শনিবার, ২২ Jul ২০১৭ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

আইন-আদালত

সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন ২৩ আগস্ট

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৩ আগস্ট দিন ধার্য করেছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার (১১ জুলাই) ঢাকার মহানগর হাকিম খুরশিদ আলম এই দিন নির্ধারণ করেন। আদালতে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন নির্ধারিত ছিল আজ। কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তা র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) সহকারী পুলিশ সুপার ওয়ারেছ আলী মিয়া তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করায় নতুন দিন ঠিক করেন বিচারক। ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান এনটিভি অনলাইনকে জানান, এ নিয়ে মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের সময় ৪৯তমবারের মতো পেছাল। মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারের ভাড়া বাসায় নির্মমভাবে খুন হন মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার ও এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি। পরের দিন ভোরে তাঁদের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় রুনির ভাই বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা করেন। মামলার পর রুনির কথিত বন্ধু তানভীর রহমানসহ মোট আটজনকে আটক করা হয়। বাকিরা হলেন- রফিকুল ইসলাম, বকুল মিয়া, মিন্টু ওরফে বারগিরা মিন্টু ওরফে মাসুম মিন্টু, কামরুল হাসান অরুণ, পলাশ রুদ্র পাল, তানভীর, আবু সাঈদ ও বাড়ির নিরাপত্তারক্ষী এনাম আহমেদ ওরফে হুমায়ুন কবির। এর মধ্যে পলাশ রুদ্র পাল ও তানভীর রহমান জামিনে রয়েছেন। সূত্র : এনটিভি

চাকরিচ্যুত ১৪৪৭ আনসারকে পুনর্বহালের নির্দেশ

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: আনসার বিদ্রোহে অংশ নেওয়ার অভিযোগ থেকে খালাস পাওয়াদের মধ্যে যাদের বয়স ও শারীরিক সক্ষমতা আছে তাদের চাকরিতে পুনর্বহালের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে যাদের চাকরির বয়স শেষ হয়ে গেছে তারা যত দিন চাকরিতে ছিলেন তত দিনের পেনশন সুবিধা দিতে সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার এ বিষয়ে জারি করা রুল যথায়থ ঘোষণা করে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করেন। আদালতে আনসার সদস্যদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার সৈয়দ মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাহাবুদ্দিন খান লার্জ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সূচীরা হোসাইন ও প্রতিকার চাকমা। মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯৪ সালে আনসার বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে বিভিন্ন দাবি দাওয়া আদায়ের লক্ষ্যে অসন্তোষ দেখা দেয়। যা পরবর্তীতে বিদ্রোহের রুপ নেয়। পরে সেনাবাহিনী বিদ্রোহ দমন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ্ ঘটনার পর কিছু সংখ্যক আনসার সদস্য পলাতক ছিলেন। এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্টের আলোকে বিদ্রোহে জড়িত থাকার অভিযোগে ২৪৯৬ জন আনসার সদস্যকে চাকরিচ্যুত করা হয়। তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করা হয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন সময়ে মামলার অভিযোগ থেকে আনসার সদস্যরা খালাস পান। ২৪৯৬ আনসার সদস্যর মধ্যে আব্দুল করিম, ড্রাইভার শফিকসহ ১৪৪৭ জনকে চাকরিতে পুনর্বহাল ও প্রাপ্ত সুযোগ সুবিধা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। রিটের শুনানি নিয়ে ২০১৭ সালের ২৫ এপ্রিল আনসার সদস্যদের চাকরিচ্যুত কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। সেই রুলের চূড়ান্ত শুনানি নিয়ে আজ হাইকোর্ট এ আদেশ দেন। রিটকারীদের আইনজীবী সৈয়দ মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, হাইকোর্টের এই আদেশ শুধু রিটকারীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। তবে অন্যরা হাইকোর্টে আবেদন করে এই সুযোগ নিতে পারবেন।

