রবিবার, ২৩ Jul ২০১৭ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

সারাদেশ - সিলেট বিভাগ - সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জে ছয়জনকে অচেতন করে গৃহকর্ত্রীকে তারা ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক :> সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নে এক পরিবারের ছয়জনকে অচেতন করে লুটপাট করেছে দুর্বৃত্তরা। এর মধ্যে বাড়ির গৃহকর্ত্রীকে তারা ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে সদস্য পদে পরাজিত এক প্রার্থী ও তাঁর লোকজন এই ঘটনা ঘটান বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রবাসীর স্ত্রীর গলায় গভীর দাগ রয়েছে। চামড়া ঝলসে গেছে। তাঁকেসহ অন্যদের আজ শুক্রবার দুপুরে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ প্রবাসীর স্ত্রীর কিছুটা চেতনা ফিরলে তিনি জানান, গত ৩০ এপ্রিল হয়ে যাওয়া ইউপি নির্বাচনে সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন মিনার উদ্দিন আহমদ ও সাব্বির আহমদ। মিনার উদ্দিন আত্মীয় হওয়ায় তাঁরা তাঁকে ভোট দেন। নির্বাচনে পরাজিত হন সাব্বির আহমদ। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে এক লোক এসে তাঁকে আত্মীয় পরিচয় দেন এবং আলাপ জমিয়ে তোলেন। একপর্যায়ে তাঁর তিন ছেলে, দেবর ও ননদের জামাইকে জুস ও রসমালাই খাইয়ে অচেতন করেন। এরপর পরাজিত প্রার্থী সাব্বির আহমদ, ভাতিজা গুলজার ও প্রতিবেশী আকতারুল ইসলামসহ চার-পাঁচজন তাঁর কাছ থেকে আলমারির চাবি চান। তিনি দিতে না চাইলে তাঁর গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করে। কিন্তু তিনি কৌশলে গামছার নিচে আঙুল ঢুকিয়ে জীবন বাঁচান। এরপর তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। পরে দেখেন তিনি হাসপাতালের বিছানায়। বাড়ির অন্য সদস্যরাও হাসপাতালে। প্রবাসীর বেশ কয়েকজন আত্মীয় জানান, আজ শুক্রবার সকালে প্রবাসীর ঘরের দরজা বন্ধ দেখে অনেক ডাকাডাকি করা হয়। পরে পেছনের দরজা খোলা পেয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে বিবস্ত্র এবং অন্যদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে সবাইকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় প্রবাসীর ঘরের সব আলমারি ভাঙা পাওয়া যায়। খবর পেয়ে আজ বিকেল ৫টায় সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হওয়া প্রবাসীর ছেলেদের সঙ্গে কথা বলেন দোয়ারাবাজার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফিরোজ আল মামুন। সদর হাসপাতালের গাইনি বিভাগের সেবিকা রুনা জানান, ওই নারীর চিকিৎসা চলছে। ভালো করে তাঁর চেতনা ফেরেনি। পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক দিলোয়ার হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। আরো পাঁচজনকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই নারীর চিকিৎসা করছেন গাইনি বিভাগের চিকিৎসক। দোয়ারাবাজার থানার এসআই ফিরোজ আল মামুন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সবাইকে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করা হয়েছে। অন্যদের চেতনা ফিরলেও প্রবাসীর স্ত্রীর চেতনা ভালো করে ফেরেনি। তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বিষয়টির তদন্ত চলছে।

সুনামগঞ্জে টানা বৃষ্টিতে কৃষকের স্বপ্নের ফসল পানির নিচে

অনলাইন ডেস্ক :> চৈত্রের খরতাপে ফসল নিয়ে যখন অনেক কৃষকের কপালে দুশ্চিন্তার ছাপ, তখন হাওর জেলা সুনামগঞ্জে চাষিদের বিপাকে ফেলেছে, টানা বৃষ্টি। এতে ভেঙে গেছে বেশ কয়েকটি হাওরের বাঁধ। কৃষকের রক্ত ঘামে ফলানো বছরের একমাত্র ফসল ডুবে গেছে, বর্ষণের জলে। এ অবস্থায় বাধ্য হয়ে আধা-পাকা ধানই কেটে ঘরে তুলছেন অনেকে। তাই লাভ তো দূরের কথা; খরচ তোলা নিয়ে শঙ্কার কালো মেঘ কৃষকের মনে। সুনামগঞ্জ বছরের বেশিরভাগ সময় পানির নিচে থাকে হাওর পাড়ের এই জেলা। ডিসেম্বরের শেষের দিকে পানি কমলে, এখানে বোরো ধানের আবাদ হয়। এই একটি মাত্র ফসল দিয়েই চলতে হয়, সারা বছর। শ্রম-ঘামের এই ফসল যখন ঘরে তোলার অপেক্ষায় কৃষক; ঠিক তখনি হঠাৎ বৃষ্টি। আর এতেই ভেঙ্গে যায় হাওরের বাঁধ। তলিয়ে যায়, কয়েক হাজার হেক্টর জমির বোরো ধান। এ অবস্থায় বাধ্য হয়ে আধা-পাকা ধানই কেটে নিচ্ছেন কৃষকরা। কৃষকদের অভিযোগ, আগাম বৃষ্টি ও বেড়িবাঁধ নির্মাণে পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতির কারণেই, ডুবে গেছে তাদের স্বপ্নের ফসল। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর বলছে, কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতায় ডুবে গেছে বোরো ধান। চলতি বছর গোটা জেলায় দুই লাখ ২১ হাজার হেক্টর জমিতে বোরোর আবাদ হয়েছে।

