রবিবার, ২৩ Jul ২০১৭ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

সারাদেশ - রংপুর বিভাগ - ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ে শটগান নিয়ে ভোটের মাঠে আ’লীগ প্রার্থী!

তারেক হোসেন, ঠাকুরগাঁও :> শটগান নিয়ে ভোটের মাঠে আওয়ামী লীগ প্রার্থী! ইউপি নির্বাচনের আগে লাইসেন্স করা সব ধরনের অস্ত্র জেলা প্রশাসনের কাছে জমা দেয়ার নিয়ম থাকলেও তা মানেননি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সোহাগ। এই প্রার্থীর লোকজন প্রকাশ্যে তাদের লাইসেন্স করা শটগান ও পিস্তল নিয়ে ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন এবং নৌকা ছাড়া অন্য কোনো প্রতীকে ভোট না দেয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ইউনিয়নে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রার্থীর পাশে সারাক্ষণ শটগান নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন সাদা পাঞ্জাবি পরিহিত এক লোক। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কাছে শটগান ছাড়াও তার লোকজনের কাছে পিস্তলসহ বিভিন্ন অস্ত্র রয়েছে। যা নিয়ে তারা প্রকাশ্যে ঘুরছে এবং ভোটারদের বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে। এদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ভোটের মাঠে নামার কারণে সাধারণ ভোটারসহ অন্যদলের প্রার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. সোহাগ বলেন, ‘আমার নির্বাচনী প্রচারণা করতে কয়েকজন আত্মীয়-স্বজন এসেছে। তাদের একটি শটগান ও পিস্তল রয়েছে। তবে সেগুলো লাইসেন্স করা। নিজের নিরাপত্তার স্বার্থেই অস্ত্রগুলো তাদের সঙ্গে রেখেছে। তবে অস্ত্র দিয়ে কাউকে ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে না।’ এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁওয়ের পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ জানান, এমন অভিযোগ আমাদের কাছে নেই। অভিযোগ পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। জেলা প্রশাসক মূকেশ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, নির্বাচনী আচরণবিধিতে নির্বাচনী এলাকায় অস্ত্র নিয়ে ঘোরা-ফেরা নিষেধ। কোনো প্রার্থী যদি তা লঙ্ঘন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রানীশংকৈলে ওএমএস ডিলার নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ

রানীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি :> ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলায় দরিদ্র ও হতদরিদ্র জনগোষ্ঠিদের জন্য সরকার ও এম এসের মাধ্যমে ১০ টাকা কেজি দরে খোলা বাজারে চাল বিক্রির জন্য ডিলার নিয়োগ করেন। এতে ডিলার নিয়োগের জন্য কোন প্রক্রিয়া না করে পুরাতন ডিলারদের কাছে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা। (ডিলার নিয়োগ বাতিল হবে মর্মে) নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ডিলার জানান, ১৩ জন পুরাতন ডিলার কে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ১০ হাজার করে টাকা লাগবে না দিলে নতুন ডিলার নিয়োগ দেওয়া হবে। এজন্য খাদ্য নিয়ন্ত্রকের (অলিখিত ভাবে) নিয়োগ কৃত সরকার দলীয় এক ব্যক্তির মাধ্যমে টাকা দেওয়া হয়েছে। এদিকে সরকারী এক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানান, সামনে বছরে খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিপ্লব কুমার সিংহ বদলী হবেন মর্মে এ উপজেলায় সকল ধরনের অনিয়ম দূনীতি করে যাবেন। এবং চলতি গম মৌসুমে কৃষকের গম ক্রয়ের নামে কি যে করবেন তা নিয়ে আমরা ও সংঙ্কিত। এ ব্যাপারে নিয়োগ কমিটির সদস্য সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এখলাসুর রহমান লিটন বলেন, ডিলার নিয়োগে আসলে সব নিয়ম মানা হয়নি। আর টাকা আদায়ের বিষয়টি আমি শুনেছি টিসিএফ সাহেব নাকি নিয়েছে। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্ত বিপ্লব কুমার সিংহ এ প্রতিনিধি কে বলেন তাড়া হুরো করে পুরাতন ডিলারদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এ জন্য আমি কোন অর্থ নেইনি । আমার নামে যদি কেউ টাকা আদায় করে থাকে এটা তাদের ব্যাপার । অনিয়ম প্রসঙ্গে নিয়োগ কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা খন্দকার মোঃ নাহিদ হাসান বলেন, ডিলার নিয়োগে অনেক ঝামেলা পুলিশের তদন্ত রিপোট লাগে, মাইকিং করা, নোটিশ করা, তাই সময় স্বল্পতার কারনে পুরাতনদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে আর এ সুযোগ কে কাজে লাগিয়ে যদি কেউ টাকা আদায় করে থাকে তা আমার জানা নেই।

পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন: প্রচারনায় তিনি একাই

তারেক হোসেন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ॥ “আমি আলমগীর কবির জুয়েল, ‘মার্কা আমার নারিকেল গাছ’ ‘সৎ ও শিক্ষাকে মূল্যায়ন করুন’।” এভাবেই হ্যান্ডমাইক বাজিয়ে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নিজের প্রচারণা চালিয়ে ভোট চাইছেন ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে চারজন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী আলমগীর কবির জুয়েল। আজ রবিবার সকালে পীরগঞ্জ পূর্ব চৌরাস্তার পাশে এ দৃশ্য দেখা যায়। তিনি হ্যান্ডমাইক বাজিয়ে তাঁর নিজ নারিকেল গাছ প্রতীকে ভোটারদের নিকট ভোট চাচ্ছেন এবং ভোটারদের জমায়েত করে নিজ যোগ্যতার কথা ও মেয়র নির্বাচিত করলে তিনি এ পৌরসভার কি কি করবেন, তা তুলে ধরছেন। রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে জমা দেওয়া তাঁর হলফনামায় জানা যায়, তিনি স্নাতক (বি,এ) পাস। ১৯৯৮ সালের নভেম্বরে তিনি সেনাবাহিনীতে যোগদান করে দীর্ঘ ১৭ বছর চাকুরী জীবন শেষ করে অবসর গ্রহণ করেন। এই অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য আলমগীর কবির জুয়েল বলেন, দীর্ঘ ১৭ বছর দেশ সেবা করেছেন এখন পৌরবাসীর সেবা করতে চান। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পরদিন থেকেই তিনি গণসংযোগ চালাচ্ছেন। মেয়র নির্বাচিত হলে তিনি পৌরসভার কোন সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করবেন না উল্লেখ করে জানান, একমাত্র সরকারী ভাবে যে মাসিক ভাতা দেওয়া হয় তা গ্রহণ করবেন। পৌরসভাকে জুয়া ও মাদকদ্রব্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করে তিনি সেনাবাহিনীতে চাকুরী জীবনে যেভাবে টহল দিয়েছেন সেভাবেই পৌর এলাকায় আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে টহল দিবেন বলে অঙ্গীকার করেছেন। ঘুষ দুর্নীতির উর্দ্ধে থেকে পৌর এলাকার অচল রাস্তা সচল করে, ড্রেন ও পানির লাইন, ডাস্টবিন নির্মাণ করাসহ এলাকার উন্নয়নে যা যা করার তা তিনি সরকারি বাজেট দিয়েই করবেন বলে জানান। ৯নং ওয়ার্ডের হাসেন আলী ও ৭নং ওয়ার্ডের সাহিদুল ইসলামসহ কয়েকজন ভোটার বলেন, আলমগীর তাঁর নারিকেল গাছ মার্কার ভোট নিজেই চেয়ে বেড়াচ্ছেন। পৌর এলাকার ৯টি ওয়ার্ডে পায়ে হেঁটে আর হাতে হ্যান্ডমাইক বাজিয়ে নিজ মার্কার প্রচারণা করা আসলেই ধৈর্য্যের ব্যাপার। অন্যান্য মেয়র প্রার্থীর তো দলের লোকজন আছে কিন্তু আলমগীর একাই চালাচ্ছেন তাঁর প্রচারণা। উল্লেখ্য, পীরগঞ্জে মেয়র পদে আরও আছেন আওয়ামী লীগ মনোনিত সাবেক মেয়র কশিরুল আলম, জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও সাবেক পৌর চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন এবং বিএনপির প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র রাজিউর রহমান রাজু। এছাড়াও পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৪০ জন কাউন্সিলর প্রার্থী আর ১০ জন সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচন করছেন।

ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুলের ভাইয়ের সঙ্গে তাহমিনার লড়াই

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ॥ ঠাকুরগাঁওয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীরা দলীয়ভাবে নিজ নিজ সমর্থক নিয়ে মাঠে রয়েছেন পৌর নির্বাচনী প্রচারণায়। জনসংযোগের পাশাপাশি ভোটারদের আশীর্বাদ নিচ্ছেন প্রার্থীরা। পৌর এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, পাড়া-মহল্লা থেকে শুরু করে সব রাস্তায় ঝুলছে বিভিন্ন প্রতীকের পোস্টার আর প্রার্থীদের তত্পরতা। পাড়া-মহল্লায় ঘুুরে ঘুরে ভোটারদের মন জয় করতে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা। ঠাকুরগাঁওয়ে এবার আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক তাহমিনা আক্তার মোল্লা। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন পাওয়া ১৫ জন নারী মেয়র প্রার্থীর মধ্যে তিনি একজন। ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে এখনো যার পদচারণ নিজ দলে। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে একবার নির্বাচিতও হয়েছিলেন তিনি। এবার তিনি মেয়র পদে লড়বেন নৌকা প্রতীক নিয়ে। তিনি বলেন, স্বাধীনতার পক্ষের প্রতীক নৌকা। এই প্রতীকে নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন, ভোট চাইছেন। এতে এখন পর্যন্ত তিনি সবার সহযোগিতা পেয়েছেন। তবে তিনি আক্ষেপ করে বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী তাঁকে সহযোগিতা করছেন না। অন্যদিকে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ছোট ভাই বর্তমান জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মির্জা ফয়সাল আমিন মেয়র পদে লড়ছেন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে। পারিবারিকভাবে যিনি এখনো রয়েছেন রাজনীতিতে। তাঁর বাবা মির্জা রুহুল আমিন ও বড় ভাই মির্জা ফখরুল ইসলামও ছিলেন এই পৌরসভার চেয়ারম্যান। তিনি এবার প্রথম নির্বাচন করছেন। দলীয় প্রতীকে পৌর নির্বাচনকে সরকারদলীয় নেতারা স্বাগত জানালেও বিএনপির পক্ষ থেকে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে কিছুটা সন্দেহ প্রকাশ করেছেন মির্জা ফয়সাল আমিন। তিনি বলেন, নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে তিনি নিশ্চিত। কারণ জনগণ তাঁকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছে। প্রশাসন নিরপেক্ষ থাকলে বিপুল ভোটে তিনি বিজয়ী হবেন। অন্যদিকে, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক পৌর চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য সোলায়মান আলী এবার মোবাইল ফোন প্রতীকে নির্বাচন করছেন। গত শনিবার জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহীর সভায় সোলায়মান আলীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। সোলায়মান আলী বলেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে দলের সঙ্গে রয়েছেন। দল এবার তাঁকে মনোনয়ন না দেওয়ায় তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী প্রকাশ্যে না থাকলেও গোপনে তাঁর নির্বাচন করছে। ঠাকুরগাঁও পৌরসভায় এবার মেয়র প্রার্থী চারজন। এর মধ্যে দলীয় প্রতীকে দুইজন, স্বতন্ত্র প্রার্থী দুইজন। কাউন্সিলর পদে ৪৭ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৫ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এ পৌরসভায় ভোটার রয়েছে ৫২ হাজার ৯৪০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ২৬ হাজার ৩৮৫ ও নারী ভোটার ২৬ হাজার ৫৫৫ জন।