হানিফ ফ্লাইওভারের সিঁড়ি সরাতেই হবে

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের মাঝপথ থেকে ফ্লাইওভারে উঠা-নামার সিঁড়ি ভাঙতে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে ফ্লাইওভারটির এসব ‘যাত্রী সিঁড়ি’ অপসারণ করতেই হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। এর আগে হাইকোর্ট দুই সপ্তাহের মধ্যে অপসারণের জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র, স্বরাষ্ট্রসচিব, ডিএমপি কমিশনার ও ওরিয়ন ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে রিট টু আপিল করে ওরিয়ন ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড। আজ সোমবার প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের তিন বিচারপতির বেঞ্চ এ আবেদন খারিজ করে দিয়ে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখে। এর ফলে ওই এলাকার ফ্লাইওভারে উঠার জন্য যেসব সিঁড়ি স্থাপন করা হয়েছে। তা এখনই অপসারণ করতে হবে। প্রধান বিচারপতি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফ্লাইওভার রয়েছে, মাঝপথে ফ্লাইওভারে ওঠার জন্য সিঁড়ি কোথাও নেই। সিড়ি অপসারণ করতেই হবে। আজ আবেদনের পক্ষে ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন শুনানি করেন। প্রসঙ্গত, যাত্রাবাড়ী ফ্লাইওভারে ওঠার জন্য ৬ থেকে ৭টি সিঁড়ি ও বাসস্টপেজ আছে। এসব বাসস্টপেজে বাস ও লেগুনায় যাত্রী ওঠানামা করে। ফলে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। এ ছাড়া বাসসহ যাত্রী পরিবহনকারী ছোট-বড় বিভিন্ন যান এসব স্টপেজে থামার কারণে প্রায়ই যানজট থাকে। অন্যান্য ফ্লাইওভারে সিঁড়ি ও বাসস্টপেজ নেই। এসব যুক্তি তুলে ধরে ফ্লাইওভারে বাসস্টপেজ ও সিঁড়ি অপসারণ চেয়ে রিট করা হয়েছে।

সোহেল মাহফুজ সাত দিনের রিমান্ডে

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী গ্রেফতার জঙ্গিনেতা সোহেল মাহফুজের বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ রোববার তাকে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক হুমায়ুন কবির। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম এ এইচ এম তোয়াহা এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে শুক্রবার চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার পুষ্কুনি এলাকা থেকে তিন সহযোগীসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। প্রসঙ্গত, গত বছরের ১ জুলাই রাতে হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় হামলা চালায় জঙ্গিরা। হামলায় দেশি-বিদেশি ২০ জনসহ দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হন। নিহতদের মধ্যে নয়জন ইতালির, সাতজন জাপানি ও একজন ভারতের নাগরিক। বাকি তিনজন বাংলাদেশি। নিহত দুই পুলিশ কর্মকর্তা হলেন- ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) সহকারী কমিশনার রবিউল ইসলাম ও বনানী থানার ওসি সালাহউদ্দিন। ওই রাতেই ইসলামিক স্টেট (আইএস) হামলার দায় স্বীকার করে। পরদিন সকালে সেনা কমান্ডোদের পরিচালিত অপারেশন ‘থান্ডারবোল্টে’ রোহান ইবনে ইমতিয়াজ, নিবরাস ইসলাম, মীর সাবিহ মোবাশ্বের, শফিকুল ইসলাম উজ্জ্বল ও খায়রুল ইসলাম পায়েল নামে পাঁচ জঙ্গি নিহত হন। ওই ঘটনার পর গুলশান থানা পুলিশ মামলা দায়ের করে। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পরবর্তীতে ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মানহানি মামলায় মির্জা ফখরুলের বিচার শুরু

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খুনি ও আওয়ামী লীগকে খুনির দল বলায় মানহানি মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। আর এ অভিযোগ গঠনের ফলে মামলার বিচার কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হলো। আজ রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম নুর নবী তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সাক্ষীর জন্য আগামী ২৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেন। অভিযোগ গঠনের সময় মির্জা ফখরুল আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করেন। মির্জা ফখরুলের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ বলেন, মানহানি মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। সাক্ষীর জন্য ২৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেন আদালত। ২০১৪ সালের ২৪ আগস্ট নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে খুনি, তার দল আওয়ামী লীগ একটি খুনের দল হিসেবে পরিচিত, সারা জাতি ও বিশ্ববাসী তা জানে’ বলে মন্তব্য করেন। ফখরুলের ওই বক্তব্যে আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের নেত্রী শেখ হাসিনাকে সামাজিক ও আন্তর্জাতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অভিযোগে গত ১ সেপ্টেম্বর ঢাকার মহানগর হাকিম স্নিগ্ধা রানীর আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন আওয়ামী মৎসজীবী লীগের সহ-সভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী। এ নিয়ে দুই মামলায় ফখরুলের বিরুদ্ধে দুই মামলায় বিচার শুরু হলো। এর আগে ২০১৬ সালের ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর পল্টন থানার নাশকতার আরও একটি মামলায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকা মহানগর হাকিম আলী মাসুদ শেখ। মামলাটি বর্তমানে সাক্ষীর পর্যায়ে রয়েছে।

