রবিবার, ২৩ Jul ২০১৭ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

সারাদেশ - সিলেট বিভাগ - হবিগঞ্জ

হবিগঞ্জে আনসারবাহী বাসের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষে ৩ আনসার নিহত

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: হবিগঞ্জে আনসারবাহী একটি বাসের সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৩ আনসার সদস্য নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসময় আহত হয়েছে আরও কমপক্ষে ৪০ জন। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জেলার সায়েস্তাগঞ্জে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। বিস্তারিত আসছে........

হবিগঞ্জে নিখোঁজ চার মাদ্রাসা ছাত্র উদ্ধার

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা থেকে নিখোঁজ চার মাদ্রাসা ছাত্রকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে জেলার নবীগঞ্জে এক ছাত্রের আত্মীয়বাড়ি থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সুতাংবাজার এলাকার বাছিরগঞ্জ পূর্ব নোয়াগাঁও হাফিজিয়া মাদ্রাসার ৪ ছাত্র নিখোঁজ হয় বলে তাদের পরিবারের লোকজন পুলিশকে জানিয়েছে। শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি ইয়াছিনুল হক জানান, শনিবার রাতে জেলার নবীগঞ্জে এক ছাত্রের আত্মীয়বাড়ি থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে চার মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ হয় বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়। তবে এ ব্যাপারে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ আসেনি। নোয়াগাঁও হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হাফেজ মাওলানা সেলিম আহমেদ জানান, শুক্রবার বিকাল থেকে চার ছাত্রকে খুঁজে পাচ্ছিল না তারা। উদ্ধার হওয়া মাদ্রাসা ছাত্ররা হলো- বাহুবল উপজেলার চারগাঁও গ্রামের আহমদ রশিদ মনু মিয়ার ছেলে রাব্বি আহমদ (১৩), আব্দানারায়ন গ্রামের আব্দুল আহাদের ছেলে ইমতিয়াজ (১২), শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার দরিয়াপুর গ্রামের আব্দুল আউয়ালের ছেলে সুহানুর (১১) এবং নবীগঞ্জ উপজেলার সুজাপুর গ্রামের আব্দুল্লাহর ছেলে নয়ন (১২)।

বাহুবলে এবার চার মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: সিলেটের হবিগঞ্জের বাহুবলে মর্মান্তিক ৪ স্কুল ছাত্রের হত্যাকণ্ডের পর এবার ফের হবিগঞ্জের বাহুবলে একটি হাফিজিয়া মাদ্রাসার ৪ ছাত্রের নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। এঘটনার পর থেকে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। নিখোঁজ শিশুরা হল- বাহুবল উপজেলার চারগাঁও গ্রামের আহমদ রশিদ মনু মিয়ার ছেলে রাফিদ (১৩), একই উপজেলার আব্দানারয়ন গ্রামের আব্দুল আহাদের ছেলে ইমতিয়াজ (১২), শায়েস্তাগঞ্জ এলাকার দইরাপুর গ্রামের আব্দুল আওয়ালের ছেলে সুহানুর (১১) ও নবীগঞ্জ উপজেলার সুজাপুর গ্রামের আব্দুল্লার ছেলে নয়ন (১২)। তারা শায়েস্তাগঞ্জের সুতাংবাজার এলাকার বাছিরগঞ্জ পূর্ব নোয়াগাঁও হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র। শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ তাদের খোঁজে পাচ্ছে না। নিখোঁজ রাফিদ মিয়ার বাবা জানান, শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে পাঞ্জাবি বানানোর কথা বলে মাদ্রাসা থেকে শায়েস্তাগঞ্জ আসে তারা। পরে আর মাদ্রাসায় আর ফিরে যায়নি। সন্ধ্যার দিকে তাদের না পেয়ে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করা হয়। তবে কোথাও পাওয়া যায়নি তাদের। আজ শনিবার সকাল ৯টায় এ বিষয়ে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বৈঠকে বসেছে বলেও তিনি জানান। তবে শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি ইয়াছিনুল হক এ ধরনের কোনো বিষয় তিনি শোনেননি বলে জানান। উল্লেখ্য, গত ১২ ফেব্রুয়ারি বাহুবলের সুন্দ্রাটিকি গ্রামের চার শিশুকে অপহরণ করা হয়। পাঁচ দিন পর ১৭ ফেব্রুয়ারি গ্রাম থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে ইছারবিল খালের পাশে মাটিচাপা অবস্থায় তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