রানীশংকৈল জনতার আদালতে পুলিশের বিচার

মোঃ বিপ্লব,রানীশংকৈল :> ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে গোগর চৌরাস্তা নামক স্থানে ১৭ সেপ্টেম্বর বিকালে রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর সাইকেল আটকের সময় ভূয়া পুলিশ সন্দেহে ২ জনকে আটক করে স্থানীয় জনতা। ২ থানার পুলিশ ঘটনা স্থলে এসে বিষয়টি নিয়ন্ত্রন করে শালিস সন্ধায় বৈঠকে বসে। জানাযায়, পীরগঞ্জ থানার এ এস আই নুর আলম সঙ্গীয় কনষ্ঠেবল মামুনকে নিয়ে নিয়ম বহিভূত ভাবে রানীশংকৈল থানায় প্রবেশ করে মোটর সাইকেল আটক করে এবং টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়ার সময় স্থানীয় রুহুল সহ কয়েক জন বিষয়টি প্রতিবাদ করে। পুলিশ পরিচয় দান কারীদের রেজিষ্ট্রেশন বিহীন হেপাচি মোটর সাইকেলটি আটক করে। বিষয়টি মূহুতের মধ্যে এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ভূয়া পুলিশ দেখতে হাজারো মানুষ সেখানে ভিড় জমে। রানীশংকৈল থানা অফিসার ইনচার্জ সুকুমার মোহন্ত সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্থলে হাজির হয় এবং বিষয়টি তদন্ত করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেয়। পীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ কেএম শওকত হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্থলে এসে তাদের থানার পুলিশ বলে দাবি করে। ওসি শওকত হোসেন জানান, উক্ত এএসআই কে মোটর সাইকেল আটকের ব্যাপারে কোন সিসি দেওয়া হয়নি। স্থানীয়রা আরো জানান, এএসআই নুর আলম পীরগঞ্জ হতে আলমগীর সহ কিছু বখাটে ছেলেকে সাথে নিয়ে মোটর সাইকেল আটক করে টাকা আদায় করছিল। এসময় সেখানে ভাইস চেয়ারম্যান মাহফুজা বেগম পুতুল,ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম,পীরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, স্থানীয় ইউপি সদস্য ও ২ থানার পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে শালিস বৈঠক বসে। বৈঠকে সিসি ছাড়া মোটর সাইকেল আটক করা ও পীরগঞ্জ থানা পুলিশ রানীশংকৈল থানায় প্রবেশ করার অপরাধে আপোষ নামা লেখা হয় এবং মৌখিক ভাবে ২ থানার ওসিরা বিষয়টির জন্য ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখার জন্য বলেন। জনতার আদালতে পুলিশের বিচার হওয়া নিয়ে জনমনে ব্যাপক আলোচনা চলছে। এ প্রসঙ্গে থানা অফিসার ইনচার্জ সুকুমার মোহন্ত ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বিষয়টি উদ্ধতন কর্মকর্তাদের জানিয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থ নেওয়ার আশ্বাস দেন। তবে স্থানীয় লোকজন অন্যায় কিছু করেনি তাই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত কোন ব্যবস্থ নেওয়া হবে না।

হরিপুরের কৃষকদের ৪টি গরু-৪টি মহিষ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ

কবিরুল ইসলাম কবির,(ঠাকুরগাঁও)হরিপুর :< বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বিজিবি ও বিএসএফ কোম্পানী পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে হরিপুর উপজেলার সিংহাড়ী গ্রামের তিন কৃষকের ৪টি গরু ৪টি মহিষ ফেরত দিয়েছে ভারতীয় বিএসএফ। পতাকা বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় সীঁমান্তের ৩৬১ নং পিলার এলাকায় শূন্য রেখায়। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু তাহের জানান, গতকাল বুধবার সিংহাড়ী গ্রামের কৃষক আঃ বারেক, নজরুল ও আলমগীর নাগর নদীর ওপারে বাংলাদেশের ভূ-খন্ডে গরু ও মহিষ চড়াতে যায়। বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ভারতীয় বৌয়ারা ক্যাম্পের বিএসএফ বাংলাদেশ ভূ-খন্ড থেকে জোড়-পূর্বক ঐ তিন কৃষকের ৪টি গরু ৪টি মহিষ ধরে নিয়ে যায়। তৎক্ষনাত গরু-মহিষ ধরার বিষয়টি ২বিজিবি’র বুজরুক বিওপি কমান্ডার নায়েক সুবেদার মজিবুর রহমানকে জানানো হয়। বিজিবি কর্তৃপক্ষ প্রতিবাদ জানিয়ে গরু-মহিষ ফেরত চেয়ে বিএসএফকে পত্র পাঠালে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ধরে নিয়ে যাওয়া ৪টি গরু ও ৪টি মহিষ ফেরত দেয়। ২বিজিবি’র বুজরুক বিওপি কমান্ডার নায়েক সুবেদার মজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