বনানীতে ধর্ষণ মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি পেছাল

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: রাজধানীর বনানীতে দ্য রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ মামলায় আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি পিছিয়েছে। আজ রোববার সময় চেয়ে আসামিপক্ষের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার ২ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ সফিউল আজম আগামী ১৩ জুলাই অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য নতুন দিন ধার্য করেন। গত ৬ মে বনানী থানায় অভিযোগ দায়েরের পর ৮ জুন আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের পরিদর্শক ইসমত আরা এমি। মামলায় ৪৭ জনকে সাক্ষী করা হয়। মামলার আসামিরা হলেন- আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ, তার বন্ধু সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ, সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন ও দেহরক্ষী রহমত আলী। মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ২৮ মার্চ রাতে জন্মদিনের কথা বলে অনুষ্ঠানে নিয়ে আসামিরা মামলার বাদী এবং তার বান্ধবীকে আটকে রাখে। অস্ত্র দেখিয়ে ভয়-ভীতি প্রদর্শন ও অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করা হয়। বাদী ও তার বান্ধবীকে জোর করে একটি কক্ষে নিয়ে সাফাত আহমেদ ও নাঈম আশরাফ রাতভর একাধিকবার ধর্ষণ করে। এ সময় সাফাত তার গাড়িচালককে ভিডিওচিত্র ধারণ করতে বলে। বাদীকে নাঈম আশরাফ মারধর করে।

হাইকোর্টে জামিন জালিয়াতি করে আসামি পলাতক

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: মামলার এজাহার ও জব্দ তালিকার নথি জাল করে হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে হুমায়ন কবির জনু নামে অস্ত্র মামলার এক আসামি পালিয়ে গেছেন। গত ২৭ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট থেকে জামিন নেন জনু। আজ বৃহস্পতিবার একই মামলার আরেক আসামি হাইকোর্টে জামিন নিতে এলে জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়ে। এরপর আসামি জনুকে সাতদিনের মধ্যে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে জালিয়াতির ঘটনায় কারা জড়িত সে বিষয়ে মামলা করতে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এ সংক্রান্ত আবেদন শুনানিতে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী নাসিমা আক্তার শানু। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যার্টনি জেনারেল ইউসুফ হোসেন মুর্শেদ। মুগদা থানার বিশ্বরোডে গার্মেন্টস গলির সামনের রাস্তায় অস্ত্র ও গুলি কেনা-বেচার সময় চারজনকে গত বছরের ১৩ নভেম্বর গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ওইদিনই মুগদা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা করা হয়। এ মামলায় জনু ও শহর আলী ওরফে লিটন গ্রেফতার হন। এরপর ২৭ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট থেকে নথি জাল করে জামিন নেন আসামি জনু। আজ ওই মামলার অপর আসামি শহর আলী হাইকোর্টে জামিন চান। শহর আলীর আইনজীবী নাসিমা আক্তার শানু বলেন, মামলার আসামি জনু হাইকোর্টে জামিন পেয়েছেন। সেই হিসেবে শহর আলীও জামিন পেতে পারেন। তখন আদালত জনু ও শহর আলীর জামিন আবেদন পর্যালোচনা করেন। ওই পর্যালোচনায় আদালত দেখতে পান যে মূল এজাহার ও জব্দ তালিকার নথি জাল করে জামিন আবেদন করেছিলেন জনু। যেখানে তার কাছ থেকে একটি পিস্তল ও চার রাউন্ড গুলি উদ্ধারের বিষয়টি উল্লেখই ছিল না। পরে হাইকোর্ট জনুর জামিন বাতিল করে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। শহর আলীর জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেন বিচারক।