হবিগঞ্জে বৃদ্ধ বাবাকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: হবিগঞ্জ শহরে বৃদ্ধ বাবাকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে দুই ছেলের বিরুদ্ধে। ‘স্ট্রোকে’ মারা গেছেন এমন বক্তব্য দিয়ে বাবার মৃত্যুর খবর মাইকে প্রচার করেছে নিহতের দুই ছেলে। আত্মীয়-স্বজনেরা এ খবর পাওয়ার পর মৃতের বাড়িতে দ্রুত ছুটে গেলে তারা নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পান। তাদের অভিযোগ, তিন কোটি টাকা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে বাবাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে দুই ছেলে। নিহত ব্যক্তির নাম কিতাব আলী (৭০)। তিনি হবিগঞ্জ শহরের মাহমুদাবাদ এলাকায় থাকতেন। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন জানান, অভিযোগের কারণে লাশ ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। কিতাব আলীর প্রতিবেশীদের কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জায়গা বিক্রির টাকা নিয়ে ছেলেদের সঙ্গে মনোমালিন্যের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। এ বিষয়ে নিহতের বোন জমিলা বেগম অভিযোগ করেন, ‘কিতাব আলীর দুই ছেলে মাদকসেবী। মাদকের টাকা না দিলে তারা প্রায়ই কিতাব আলীকে মারধর করত। ইদানীং তারা ভাইকে দ্বিতীয় দফা জমি বিক্রি করে বহুতল বাসা নির্মাণের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল। কিন্তু তিনি রাজি না হওয়ায় এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝাগড়া-বিবাদ হতো। না পেয়ে শেষ পর্যন্ত তারা আমার ভাইকে হত্যা করেছে।’ নিহত কিতাব আলীর বোন পুতুল বেগম অভিযোগ বলেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে তিনি তাঁর ভাইয়ের মৃত্যুর খবর পান। কিন্তু কিতাব আলীর ছেলে-মেয়েরা তাঁর ভাই-বোনসহ অন্য আত্মীয়-স্বজনকে কোনো খবর না দিয়ে তাড়াতাড়ি করে লাশ দাফনের প্রস্তুতি নেয়। এরই মধ্যে বিভিন্ন মাধ্যমে নিহতের ছোট ভাই বিলাত মিয়া, বোন জমিলা বেগম ও পুতুল বেগম তাদের ভাই কিতাব আলীর মৃত্যুর খবর পেয়ে রাত ১০টায় দিকে তাঁর বাসায় যান। এ সময় তাঁরা কিতাব আলীর গলায় আঘাতের চিহ্ন দেখতে পান। এতে তাঁদের সন্দেহ হয়, সন্তানরা কিতাব আলীকে হত্যা করেছে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি তাঁরা হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশকে অবগত করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য অনুরোধ জানান। পরে রাত ১১টার দিকে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এ কে এম রাসেলের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। কিতাব আলীর ছোট ভাই বিলাত মিয়া বলেন, ‘নিহতের ছেলে জুনায়েদ মিয়া ওরফে জুয়েল ও আল-আমিন সম্পত্তির লোভে তার বাবাকে হত্যা করে আমাদের না জানিয়ে লাশ দাফনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। সংবাদ পেয়ে আমরা এ বিষয়টি পুলিশকে জানাই।’ তবে হত্যার ঘটনা অস্বীকার করে কিতাব আলীর বড় ছেলে জুনায়েদ মিয়া জানান, তিনি সিলেটে তাবলিগ জামাতের চিল্লায় ছিলেন। সন্ধ্যার দিকে খবর পান, তার বাবা স্ট্রোক করে মারা গেছেন। এ খবর পেয়ে তিনি বাসায় ফেরেন। তিনি বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে আমার বাবা অ্যাজমায় আক্রান্ত ছিলেন। ইতোপূর্বে আরো একবার স্ট্রোক করেছিলেন।’ মৃত কিতাব আলীর গলায় আঘাতের চিহ্ন সম্পর্কে জানতে চাইলে ছেলে জুনায়েদ মিয়া জানান, দুপুরে তাঁদের বাসায় শায়েস্তানগর এলাকার চাল বিক্রেতা দরবেশ আলী চাল বিক্রির জন্য এসেছিল। এ সময় টাকা দেওয়া-নেওয়া নিয়ে দরবেশ আলীর সঙ্গে তাঁর বাবা কিতাব আলীর কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে তিনি বিছানায় শুয়ে পড়লে স্ট্রোক করে মৃত্যুবরণ করেন। পরে আমরা আমাদের আত্মীয়স্বজনকে সংবাদ দিয়ে লাশ দাফনের প্রস্তুতি নিই। কিন্তু আমার বাবার মৃত্যুকে ভিন্ন খাতে নিতে বাবার সৎ ভাইরা ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। কোনো ছেলে বাবাকে হত্যা করতে পারে না।’

