটোরের জজ কোর্ট, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, ট্রেজার, বাসস্ট্যান্ড, ফিলিং স্টেশনসহ আট স্থানে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এসব স্থানে জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) লিফলেট পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে নাটোর থানার উপ-পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান বাদী হয়ে ওই দিনই অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে নাটোর সদর থানায় বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে মামলা করেন। পরে ওই বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর গোদাগাড়িতে জেএমবি সদস্য শহীদুল্লাহ্ তারেক ওরফে তুষার জেহাদি বই, লিফলেট ও বিস্ফোরক দ্রব্যসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নাটোর শহরের মীরপাড়া জেএমবির আস্তানায় নাটোর ও রাজশাহী জেলার পুলিশ যৌথ অভিযান চালায়। ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে নাটোরের মীরপাড়ায় জেএমবির উত্তরাঞ্চলীয় অপারেশন হেডকোয়ার্টার খাদেমুল ইসলামের তিনতলা ভবন থেকে পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করে। ওই সময় পুলিশের সঙ্গে জেএমবি সদস্যদের বন্দুকযুদ্ধ হয়। জেএমবির শীর্ষ নেতা শায়েখ আব্দুর রহমানের জামাতা আব্দুল অওয়ালসহ অন্যরা বোমা ফাটিয়ে পালিয়ে যান। পরে পুলিশ সেখান থেকে জেহাদি বই, মোবাইল ফোন, মোটরসাইকেল, বাইসাইকেল, বিস্ফোরক দ্রব্য, হিট লিস্ট উদ্ধার করে। ২০০৬ সালের ১৬ নভেম্বর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মতিউর রহমান আদালতে এই সিরিজ বোমা হামলা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করলে একই বছরের ২৯ নভেম্বর বিচার কাজ শুরু হয়। এ মামলার আসামি শহীদুল্লাহ তারেককে অন্য জেলায় অপর একটি মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশ এবং হাফিজুর রহমান ও আব্দুল মতিনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

নাটোরে হেরোইন রাখার অভিযোগে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: নাটোরে আড়াই বছর আগে ১২শ’ গ্রাম হেরোইনসহ গ্রেপ্তার এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ বৃহস্পতিবার জেলার দায়রা জজ মো. রেজাউল করিম এই মাদক মামলার রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডিত ফারুক আহমেদ রাজশাহীর গোদাগাড়ি উপজেলার মহিষবাথান গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। মামলার নথির বরাত দিয়ে সরকারি কৌঁসুলি সিরাজুল ইসলাম জানান, বনপাড়া-হাটিকুমরুল সড়কের কাছিকাটা টোলপ্লাজার সামনে হানিফ পরিবহনের একটি বাস থেকে ২০১২ সালের ১২ জুলাই ফারুককে (৩২) আটক করা হয়েছিল। “তার কাছে থাকা একটি ট্রাভেল ব্যাগে এক কেজি ২০০ গ্রাম হেরোইন পায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।” আটকের পর থেকে ফারুক কারাগারে আটক রয়েছেন বলে জানান এই আইনজীবী। আসামিপক্ষের আইনজীবী দিনাই তাছরিন জানান, তিনি এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