সুনামগঞ্জে ট্রাক চাপায় অটোরিকশার চার আরোহী নিহত

ই-কণ্ঠ ডেস্ক:: সুনামগঞ্জে ট্রাক চাপায় সিএনজি চালিত অটোরিকশার চার আরোহী নিহত হয়েছেন। আজ বুধবার সকালে জেলার ছাতক-গোবিন্দগঞ্জ সড়কের হাসনাবাদ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ছাতক থানার ওসি আশেক সুজা মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সিলেট থেকে ছাতকগামী ট্রাকটি বিপরীত দিক থেকে আসা সিএনজি চালিত অটোরিকশাটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।

নৌকা ডুবিতে মা-মেয়েসহ ৩ যাত্রীর মৃত্যু

সুনামগঞ্জের শাল্লার হাওরে ইঞ্জিনচালিত ডিঙ্গি নৌকাডুবিতে মা-মেয়েসহ ৩ যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন আরো একজন। রোববার দুপুরে শাল্লার ভেড়া মোহনা হাওরে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে হবিগঞ্জের আজমিরিগঞ্জ থেকে ১২ যাত্রী নিয়ে একটি ইঞ্জিনচালিত ডিঙ্গি নৌকা সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার দামপুরে আসার পথে ঝড়ো হাওয়া শুরু হয়। এ সময় ঢেউয়ের কবলে পড়ে ডিঙ্গি নৌকাটি ডুবে যায়। খবর পেয়ে আশপাশের গ্রাম থেকে লোকজন এসে ৮ যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করলেও ডুবে মারা যান দামপাড়া গ্রামের ইমরুল মিয়ার স্ত্রী রাসেনা বেগম (২৫) ও তার শিশু কন্যা জনি আক্তার (৫), ইমরুলের আত্মীয় সাদিকুর রহমানের শিশু কন্যা সোনিয়া আক্তার (৩)। জ্যোৎস্লা বেগম (৩৫) নামে আরেক গৃহবধূ নিখোঁজ রয়েছেন। তার বাড়িও দাম পাড়া গ্রামে। তিনি কবির মিয়ার স্ত্রী। শাল্লা থানার ওসি আনিছুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজনকে হত্যার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে মানবন্ধন

সিলেটে ১৩ বছরের শিশু শেখ মোঃ সামিউল আলম ওরফে রাজনকে হত্যার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে মানবন্ধন হয়েছে। সোমবার দুপুরে শহরের আলফাত স্কোয়ারে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বদরুল কাদির শিহাব, এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের জেলা প্রতিনিধি পঙ্কজ দে, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি অ্যাড. খলিল রহমান, এনটিভির জেলা প্রতিনিধি দেওয়ান গিয়াস, শিক্ষক ফারুক আহমদ, দ্বিপময় চৌধুরী ডিউক, অভিজিৎ রায়, হৃদয় খান, রইসুজ্জামান, আজিজুর সৌরভ প্রমুখ। বক্তারা শিশু রাজনের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

সুনামগঞ্জে সাড়ে ৪ লাখ টাকা মূল্যের অবৈধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় সাড়ে চার লাখ টাকা মূল্যের অবৈধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। শুক্রবার (১০ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার জয়কলস ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) কার্যালয়ের সামনে এসব জাল পোড়ানো হয়। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক দীপঙ্কর চাকমা ও আব্দুল বিন রশিদ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ আদেশ দেন। এর আগে, সুরমা নদী জলমহালে অভিযান চালিয়ে অবৈধ পাঁচটি কোনা জাল ও পাঁচটি কারেন্ট জাল আটক করা হয়। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সীমা রানী বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটক অবৈধ জালের আনুমানিক মূল্য সাড়ে চার লাখ টাকা।

সুনামগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত -১

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় আব্দুর রশীদ (৭০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল ১০ টার দিকে দিরাই-শ্যমারচর আঞ্চলিক সড়কের ফাতেমানগর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের ফাতেমা নগর গ্রামের মৃত আনিসুল হকের ছেলে। দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বায়েস আলম জানান, অটোরিকসায় করে আব্দুর রশীদ বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি যাত্রীবাহী সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হলে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে দুপুর ২ টার দিকে মারা যান।

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com