৩ আগস্ট অভিজিৎ হত্যা মামলার প্রতিবেদন দাখিল

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: লেখক ও মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা অভিজিৎ রায় হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ৩ আগস্ট দিন ধার্য করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। তদন্ত সংস্থা ডিবি পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম গোলাম নবী এ দিন ধার্য করেন। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি বইমেলা থেকে বের হওয়ার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় ব্লগার অভিজিৎ রায়কে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় গুরুতর আহত হন অভিজিতের স্ত্রী রাফিদা আহমেদ। পরে শাহবাগ থানায় অভিজিতের বাবা অধ্যাপক ড. অজয় রায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যাকাণ্ডের কয়েকদিন পর আল-কায়েদার ভারতীয় উপমহাদেশ শাখার (একিউআইএস) নামে ওই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকারের খবর দেয় জঙ্গি গোষ্ঠীর ইন্টারনেটভিত্তিক তৎপরতা নজরদারি করা ওয়েবসাইট ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ।’ বাংলাদেশ সরকার অবশ্য বরাবরই বলে আসছে, এসব হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে আন্তর্জাতিক কোনো জঙ্গিগোষ্ঠীর সম্পর্ক নেই।

চার আবাসিক এলাকার অবৈধ স্থাপনা সরানোর নির্দেশ

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: রাজধানীর গুলশান, বনানী, বারিধারা ও ধানমন্ডি এলাকার সব অবৈধ স্থাপনা ১০ মাসের মধ্যে সরানোর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার এ বিষয়ে দায়ের করা ২৩৩টি রিট নিষ্পত্তি করে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী আহসানুল করীম, অ্যাডভোকেট ইদ্রিসুর রহমান, ব্যারিস্টার এ বি এম আলতাফ হোসেন, ব্যারিস্টার আবদুল কাইয়ুম, ব্যারিস্টার উপমা বিশ্বাস, ফারজানা খান, আসিফ আলী খান ও অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান প্রমুখ। রাজউকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। রায়ের পরে ব্যারিস্টার এ বি এম আলতাফ হোসেন বলেন, ওই তিন এলাকার অবৈধ স্থাপনা মালিকদের সরাতে ১০ মাস সময় দিয়েছেন আদালত। এ সময়ে রাজউক কোনো উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করতে পারবে না। পানি, বিদুৎ, গ্যাসের লাইনও বিচ্ছিন্ন করতে পারবে না। ১০ মাসের মধ্যে যদি না সরায় তাহলে বিনা নোটিশে উচ্ছেদ করতে পারবে রাজউক। তবে ব্যারিস্টার আবদুল কাইয়ুম বলেন, আদালত ১০ মাসের সময় দিয়েছেন। এর মধ্যে যারা রাজউক থেকে অনুমতি নিতে পারবে তারা থাকবে। আর যারা পারবে না তাদের উচ্ছেদ হতে হবে। কারণ আবাসিক এলাকায় সীমিত আকারে বাণিজ্যিক কার্যরক্রম চালানো যেতে পারে। ২০১৬ সালে গুলশানের হলি আর্টিজানে হামলার পর অনুমোদনবিহীন ৫৫২টি প্রতিষ্ঠানের তালিকা করে রাজউক। এ প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের জন্য ২৫ ‍জুলাই থেকে কার্যক্রম শুরু করেছিলো রাজউক। এরপর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এ উচ্ছেদ অভিযানের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট আবেদন করে। যে আবেদনগুলোর শুনানি নিয়ে আজ বুধবার রায় ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। ওই সময়ে আবেদনকারী কয়েকটি প্রতিষ্ঠান হলো- ধানমণ্ডির সাত মসজিদ রোড এলাকার বাবুর্চি রেস্টুরেন্ট, পুল ওয়ার্ল্ড, কড়াই গোশত, গুলশানের হোটেল ডি ক্যাস্ট্রল লিমিটেড, স্কলাস্টিকা স্কুল, অরুরা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, হোটেল হলিডে প্যানেট, হোটেল আমরাই প্রমুখ।

প্রধান সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

৫ সাক্ষীর জেরা করার অনুমতির আবেদন খালেদার

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলে হাইকোর্টের রায় আপিলেও বহাল

খালেদার দুর্নীতির দুই মামলার পরবর্তী শুনানি ২৯ জুন

ভারতীয় টিভি সম্প্রচার সংক্রান্ত আপিল শুনানি ২২ অক্টোবর

খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ২৩ জুলাই

অভিনেতা তনুকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

খালেদার দুই মামলার পরবর্তী শুনানি ২২ জুন

কেরানীগঞ্জে আবদুল্লাহ হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

২৩ সহকারী অ্যাটর্নিকে অব্যাহতি দিয়ে ২৭ জনকে নিয়োগ


আজকের সব সংবাদ

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com