সাবেক প্রতিমন্ত্রীর বাড়িতে যুবলীগের হামলা ও লুটপাট

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকারের বাড়িতে হামলা ও লুটপাট চালিয়েছে যুবলীগ নেতাকর্মীরা। এ সময় সাবেক প্রতিমন্ত্রীর মেয়ে, জামাতা ও বাড়ির তত্ত্বাবধায়ককে মারধর করে বাসা থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন তারা। আহাদ আলী সরকারের পরিবারের সদস্যদের দাবি, লুট হওয়া স্বর্ণালংকারের মূল্য আনুমানিক চার লাখ টাকা। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এই হামলার জন্য স্থানীয় যুবলীগের একটি অংশকে দায়ী করেছেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী। আহাদ আলী রাতেই তার বাসায় ফিরে তাৎক্ষণিক সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, পৌর যুবলীগের সদস্য সাব্বির হোসেনের নেতৃত্বে এই হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। নাটোর থানার পুলিশ পরিবারের বরাত দিয়ে জানায়, রাত নয়টার দিকে ছয়-সাত জন যুবক ক্রিকেটের স্ট্যাম্প ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আহাদ আলীর কানাই খালির বাসভবনের নিচতলায় ঢুকে পড়ে। বাসার তত্ত্বাবধায়ক বাধা দিলে দুর্বৃত্তরা তাকে বেধড়ক পিটায়। তারা বাসার ভেতরে ঢুকে পড়লে আহাদ আলী সরকারের মেয়ে মৌসুমী পারভীন সেখানে এলে তাকেও স্ট্যাম্প দিয়ে পেটায়। তখন প্রতিমন্ত্রীর দুই জামাতা মাজহারুল ইসলাম ও আশরাফুল ইসলামকেও মারধর করে তারা। এ সময় আহাদ আলী সরকারের স্ত্রী চিৎকার করতে থাকলেও ভয়ে আশপাশ থেকে কেউ এগিয়ে আসেনি। ততক্ষণে দুর্বৃত্তরা প্রতিমন্ত্রীর বাসায় থাকা স্বর্ণালংকার লুট করে দ্রুত চলে যায়। এ ব্যাপারে কথা বলতে সাব্বিরের মুঠোফোনে কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে বিপুলসংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। সেখানে পুলিশ পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাটোরে আ’লীগ নেতার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বাহিমালি গ্রামে আবু রায়হান (৪৫) নামে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার ঝুলন্ত লাশ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার সকালে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয়রা জানায়, আজ সকালে একটি গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় রায়হানের লাশ পাওয়া যায়। তিনি উপজেলার মাঝগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান তার দলীয় পরিচয়ের তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ তদন্ত সূত্রে জানা যায়, বাহিমালি গ্রামের লোকজন আজ সকালে ঘুম থেকে উঠে রায়হানের মরদেহ দেখেন। খবর পেয়ে বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ আরো জানান, লাশের শরীরের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শুক্রবার রাতের কোনো একসময় তাকে হত্যা করা হয়। আবু রায়হান হত্যা মামলার আসামি ছিলেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত লাশের সুরতহাল তৈরি ও ময়না তদন্তের প্রস্তুতির কাজ চলছিল। বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক দয়াল ব্যাণার্জি জানান, আবু রায়হানকে কারা, কেন, কীভাবে হত্যা করেছে, তা জানা যায়নি। নিহত আবু রায়হানের বিরুদ্ধে ওই গ্রামের কৃষক মোতালেব হোসেনকে গুলি করে হত্যা করার অভিযোগে মামলা রয়েছে। গত বছর ৬ এপ্রিল রাতে তাকে হত্যা করা হয়।

বড়াইগ্রামে বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ নিহত -৩,আহত ২০

এসএম মনজুর-উল-হাসান,নাটোর :< নাটোরের বড়াইগ্রামে বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ দুইজন নিহত ও কমপেক্ষ ২০ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নাটোর-ঢাকা মহাসড়কের বড়াইগ্রাম উপজেলার রয়না ফিলিং স্টেশনের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন-বাসের চালক শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী উপজেলার ফতেহপুর গ্রামের মৃত সুরুজ্জামানের ছেলে আব্দুস সালাম (৪৫), রাজশাহীর মতিহার থানার বহরমপুর মহল্লার জাহিদ হাসানের মেয়ে ঐশী (১৭) ও অপরজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি ফুয়াদ রুহানী জানান, মঙ্গলবার দুপুর সোয়া দুইটার দিকে ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী যাত্রীবোঝাই বাস একতা পরিবহণের (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৮১৩৯) সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা গম বোঝাই ট্রাকের (রাজ-মেট্রো ট ১১-০১৬৩) মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে বাসের চালকসহ দুজন ঘটনাস্থলেই নিহত ও কমপক্ষে আরো ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তানিয়া, সাথী, তার মেয়ে ঐশী ও ছেলে সোহান, রোজিনা, জুলফিকার আলী ভূট্টু, জিনিয়া, কবীর, লিজা, রিতা, রবিউল, মামুন, মাসুদ, মরিয়ম, মৌসুমী ও রুমীকে বড়াইগ্রাম হাসপাতালে ও অন্যান্যদেরকে বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় রাস্তা বন্ধ হয়ে গেলে দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা বাস ও ট্রাক সরিয়ে নিলে রাস্তায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