রানীশংকৈলে বীরাঙ্গনাদের মাঝে গরু বিতরণ

রানীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি ॥ ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে আজ সোমবার (১৭ জুলাই) মানবতার পক্ষে আমরা ঢাকার বে-সরকারি একটি নারী সংগঠন চেষ্টা’র উদ্যোগে ৬ জন বীরাঙ্গনাকে ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকার ৬টি গরু বিতরণ ও উপজেলা চত্বরে বৃক্ষরোপন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মোঃ নাহিদ হাসান, চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসফাকুর রহমান (ভারপ্রাপ্ত) নারী সংগঠন চেষ্টার সভাপতি সেলিনা বেগম (শেলী) সম্পাদক লায়লা নাজনীন হারুন, সহ-সভাপতি রাফেয়া আবেদীন, সাংগঠনিক সম্পাদক ভিকারুনেচ্ছা হোসেন চিন, সদস্য রাশিদা ইসলাম মিনু, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সিরাজুল ইসলাম, প্রেস ক্লাব সভাপতি মোবারক আলী, ভূমি উপ-সহকারি কর্মকর্তা জাহেরুল ইসলামসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা।

রানীশংকৈলে নেক ব্লাষ্ট রোগে বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি

রানীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি ॥ ধান গাছে শীষ এসেছে। এখন শীষের পরিপূর্ণতা আসার সময়। কৃষকের মুখে ফুঠে উঠেছে হাসি, কৃষকের গোলাও মোটামুটি প্রস্তুত। ঠিক এই সময় শীষগুলোর সবুজ রং পরিবর্তন হতে শুরু করেছে, শীষের গোড়ায় কালচে রং ধরতে শুরু করেছে। শীষের পরিপূর্ণতা না আসতেই কেন এমন পরিবর্তন এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছে ঠাকুরগায়ের রানীশংকৈল উপজেলার বেশিরভাগ কৃষক। এ উপজেলার বেশিরভাগ মানুষই কৃষি নির্ভরশীল। কৃষকরা ধানের শীষের হঠাৎ পরিবর্তন হওয়াকে প্রাথমিকভাবে কারেন্ট পোকা বলে ধারনা করলেও পরে জানতে পারে এটি মারাত্বক ছত্রাক জনিত নেক ব্লাষ্ট রোগ। তবে কৃষকদের অভিযোগ রয়েছে কৃষি অফিসের লোক সময়মত পরামর্শ দিলে এমনটা হতো না। আর কৃষি অফিস বলছে আবহওয়া জনিত কারনে এমনটা হয়েছে। কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, উপজেলায় মোট বোরো ধানের লক্ষ্য মাত্রা ৮ হাজার ৬১৮ হেক্টর তবে অর্জিত হবে ৮ হাজার ৪৯৫ হেক্টর। উপজেলার ৮নং নন্দুয়ার ইউপির বনগাঁও গ্রামের কৃষক আলিফ তার ৫০ বিঘা বোরো ধানের মধ্যে ২৫ বিঘাই নেক ব্লাষ্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে ধানের শীষ সাদা হয়ে গেছে এবং দানা থাকে না বলে জানান। এছাড়া কালুগাও গ্রামের রফিকুল মাষ্টার, গণেশ মাটি, দুলালেরও বোরো ধানের ফসল এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। ৪নং লেহেম্বা ইউপির লেহেম্বা গ্রামের জতিন বলেন, আমি একটি এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে বোরো ধানের আবাদ শুরু করেছিলাম ধানের যে হারে ক্ষতি হয়েছে তাতে ঋণ পরিশোধ দুরের কথা খাওয়ার ধান জুটবে কিনা সন্দেহ রয়েছে। পাটগাও গ্রামের মিঠুন বলেন, সদ্য মাত্র আমার বাবা মারা গেছেন, জমি আদি নিয়ে ৫ বিঘা মাটিতে বোরো ধান লাগিয়েছি, কিন্তু হঠাৎ করে কি রোগে যেন আমার সব অর্থ পরিশ্রম বৃথা হতে যাচ্ছে আমি শংকিত পরিবার পরিজন নিয়ে আগামী ফসল পর্যন্ত কিভাবে কাটবে আমার দিনগুলো। এছাড়াও উপজেলার সন্নিকটে খুনিয়া দিঘী চত্বরে রফিকুল মিয়ার ১বিঘা, মোস্তফা মিয়ার প্রায় ২বিঘা ধানের ফসলে অধিকাংশই এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। উপজেলার ৫নং বাচোর ইউপির সালাম জানান তিনি ২ বিঘা ধান লাগিয়েছিলেন তার সমস্ত ধানেই নেক ব্লাষ্ট রোগে আক্রান্ত হয়েছে। ২নং নেকমরদ গরকই মন্দির এলাকার ভবেশ বলেন, গরকই মন্দির বিলের বেশিরভাগ ধানেই এ সমস্যাটি দেখা দিয়েছে, এ এলাকার কৃষকরা দিশে হারা হয়ে পড়েছে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের পরামর্শ অনুযায়ী কীটনাশক ব্যবহার করেও তেমন একটা উপকার আসছে না বলে তিনি জানান। এছাড়াও ৬নং কাশিপুর, ৭নং রাতোর, ১নং ধর্মগড় সহ উপজেলা জুড়ে ধান ক্ষেতে এ রোগের বিস্তার ঘটেছে। কৃষকরা বলছেন তাদের আবাদের জীবনে এমন রোগের স্বীকার তারা হয়নি। কৃষকদের অভিযোগের তীর কৃষি অফিসের দিকে ছুড়লেও কৃষি অফিস বরাবরই মতই বলছেন আবহওয়া জনিত কারনেই এমনটা হয়েছে। কৃষি সম্পসারণ কর্মকর্তা মাজেদুল ইসলাম বলেন, আবহওয়া জনিত কারন যেমন দিনে গরম রাতে ঠান্ডা মেঘলা আকাশ, সকালে কুয়াশা, গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি আর নাইট্রেজেনের পরিমান বেড়ে যাওয়ায়। নেক ব্লাষ্ট রোগটি দেখা দিয়েছে আমরা কৃষি অফিস মাট পর্যায়ে উঠান বেঠকসহ কৃষকদের সচেতন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। তবে ইউএনও খন্দকার মোঃ নাহিদ হাসান বলেন, কৃষি কর্মকর্তাকে এ বিষয়ে তাগিদ দেওয়া হয়েছে। এবং দ্রুত এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।