চার শিশু হত্যা: প্রধান আসামি বাচ্চু মিয়া বন্দুকযুদ্ধে নিহত

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: সিলেট জেলার হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামে পূর্ব বিরোধের জের ধরে চার শিশুকে অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার অন্যতম প্রধান আসামি বাচ্চু মিয়া র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাত সাড়ে ৪টার দিকে চুনারুঘাট দেওরগাছ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গলের কোম্পানি কমান্ডার কাজী মনিরুজ্জামান জানান, বাহুবলে চার শিশু হত্যার ঘটনায় র‌্যাব সদস্যরা বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায়। এর অংশ হিসেবে সিলেটের বিশ্বানাথ থেকে বুধবার রাতে শাহেদ নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শাহেদ জানান, রাতেই দেওরগাছ এলাকা দিয়ে বাচ্চু ভারতে পালিয়ে যাবে। বিষয়টি জানার পরে র‌্যাবের আরেকটি দল ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বাচ্চু বাহিনী গুলি চালালে দুই র‌্যাব সদস্য আহত হন। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে বাচ্চু মারা যান। ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব সদস্যরা একটি নাইন এমএম পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে। বাচ্চুর মরদেহ বর্তমানে চুনারুঘাট হাসপাতালে রাখা হয়েছে, জানান মনিরুজ্জামান। এর আগে ১৯ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া রুবেল মিয়ার (১৭) স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি তুলে ধরে বলেন, গ্রাম পঞ্চায়েত আব্দুল আলী ওরফে বাগল মিয়ার নির্দেশে এ কিলিং মিশনে অংশ নেয় ৬ জনের একটি দল। আব্দুল আলী ওরফে বাগল মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া (১৭), একই গ্রামের আরজু মিয়া (২০) ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক বাচ্চু মিয়াসহ (২৫) মোট ৬ জন তাদের গ্রামের চার শিশুকে হত্যা করে। নিহত শিশুরা হলো- বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে সুন্দ্রাটিকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র জাকারিয়া শুভ (৮), আবদাল মিয়ার ছেলে প্রথম শ্রেণির ছাত্র মনির মিয়া (৭), আব্দুল আজিজের ছেলে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র তাজেল মিয়া (১০) ও সুন্দ্রাটিকি আনওয়ারুল উলুম ইসলামিয়া মাদ্রাসার নুরানী প্রথম শ্রেণীর ছাত্র আব্দুল কাদিরের ছেলে ইসমাইল মিয়া (১০)। তাদের মধ্যে শুভ, মনির ও তাজেল একে অপরের চাচাতো ভাই।

হবিগঞ্জে নিখোঁজ চার স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: হবিগঞ্জের বাহুবলে নিখোঁজের পাঁচ দিন পর চার স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের মাটির নিচ থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত শিশুরা হলো- বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের মো. ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে জাকারিয়া আহমেদ শুভ (৮), আব্দুল আজিজের ছেলে তাজেল মিয়া (১০), আবদাল মিয়ার ছেলে মনির মিয়া (৭) ও আব্দুল কাদিরের ছেলে ইসমাইল হোসেন (১০)। বাহুবল থানার অফিসার ইনচার্জ মোশাররফ হোসেন জানান, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বাড়ির পাশের মাঠে খেলা করতে যায় ওই শিশুরা। সন্ধ্যার পরও তারা বাড়িতে ফিরে না আসায় অভিভাবকরা খোঁজাখুজি করতে থাকে। কোথাও তাদের সন্ধান না পেয়ে শুক্রবার রাতেই উপজেলার সর্বত্র মাইকিং করা হয়। পরদিন শনিবার দুপুর পর্যন্ত ওই চার শিশুর সন্ধান না পেয়ে জাকারিয়া আহমেদ শুভর বাবা ওয়াহিদ মিয়া বাদী হয়ে বাহুবল মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে আজ বুধবার সকালে বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের মাটির নিচ থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

হবিগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন শ্রমিক নিহত

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ইউসুফ নগর এলাকায় ট্রাকচাপায় তিন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আউশকান্দি এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে এলাকাবাসী। আজ শুক্রবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নবীগঞ্জ থানার ওসি আবদুল বাতেন খান জানান, নিহতরা সবাই নির্মাণ শ্রমিক। তাদের মধ্যে দুজন হলেন- হবিগঞ্জ সদর উপজেলার মহরম আলী (৪৫) ও মানিক মিয়া (৪০)। আরেকজনের পরিচয় জানা যায়নি। নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য জানান, শ্রমিকরা রাস্তার পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ঢাকা থেকে সিলেটগামী একটি মালবোঝাই ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা ট্রাকটি আটক করলেও চালক পালিয়ে যায়। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা মহাসড়ক অবরোধ করলে ঘণ্টাখানেক যান চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ গিয়ে তাদের বুঝিয়ে সরিয়ে দিলে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মহাসড়কে যান চলাচল শুরু হয় বলে শেরপুর হাইওয়ে থানার ওসি মো. নুরুন্নবী জানান।

হবিগঞ্জে ডাকাতের সঙ্গে সংঘর্ষে সাত পুলিশ আহত

ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার চতুল মাহমুদপুর এলাকায় ডাকাতের সঙ্গে সংঘর্ষে সাত পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ সময় অস্ত্রসহ আন্তঃজেলা ডাকাতদলের পাঁচ সদস্যকে আহত অবস্থায় আটক করেছে হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে হবিগঞ্জ-নসরতপুর বাইপাস সড়কের চতুল মাহমুদপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত ডাকাতরা হলো- হবিগঞ্জ সদর উপজেলার আব্দাবখাই গ্রামের মন্তাজ আলীর ছেলে সায়েদ (৪৭), চুনারুঘাট উপজেলার কাচুয়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে ফজর আলী (৩০), একই উপজেলার সাটিয়াজুরী গ্রামের ফজর আলীর ছেলে লিটন (২২), ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার লেথিকোড়া গ্রামের রফিক মিয়ার ছেলে শফিক (২১) ও আখাউড়া উপজেলার ধলেশ্বর গ্রামের খুর্শেদ মিয়ার ছেলে রাসেল (১৯)। তাদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুদ্বীপ রায়, আব্দুল করিম, ইকবাল বাহার, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মুসলিমসহ আহত সাত পুলিশ সদস্যকে একই হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এস আই) সুদ্বীপ রায় জানান, রাতে ১০ থেকে ১২ জনের ডাকাত দল হবিগঞ্জ-নসরতপুর বাইপাস সড়কের চতুল মাহমুদপুর এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নেয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ ডাকাতদের আটক করতে ওই এলাকায় অভিযান চালান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল রামদাসহ বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে সাত পুলিশ সদস্য আহত হন। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ডাকাতদের ওপর ৮ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে পাঁচ ডাকাত আহত হয়। বাকিরা পালিয়ে যায়। এ সময় পুলিশ ডাকাতদের কাছ থেকে একটি পাইপগান, চার রাউন্ড তাজা গুলি, চারটি রামদা, একটি ছুরি, একটি লোহার রড ও একটি বড় পলিথিন উদ্ধার করে। সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) মাসুদুর রহমান মনির ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নবীগঞ্জ পৌরসভার বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থীকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা

অনলাইন ডেস্ক :< হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডে বিএনপি-সমর্থিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোঃ সুন্দর আলীকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাত পৌনে ৮টার দিকে নবীগঞ্জের পূবালী ব্যাংকের সামনে একদল দুর্বৃত্ত তাঁকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এ সময় সুন্দর আলীর চিৎকার শুনে লোকজন ছুটে এসে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সুন্দর আলী নবীগঞ্জ পৌর কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক। ঘটনার সময় সুন্দর আলী একা ছিলেন বলে জানিয়েছেন নবীগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সভাপতি ও ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এ টি এম সালাম। সালাম জানান, নবীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থা আশঙ্কাজনক বিবেচনায় তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে

প্রধান সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

হবিগঞ্জে নৌকায় বজ্রপাতে চারজন নিহত

হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত

হবিগঞ্জে বিচারক সংকটে বাড়ছে মামলা জট

সিলেটে দুই কোটি টাকা মূল্যের গাড়ি জব্দ

হবিগঞ্জে আবারও ৪শিক্ষার্থী নিখোঁজ

হবিগঞ্জে নিখোঁজের ৫দিন পর চার শিশুর মরদেহ উদ্ধার

সিলেটে অধ্যাপকের গাড়ির ধাক্কায় নিহত -৩

ট্রাক ও প্রাইভেটকার মুখোমুখি সংঘর্ষ ॥ নিহত -৫

হবিগঞ্জে ট্রাক ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে নারীসহ পাঁচজন নিহত


আজকের সব সংবাদ

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com