সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

একসঙ্গে ফিরছেন মাশরাফি-সাকিব

স্পোর্টস রিপোর্টার::

সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে ২৯ অক্টোবর। শিগগিরই ফিরছেন দেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাও। সবকিছু ঠিক থাকলে দেশের ক্রিকেটের দুই ধ্রুবতারা নভেম্বরে একসঙ্গে ফিরবেন ২২ গজে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে পাঁচ দলের করপোরেট টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে।

করোনায় লকডাউনের আগে গত মার্চে জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়ে অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ান মাশরাফি। অধিনায়কত্ব ছাড়লেও ওয়ানডে খেলে যাবেন তিনি। ৫০ ওভারের ঘরোয়া সংস্করণ ঢাকা লিগও খেলার কথা ছিল তার। কিন্তু করোনার কারণে মাঠে ফেরা হয়নি। গত জুলাই থেকে মিরপুর স্টেডিয়ামে অনুশীলন করছেন ক্রিকেটাররা। সেখানে ছিলেন না রঙিন পোশাকে বাংলাদেশের দিন বদলের নেতা। প্রাণঘাতী করোনায় ভুগেছেন লম্বা সময়। প্রায় দেড় মাস লড়াইয়ের পর সেরে উঠেন তিনি।

করপোরেট ক্রিকেটে ফেরার লক্ষ্যে দ্রুত মাঠে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাশরাফি। বুধবার মুঠোফোনে মাশরাফি বলেন, ‘খুব শিগগিরিই মাঠে ফিরব। বিসিবির অনুমতি নিয়ে মিরপুরেই ফিটনেস ট্রেনিং শুরু করবো। নিজের মতো করেই ব্যবস্থা করে নিতে হবে সব।’

প্রায় দুই দশক ধরে ক্রিকেট মাঠে মাশরাফি। সাতবারের বেশি ইনজুরিতে পড়েছেন। দীর্ঘ সময় মাঠের বাইরে ছিলেন। দীর্ঘ বিরতি দিয়ে মাঠে ফেরার প্রক্রিয়া সবই তার নখদর্পনে। দুই সপ্তাহ ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পর এক সপ্তাহ টানা বোলিং করলে মাঠে ফেরার জন্য প্রস্তুত হতে পারবেন বলেই মনে করছেন নড়াইল এক্সপ্রেস। ফেরার জন্য মাসখানেক সময় পাচ্ছেন বলে করপোরেট টুর্নামেন্ট দিয়ে ফিরতে আত্মবিশ্বাসী মাশরাফি।

‘নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে করপোরেট টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে। মাসখানেক সময় আছে। সময়টা যথেষ্টই মনে হচ্ছে। পুরোনো কাজগুলো নতুন করে করতে হবে। শরীর পুরোপুরি সাপোর্ট করলে সহজেই ম্যাচ খেলার মতো ফিটনেস পেয়ে যাবো।’ – যোগ করেন মাশরাফি।

সাকিব ক্রিকেট বাজিকরদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার দায়ে এবং তাদের সঙ্গে কথোপকথনের তথ্য গোপন করার দায়ে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ। ২৯ অক্টোবর থেকে মাঠে ফিরতে পারবেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার। শ্রীলঙ্কা সফরের প্রস্তুতি নিতে গত ৫ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরে বিকেএসপিতে নিবিড় প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সাকিব। সফর স্থগিত হওয়ায় তিনি ফিরেছেন যুক্তরাষ্ট্রে। ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে সাকিবের খুব একটা আগ্রহ না থাকলেও এবার করপোরেট ক্রিকেটে দেখা যাবে।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘নভেম্বরে করপোরেট টুর্নামেন্টে খেলতে সাকিবের কোনও সমস্যা নেই। টুর্নামেন্টের আগেই ও দেশে চলে আসবে।’ মাশরাফিকে নিয়ে আলাদা করে বোর্ড প্রধান বলেন, ‘তিন দলের টুর্নামেন্টে ও খেলতে চায়নি, ব্যাপারটি এমন নয়। ওর প্রস্তুতির বিষয় আছে। তা ছাড়া টুর্নামেন্টটির কথা সে হঠাৎ করেই শুনেছে। পরবর্তী যে টুর্নামেন্ট আছে, তাতে মাশরাফি অবশ্যই খেলবে।’

এদিকে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘মাশরাফি ও সাকিব মাঠে ফেরার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। দুইজনই করপোরেট টুর্নামেন্ট দিয়ে মাঠে ফিরবে। আমরাও সেভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি। ’

মাশরাফি ও সাকিব মাঠে ফিরলে দীর্ঘদিন পর ক্রিকেটের ‘পঞ্চপাণ্ডব’-কে আবার একসঙ্গে দেখা যাবে ২২ গজ ও সবুজ ঘাসে। হয়তো একই জার্সিতে নয়, আলাদা পাঁচ জার্সিতে। তবুও মাঠে তাদের উপস্থিতি সব সময়ই ভিন্ন রকমের রোমাঞ্চ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Nazmul Hasan