হরিপুরে ইয়াবা ও গাঁজাসহ আটক ২

হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি॥ ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে পৃথক দুটি অভিযানে ২৫ পিস ইয়াবাসহ মুকসেদ আলী (৩৬) নামে এক স্কুল শিক্ষক এবং একশত গ্রাম গাজাসহ তোজাম্মেল হক (৪২) নামে একজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। মুকসেদ উপজেলার রণহাট্টা গ্রামের মৃত আমান উল্লাহর ছেলে ও বীরগড় কারিগরি স্কুলের সহকারি শিক্ষক এবং তোজামেম্মল হক একই উপজেলার নন্দগাঁও গ্রামের মৃত ইয়াসিন আলীর ছেলে। মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে থানা পুলিশ শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে পৃথক দুটি অভিযানে ২৫ পিস ইয়াবাসহ মুকসেদ আলীকে চৌরঙ্গী এলাকা থেকে ও একশত গ্রাম গাঁজাসহ তোজাম্মেল হককে যাদুরানী এলাকা থেকে আটক করে। হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল কুদ্দুছ সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

প্রধান সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

হরিপুরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সাহায্য প্রদান

হরিপুরে বিএনপি’র ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

রাণীশংকৈলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নেই

রানীশংকৈলে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অনূপস্থিত ১৪

হরিপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত আরো একজনের মৃত্যু

রাণীশংকৈলে কুকুরের কামড়ে মেয়রসহ ৫ জন হাসপাতালে

হরিপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৩, আহত ১

হরিপুরে বিএনপি’র সম্মেলনে স্থগিত

রানীশংকৈলে অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিদায় গণসংবর্ধনা


আজকের সব সংবাদ

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com