সোমবার বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচন

এসএম মনজুর-উল-হাসান, নাটোর প্রতিনিধি॥ আগামীকাল সোমবার (৬ মার্চ) নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন আয়োজনে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় জেলা নির্বাচন অফিস সকল প্রস্ততি সম্পন্ন করেছে। জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ২ লাখ ৭ হাজার ৩৭৬ জন ভোটারের মধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৩ হাজার ৯১১ জন এবং পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩ হাজার ৪৬৫ জন। সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটাররা ৮১টি ভোট কেন্দ্রে ৫৪৪ টি বুথে ভোট প্রদান করবেন। ৮১টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের দায়িত্ব পালনের জন্য ইতোমধ্যে ৮১ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৫৪৪ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ১ হাজার ৮৮ জন পোলিং অফিসার নিয়োজিত থাকবেন। আজ রোববার বড়াইগ্রাম উপজেলা সার্ভার স্টেশন থেকে ব্যালট পেপার, ব্যালট বাক্স, কালী, সীলসহ ভোট গ্রহণের যাবতীয় সরঞ্জামাদি নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। প্রত্যেক ভোট কেন্দ্রে ৩ জন পুলিশ কর্মকর্তা নিয়োজিত থাকবেন। তাদের সহযোগিতায় অস্ত্রধারী ২ জন আনসার সদস্য ছাড়াও অতিরিক্ত আরো ১০ জন করে আনসার নিয়োজিত থাকবে। ৮১টি কেন্দ্রে পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের ৪০৬ জন সদস্য নিয়োজিত থাকবেন। ভোট কেন্দ্রগুলোতে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি পুলিশের স্টাইকিং ফোর্স, মোবাইল ফোর্স ও চেকপোষ্ট সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবে। জেলা নির্বাচন অফিসার ও নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. আবুল হোসেন জানান, নির্বাচনে পুলিশ ও আনসারের পাশাপাশি ২ প্লাটুন বিজিবি ৪টি টিমে বিভক্ত হয়ে দায়িত্ব পালন করবে। র‌্যাবের ৬টি টিম সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে। ৮১টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৫৬টি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্র্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এছাড়াও নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট এবং ১১জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফোর্সসহ দায়িত্ব পালন করবেন। উল্লেখ্য, গত ২৭ ডিসেম্বর ২০১৫ বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ একরামুল আলম মারা গেলে পদটি শূন্য হয়। উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাক্তার সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী নৌকা প্রতীকে এবং উপজেলা বিএনপির স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম রাসেল ধানের শীষ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রধান সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

নাটোরে শুরু হচ্ছে তিনদিন ব্যাপী আঞ্চলিক ইজতেমা

নাটোরে ফিড কোম্পানির কারখানায় অগ্নিকান্ড, কোটি টাকার ক্ষতি

নাটোরে একসঙ্গে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে মা ও ছেলে

সাংবাদিক শিমুল হত্যকারীদের শাস্তির দাবীতে নাটোরে মানববন্ধন

নাটোরে বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর নতুন জেলা কমিটি গঠন

নাটোরে একটি বেকারীকে দুই লাখ টাকা জরিমানা

নাটোরে আখ ক্ষেত থেকে একটি কঙ্কাল উদ্ধার

নাটোরে ৮ জন অপহরণকারী আটক

বিএনপি নেতা চেয়ারম্যান বাবু হত্যাকান্ডের ন্যায় বিচার পাওয়া নিয়ে হতাশ


আজকের সব সংবাদ

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com